আমন চাষে পুরোদমে মাঠে কৃষক

প্রকাশিত: জুন ২৯, ২০২০; সময়: ১০:১০ pm |
খবর > কৃষি

আসাদুজ্জামান মিঠু: অন্যসব বছরের চেয়ে এবার আষাঢ় একটু আগেই শুরু হয়েছে। জ্যৈষ্ঠ মাসের শেষ সপ্তহের থেকে পুরো দমে বৃষ্টি শুরু হয়েছে। আষাঢ়ের ১৫ দিন পেরিয়েছে। তবুও এক দিনের জন্য বৃষ্টি ঝরেনি এমন দিন পাওয়া যাবেনা।

তাই অগ্রিম অতিরিক্ত বৃষ্টি পেয়ে আমন চাষে মাঠে মেনে পড়েছে কৃষকেরা। রাজশাহীসহ বরেন্দ্র অঞ্চলের এখন আমন চাষে ব্যস্ত সময় পার করছেন কৃষকেরা।

তবে অন্যসব বছরের চেয়ে চলতি মৌসুমে আমন চাষে বাড়তি আগ্রহ আছে কৃষকের মধ্যে। গত কয়েক বছরের মধ্যে এ বছর বোরো ধানে ভাল দাম পেয়েছেন। ফলনও ভাল গেছে। তাই এবার ধান চাষ করে কৃষকেরা লাভের মুখ দেখেছেন। শুধু ধানেই নয়,চলতি বছর মুসুর,সরিষা,আলুসহ অন্যসব রবিসশ্য বাজার বেশ চড়া ছিল শুরু থেকেই। এতে খুশি কৃষক।

রাজশাহীসহ বরেন্দ্র অঞ্চলে চলতি মৌসুমে জ্যৈষ্ঠ মাসের মাঝা মাঝি সময় থেকে আমন চাষে প্রস্ততি শুরু করেছেন এ অঞ্চলের কৃষকেরা। আষাঢ় মাস শুরুর আগেই বৃষ্টি হতে শুরু হয়েছে এ অঞ্চলে। আষাঢ়ের প্রথম সপ্তহ থেকেই বীজতলা থেকে চারা তুলে আমন রোপন শুরু করেছেন কৃষকেরা। পুরোদমে মাঠে মাঠে আমন রোপন শুরু হয়েছে।

রাজশাহী জেলা কৃষি সম্প্রাসরণ অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, চলতি মৌসুমে রাজশাহী জেলায় আমনের লক্ষ্য মাত্রা ধরা হয়েছে ৭৩ হাজার ৩৩৫ হেক্টর জমিতে। তবে,লক্ষ্যমাত্রা চেয়ে বেশি আমন আবাদ হবে বলে কৃষি কর্মকর্তারা আশা করছেন।

এর জন্য জেলায় এবার বীজতলা হয়েছে ৩ হাজার ৬৬৭ হেক্টর জমিতে। এছাড়াও রাজশাহী অঞ্চলের,রাজশাহী,নঁওগা,নাটোর ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় আমন চাষাবাদ হবে আরো ৩ লক্ষ্য ৫০ হাজার হেক্টরের উপরে। এই জন্য এ অঞ্চলে বীজতলা হয়েছে ১৮ হাজার হেক্টরের বেশি জমিতে।

রাজশাহীর তানোর উপজেলার শিবরামপুর গ্রামের কৃষক জহুরুল ইসলাম জানান, আমন চাষে সেচ খরচ লাগে না। সার খরচও কম।বর্ষার পানির উপর নির্ভর করে উচুঁ নিচু সকল জমিতে আমন চাষাবাদ করা হয়ে থাকে। এ বছর অগ্রিম অতিরিক্ত বৃষ্টি তাই দেরি না করে আমন চাষে নেমে পড়েছেন তারা।

বরেন্দ্র অঞ্চলের কৃষকেরা জানান,চলতি বোরো মৌসুমে ধানের দাম ভাল পাওয়াই আমন চাষে এবার বাড়তি আগ্রহ আছে কৃষকের মধ্যে। তাই এবার বৃষ্টি বেশি হওয়াই অগ্রিম আমন চাষে নেমেছেন কৃষকেরা। অন্য বছরে বৃষ্টির অভাবে আষাঢ়ের ২০ দিন পেরিয়ে গেলেও আমন চাষ শুরু করতে পারেনা তারা।

তানোর উপজেলা উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা সমশের আলী জানান, চলতি মৌসুমে আমন চাষাবাদ করার জন্য জ্যৈষ্ট মাসের ১৫ তারিখ থেকে বীজতলার কাজ শুরু করেছেন এই অঞ্চলে কৃষকেরা। আষাঢ়ের শুরুতেই বৃষ্টি পুরোদমে আমন রোপন শুরু করেছেন কৃষকেরা। লক্ষ্যমাত্রার চেয়েও চলতি বছছর বেশি আমন চাষ হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও খবর

  • আত্রাইয়ে পাট কাটা-ধোয়ায় ব্যস্ত কৃষাণরা
  • কামারখন্দে কলা চাষে ঝুঁকছেন কৃষকরা
  • ভাল দাম থাকায় বরেন্দ্রাঞ্চলে আউশের আবাদ লক্ষমাত্রা ছাড়িয়ে
  • ড্যান ড্যান, বাঁ বাঁ, যা যা, হুট হাট আর শোনা যায় না
  • আমন চাষে পুরোদমে মাঠে কৃষক
  • রাজশাহীর পদ্মার চরে বাদাম চাষে লাভবান কৃষক
  • সৌদির সাম্মাম চাষ হচ্ছে নওগাঁয়
  • ধামইরহাটে বিনামুল্যে ২৫৬ পরিবারে সবজি বীজ বিতরণ
  • সুজানগরের কৃষকদের মাঝে সবজি বীজ ও আর্থিক সহায়তা প্রদান
  • শিবগঞ্জে পাট চাষীদের প্রশিক্ষণ কর্মশালা
  • বগুড়ার শিবগঞ্জে কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে ধানের বীজ বিতরণ
  • সৌদির মরুভূমির ‘সাম্মাম’ ফল এখন আত্রাইয়ে
  • সরকারি প্রণোদনার খবর জানেন না ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক
  • তানোরে সরকারি গুদামে ধান বিক্রিতে আগ্রহ নেই কৃষকদের
  • পুঠিয়ায় বোরো ধান-চাউল সংগ্রহ কর্মসূচীর উদ্ধোধন
  • উপরে