গুজরাটে কড়া নিরাপত্তায় মুক্তি পাবে ‘পাঠান’

প্রকাশিত: জানুয়ারি ১৯, ২০২৩; সময়: ১১:৩৫ am |
খবর > বিনোদন
গুজরাটে কড়া নিরাপত্তায় মুক্তি পাবে ‘পাঠান’

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : হিন্দু ধর্মাবেগে আঘাতের অভিযোগে গুজরাটে ‘পাঠান’ ছবি মুক্তির বিরোধীতা করছে সেখানকার বিশ্ব হিন্দু পরিষদের যুব বাহিনী বজরং দল। আর এ কারণে ওই রাজ্যের সিনেমা হলগুলোর নিরাপত্তা চাইছে মালিকেরা।

এ প্রসঙ্গে মাল্টিপ্লেক্স অ্যাসোসিয়েশন অব গুজরাটের (এমএজি) সভাপতি মনুভাই প্যাটেল ভারতীয় গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, বৈঠকে মন্ত্রী মাল্টিপ্লেক্স থিয়েটারগুলোর সুরক্ষার আশ্বাস দিয়েছেন। ছবিটি মুক্তির ঠিক এক সপ্তাহ আগেই অ্যাসোসিয়েশনের প্রতিনিধিরা গান্ধীনগরে সাংহাভির সঙ্গে দেখা করেন।

এদিকে, বজরং দল আগেই জানিয়ে দিয়েছিল যে, ছবির গানে হিন্দু ধর্মকে অপমান করা হয়েছে, তাই তারা কিছুতেই গুজরাটের প্রেক্ষাগৃহে সিনেমাটি মুক্তি পেতে দেবে না।

‘বেশরম রঙ’ গানটিতে দীপিকার গেরুয়া বিকিনি পরিধান দৃষ্টিকটু লেগেছে একাধিক রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বের। শাহরুখ-দীপিকার একাধিক দৃশ্যের কাটছাঁটের দাবি তুলেছিলেন হিন্দুত্ববাদীরা। সেই অনুযায়ী, সেন্সর বোর্ডের নির্দেশে গানের ১০ টি কাঁচি চালানো হয়।

প্যাটেল আরও বলেন, “স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ‘পাঠান’ মুক্তির বিরুদ্ধে প্রেক্ষাগৃহকে সুরক্ষার আশ্বাস দিয়েছেন। গুজরাটে প্রায় ৫০টিরও বেশি মাল্টিপ্লেক্সে ২৫ জানুয়ারি সিনেমাটি মুক্তি পাবে।’

আহমেদাবাদের ওয়াইড অ্যাঙ্গেল মাল্টিপ্লেক্সের মহাব্যবস্থাপক নীরজ আহুজা বলেন, ‘স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী যারা প্রতিবাদ ও হট্টগোল সৃষ্টি করবে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন পুলিশকে। কারণ সিনেমাটিকে সেন্ট্রাল বোর্ড অব ফিল্ম সার্টিফিকেশন দ্বারা ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে।’

বজরং দলের উত্তর গুজরাট সভাপতি জ্বালিত মেহতা বলেছেন, “সিনেমার একটি গানে ‘বেশরম’ শব্দটি ব্যবহার করা হিন্দু সম্প্রদায়ের জন্য অপমান। তাই হিন্দু সম্প্রদায় এই গানটির (বেশরম রঙ) ওপর ক্ষোভ প্রকাশ করেছে। হিন্দু ধর্মকে অবমাননা করা বলিউডের একটি ফ্যাশনে পরিণত হয়েছে। তাই, এবার বজরং দল কাউকে ক্ষমা করবে না। এ ছাড়াও, চলচ্চিত্রের স্বল্প পোশাক পরা নায়িকাদের দেখে পুরুষদের মধ্যে যে বিকৃতি ঘটে তা স্কুলগামী মেয়েদের উপর কোপ পড়ে।’

গত মাসে ‘বেশরম রঙ’ গানটি প্রকাশের পরপরই ছবিটি বিতর্কের মুখে পড়ে। মধ্যপ্রদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নরোত্তম মিশ্র গানটিতে পাড়ুকোনের পোশাক নিয়ে আপত্তি জানান। বিশ্ব হিন্দু পরিষদের মুখপাত্র বিনোদ বনসালও অভিনেতার জাফরান পোশাক এবং বিতর্কিত গানের কিছু দৃশ্য নিয়ে আপত্তি জানিয়েছিলেন। মধ্যপ্রদেশ উলামা বোর্ড ‘ইসলামকে ভুলভাবে উপস্থাপন করার’ জন্য সিনেমাটির ওপর নিষেধাজ্ঞাও চেয়েছিলেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
topউপরে