নন্দীগ্রামে বাবার কাছে অধিকার পেতে ছেলের আকুতি

প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৯, ২০২৩; সময়: ৫:৩৮ pm |
নন্দীগ্রামে বাবার কাছে অধিকার পেতে ছেলের আকুতি
নিজস্ব প্রতিবেদক, নন্দীগ্রাম  : বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলার থালতা মাঝগ্রাম ইউনিয়নের গুলিয়া কৃষ্ণপুর গ্রামের আব্দুস সালামের ছেলে সামিউল ইসলাম রঞ্জু তার বাবার কাছে অধিকার দাবিতে গত দুই দিন হলো আকুতি মিনতি করছেন।
বৃহস্পতিবার (১৯ জানুয়ারি) সকালে সামিউল ইসলাম রঞ্জু বলেন, আমার বাবার আছে অনেক সম্পত্তি আছে। এরপরেও আমার ইজিবাইক চালিয়ে সংসার চালাতে হয়।
খুবকষ্টে চলে আমার  সংসার। এ জন্যই বাবা বাড়িতে এসেছি কিন্তু বাবা আমাকে বাড়িতে ঢুকতে দিচ্ছে না। দুইদিন পর আবার আমড়া গোহাইল গ্রামে মামাবাড়িতেই ফিরে আসতে বাধ্য হই। আমার প্রাপ্য অধিকার পেতে সবার সহযোগিতা কামনা করছি।
তিনি আরও বলেন,  আমার পিতা আব্দুস সালাম, মাতা রেহেনা বেগম। ১৯৮৫ সালে আমার জন্মের পর বাবা ও মায়ের বিচ্ছেদ ঘটে। এরপর থেকে আমি অসহায় অবস্থায় মামার বাড়িতে বেড়ে উঠেছি।
এখন আমার ৩৬ বছর বয়স। আমার স্ত্রী ও দুই সন্তান নিয়ে অতিকষ্টে জীবনযাপন করছি। আমার পিতা আব্দুস সালাম আমার প্রাপ্য অধিকার ফিরে দিলে এতো কষ্টে আর জীবনযাপন করতে হতো না।
এ ব্যাপারে আব্দুস সালামের সাথে কথা বললে তিনি বলেন, সামিউল ইসলাম রঞ্জু আমারই সন্তান। সে আমার পরিচয়েই বড় হয়েছে। সে বিয়ে করেছে কিন্তু আমাকে কিছুই বলেনি। আমার সন্তান তার অধিকার পাবে।
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
topউপরে