কচুয়ায় কমেছে গম চাষ, ভুট্টায় আবাদে ঝুঁকছেন কৃষক

প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২৩; সময়: ৪:১৬ pm |
কচুয়ায় কমেছে গম চাষ, ভুট্টায় আবাদে ঝুঁকছেন কৃষক

নিজস্ব প্রতিবেদক, কচুয়া : চাঁদপুরের কচুয়ায় প্রতি বছর কমে যাচ্ছে অন্যতম ফসল গমের আবাদ। অধিক ফলন এবং দাম ভালো পাওয়ায় গমের পরিবর্তে ভুট্টা আবাদে আগ্রহ বাড়ছে কৃষকদের।

এক সময়ে কচুয়া উপজেলা প্রচুর পরিমানে গমের আবাদ হতো। কৃষকরা দাম পেয়েছিল ভাল। বর্তমানে খরচ কম ও অধিক লাভ হওয়ায় ভুট্টার আবাদে ঝুঁকছেন কৃষকরা।

কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, চলতি মৌসুমে কচুয়া উপজেলা ১০ হেক্টর জমিতে গমের আবাদ হয়েছে। দিন দিন কমে যাচ্ছে গমের আবাদ। বর্তমানে গমের জমিতে ভুট্টা ছাড়াও বোরো এবং উন্নত জাতের টমেটো আবাদ করে বেশি লাভ গুনছেন কৃষকরা। চলতি মৌসুমে অন্য যেকোনো ফসলের তুলনায় ভুট্টার ফলন বেশি হচ্ছে। তবে অনেক কৃষক বোরো এবং উন্নত জাতের টমেটো চাষ করেও লাভবান হচ্ছেন। উপজেলার বিস্তীর্ণ এলাকায় যেসব জমিতে এক সময়ে গমের আবাদ হতো বর্তমানে ওসব জমিতে এখন ভুট্টা, বোরো আর উন্নতজাতের টমেটোর আবাদে ভরে গেছে। আগামী মৌসুমে গম আবাদি জমির পরিমাণ আরও কমে যেতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

স্থানীয় গম চাষীরা বলেন, এক সময়ে এ উপজেলার মাটি ও আবহাওয়া গম আবাদের জন্য বেশ উপযোগী ছিল। কিন্তু বর্তমান সময়ে ধান ও ভুট্টার আবাদে ভালো ফলনের সঙ্গে উপযুক্ত দাম পাচ্ছেন কৃষকরা। পাশাপাশি গম আবাদে উৎপাদন খরচ এবং পরিশ্রম বেশি লাগে। এসব কারণেই মূলত উপজেলায় প্রতি বছর গমের আবাদ কমে যাচ্ছে।

উপজেলা কৃষি অফিসার সোফায়েল হোসেন বলেন, এ উপজেলা মাটি ও আবহাওয়া গম আবাদের জন্য বেশ উপযোগী। তবে এবছর উপজেলায় ১০ হক্টের জমিতে গমের আবাদ করলে বাম্পার ফলন হয়েছে। এখানে পূর্বে দীর্ঘদিন ধরেই গমের আবাদ করা হত। তবে দিন দিন জমিতে গমের কমে যাচ্ছে।

এর কারণ হচ্ছে, গম থেকে কৃষকরা ভুট্টা আবাদের দিকে ঝুঁকছেন। এ জন্য আমাদের এলাকায় ভুট্টা এবং বোরো আবাদ বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে বেশি বেশি গমের আবাদের জন্য কৃষকদের সার্বিক ভাবে পরামর্শ দেয়া হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
topউপরে