বিপিএলে মুশফিকের অন্যরকম সেঞ্চুরি

প্রকাশিত: জানুয়ারি ১১, ২০২৩; সময়: ৪:০২ pm |
খবর > খেলা
বিপিএলে মুশফিকের অন্যরকম সেঞ্চুরি

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসে বেশ কয়েকটি উল্লেখযোগ্য রেকর্ডের মালিক মুশফিকুর রহিম। বাংলাদেশের হয়ে প্রথম ডাবল সেঞ্চুরির কীর্তিও তার।

কিন্তু বাংলাদেশের ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ বিপিএলে এখনো সেঞ্চুরির মুখ দেখেননি মুশফিক। তবে অন্যরকমভাবে ঠিকই সেঞ্চুরির ঘর ছুঁয়েছেন দেশসেরা টেকনিক্যাল ব্যাটার।

বিপিএলে মুশফিকের সর্বোচ্চ ইনিংস অপরাজিত ৯৮ রান। এবার সেই রান পেরিয়ে আরো দুই রান যোগ করলেন, তবে সেটা বিপিএলে খেলায় ম্যাচ সংখ্যায়। প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে বাংলাদেশের এই ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে একশ ম্যাচ খেলার কীর্তি গড়লেন অভিজ্ঞ ব্যাটার।

এই আসরে বাংলাদেশ তো বটেই, বিশ্বের আর কোনো ক্রিকেটার এমন অভিনব সেঞ্চুরি ছুঁতে পারেননি। বিপিএলের এবারের নবম আসরে ঢাকা ডমিনেটর্সের বিপক্ষে সিলেট স্ট্রাইকার্সের ম্যাচ দিয়ে বিপিএলে একশ ম্যাচ খেলার রেকর্ড গড়েন মুশফিকর রহিম।

বিপিএলের ইতিহাসে এখন পর্যন্ত মোট ৮টি দলের হয়ে খেলেছেন ‘পকেট ডায়নামো’ খ্যাত এই ক্রিকেটার। এর মধ্যে সর্বোচ্চ সংখ্যকবার খেলেছেন সিলেটের হয়ে। সিলেটেই আগে তিনি খেলেছেন সিলেট রয়্যালস ও সিলেট সুপার স্টার্সের হয়ে।

সিলেটের এই তিন দল বাদে এর আগে মুশফিক খেলেছেন দুরন্ত রাজশাহী, রাজশাহী কিংস, চিটাগং ভাইকিংস, খুলনা টাইগার্স ও বরিশাল বুলসের হয়ে। দলগুলোর হয়ে খেলা ১০০ ম্যাচের ৮৪টিতেই তিনি নেতৃত্ব দিয়েছেন তিনি।

নেতৃত্বের দিক দিয়ে অবশ্য এখনো পিছিয়ে আছেন মুশি। বিশ ওভারের এই আসরে সবচেয়ে বেশি ৯০ ম্যাচে নেতৃত্ব দেওয়ার রেকর্ড মাশরাফী বিন মোর্ত্তজার। ম্যাচ খেলার দিক দিয়ে পিছিয়ে আছেন ম্যাশ। মুশফিকের শততম ম্যাচটি ছিলো মাশরাফির ৯৫তম ম্যাচ।

ম্যাচ খেলার দিক দিয়ে মুশফিকের পরই আছেন এনামুল হক বিজয়। এখন পর্যন্ত বিপিএলে এই কিপার-ব্যাটসম্যানের খেলা ম্যাচের সংখ্যা ৯৬। এরপর আছেন ইমরুল কায়েস। তিনি খেলেছেন ৯৪ ম্যাচ। মাহমুদউল্লাহ ও সাব্বির রহমান খেলেছেন ৯৩টি করে ম্যাচ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
topউপরে