বাগাতিপাড়ায় দীর্ঘ ৬ বছর যাবৎ (ভারপ্রাপ্ত) প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার

প্রকাশিত: মে ৬, ২০১৯; সময়: ১১:৩৯ am |

নিজস্ব প্রতিবেদক, বাগাতিপাড়া : বাগাতিপাড়া উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের এটিও হয়ে শিক্ষা অফিসারের দায়িত্ব পালন করছেন দীর্ঘ পাচঁ বছর যাবৎ জনাব ফাইজুল ইসলাম। অএ অফিসে কর্তব্যরত শিক্ষা অফিসার ড. সাবরিনা আানাম যোগদান করেন গত ২৫/০৩/২০১৩ইং। কিন্তু তার নিজ সুবিদার্থে ডেপুটেশন নিয়ে বিভাগীয় উপ-পরিচালকের কার্যালয়, রাজশাহীতে অফিস করছেন। এতে এটিও (ভারপ্রাপ্ত) প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারের অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করছেন। বিভিন্ন বিষয়ে অনভিজ্ঞতার কারণে অফিসে চরম অচলাবস্থা বিরাজ করছে। এই বিভাগে সহকারী শিক্ষা অফিসার (এটিও) কর্মরত আছেন ২জন। এর মধ্যে ১ জন ভারপ্রাপ্ত দায়িত্ব পালন করায় অন্য ১ জন (এটিও) দ্বারা ৫৬ টি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন করা একার পক্ষে সম্ভব হচ্ছে না।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক শিক্ষানুরাগী বলেন, অত্র উপজেলায় প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার পদটি শুন্য থাকায় নিয়মিত ভাবে সব বিদ্যালয়গুলো পরিদর্শন করতে পারছেননা তারা। সেই সুযোগে কিছু সুবিধাভোগী শিক্ষকেরাও বিদ্যালয়ে উপস্থিত হচ্ছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে এবং বিদ্যালয়ে গিয়ে হাজিরা খাতায় সাক্ষর করে চলে আসেন। বিদ্যালয়ে নিয়মিতভাবে ছাত্র/ছাত্রীর উপস্থিতির কথা থাকলেও উপস্থিতি হার কম লক্ষ করা যাচ্ছে। শিক্ষা অফিসের প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার (টিও) পদটি দীর্ঘ সময় শূন্য থাকার কারণে এমনটা হচ্ছে বলে মনে করেন সচেতন মহল।

শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা গেছে, প্রায় ৫ বছর হলো উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারের পদটি শুন্য রয়েছে। মাত্র দু’জন সহকারী শিক্ষা অফিসার (এটিও), অফিস সহকারী ও একজন পিওন দিয়ে চলছে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের কার্যক্রম।

অপর দিকে নাটোর জেলা শিক্ষা অফিস সুত্রে জানা যায়, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের নিয়ম অনুযায়ী একজন শিক্ষা অফিসার/সহকারী শিক্ষা অফিসার (এটিও/টিও) একই স্টেশনে সর্বোচ্চ তিন বছর থাকতে পারেন। এদিকে বাগাতিপাড়া উপজেলা শিক্ষা অফিসের এটিও মো. ফাইজুল ইসলাম প্রায় পাঁচ বছর যাবৎ একই উপজেলায় কর্মরত থেকে ভারপ্রাপ্ত দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন ও এটিও মো. মজনু মিয়া তিনিও প্রায় চার বছর একই স্টেশনে রয়েছেন।

বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি বাগাতিপাড়া শাখার সেক্রেটারী প্রধান শিক্ষক শাহাদৎ হোসেন দাবী করেন, একটি বাড়ির অভিভাবক না থাকলে সেই পরিবারের যে অবস্থা হয়, ঠিক আমাদের উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা ব্যবস্থাতেও একই অবস্থা বিরাজ করছে। আমাদের উপজেলায় কর্মরত সকল শিক্ষকই ভালো তারপরেও একজন পূর্ণাঙ্গ শিক্ষা অফিসার প্রয়োজন। তাহলে একটি টিম ওয়ার্কের মাধ্যমে বাগাতিপাড়া শিক্ষা ব্যবস্থার আরো উন্নতি করা সম্ভব হবে।

স্থানীয় সংসদ সদস্য নাটোর-১ (লালপুর-বাগাতিপাড়া), উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও উপজেলা চেয়্যারম্যন বাগাতিপাড়া, নাটোর মহোদয় সহ উর্দ্ধতন কতৃপক্ষের কাছে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারের শূন্য পদটি পুরণ করার জন্য দৃষ্টি আকর্ষণ করছেন এলাকার সচেতন মহল ও এলাকাবাসী।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে