পবার নলখোলায় এক প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ফলজ গাছ কেটেছে দুষ্কৃতিকারিরা

প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ৫, ২০২৩; সময়: ৬:১০ pm |
পবার নলখোলায় এক প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ফলজ গাছ কেটেছে দুষ্কৃতিকারিরা

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহীর পবার নলখোলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছয়টি ফলজ গাছ কেটেছে দুষ্কৃতিকারিরা। এব্যাপারে ওই বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির রেজাউল করিম আরএমপি কাটাখালী থানাসহ উপজেলা শিক্ষা অফিসে অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ ও বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির রেজাউল করিমের কাছে থেকে জানা গেছে, হরিয়ান ইউনিয়নের কাটাখালী থানার নলখোলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে বিভিন্ন ফলের গাছ লাগানো আছে। এরমধ্যে শনিবার দিবাগত রাতে কে বা কারা বিদ্যালয়ের মাঠে থাকা ফলের গাছের মধ্যে ৬ টি ফলের গাছসহ অন্যান্য গাছ কেটে ফেলেছে। কর্তনকৃত গাছগুলোর মধ্যে ছিল দুইটি বরই, একটি ডালিম, একটি টি লিচু, একটি টি আম, একটি টি কামরাঙ্গা। এতে প্রায় ১২ হাজার টাকার ক্ষতিসহ বিদ্যালয়ের সৌন্দর্য নষ্ট হয়েছে। দপ্তরি কাম প্রহরী থাকা সত্বেও দুষ্কৃতিকারিরা গাছগুলো কেটে ফেলেছে।

এ বিষয়ে একজন প্রত্যেক্ষদর্শী মছির উদ্দিন (বহিরাগত হকার তার নিজস্ব বাসা না থাকায় স্কুলের বারান্দায় রাত্রি যাপন করে) বলেন, তিনি ঘটনার রাতে স্কুলের বারান্দায় শুয়ে ছিলেন। সেইসময় তিনজন ছেলে তাকে জিম্মি করে গাছ কেটেছে। গাছ কর্তনকারিরা তাকে চেচামেচি করলে বা কাউকে আমাদের কথা বললে জানে মেরে ফেলার হুমকী দেয়। এত তিনি ভয় পেয়ে চুপ করে থাকেন।

দপ্তরি কাম প্রহরী মো. সালাউদ্দিন @ আমিনুল ইসলাম বলেন, আমি রাতে ঘুমিয়ে গেছি আর বুঝতে পারিনি কে বা কারা গাছগুলো কেটে ফেলেছে।

প্রধান শিক্ষক মোসা: আফরোজা বেগম জানান, তিনি গাছগুলো কাটা ফেলায় মর্মাহত। তিনি বিষয়টি উপজেলা শিক্ষা অফিসারকে জানিয়েছেন। উপজেলা শিক্ষা অফিসার রফিকুল ইসলাম জানান, ঘটনাটি শুনেছি। অভিযোগ পেলে পদক্ষেপ নেয়া হবে।

হরিয়ান ইউপির চেয়ারম্যান মফিদুল ইসলাম ব্চাু বলেন, ওই বিদ্যালয়ের সভাপতি তাকে ফোন দিয়ে তাকে জানিয়েছেন। আরএমপি কাটাখালী থানা অফিসার্স ইনচার্জ বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
topউপরে