বাগমারায় আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে প্রভাবশালীর ভবন নির্মাণ

প্রকাশিত: জানুয়ারি ৯, ২০২৩; সময়: ৩:০৬ pm |
বাগমারায় আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে প্রভাবশালীর ভবন নির্মাণ

নিজস্ব প্রতিবেদক, বাগমারা : রাজশাহীর বাগমারায় মহামান্য আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ভবন নির্মাণ শুরু করেছে তোরা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান।

উপজেলার মাদারীগঞ্জ বাজারে গনিপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ জামালপুর গ্রামের মৃত লুৎফর রহমানের ছেলে তোজাম্মেল হক ক্রয়কৃত ও ভোগদখলীয় সম্পত্তিতে সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে অবৈধ ভাবে জোর পূর্বক ভবন নির্মাণ শুরু করেছেন। জোর পূর্বক ওই সম্পত্তিতে যেন ভবন করা না হয় সে জন্য গত ৪ জানুয়ারি রাজশাহীর অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে জমির মালিক তোজাম্মেল হক ন্যায় বিচারের স্বার্থে একটি আবেদন করেন।

মহামান্য আদালত তোজাম্মেল হকের আবেদনের প্রেক্ষিতে ওই সম্পত্তির রকম পরিবর্তন ও ভোগ দখলে বাধার সৃষ্টি করতে না পারে সে জন্য অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞার আদেশ জারি করেছে। আদালতের সেই নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে প্রভাব খাটিয়ে সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে দিব্যি ঘর নির্মাণ শুরু করেছে কামরুজ্জামান। সেই সাথে নিষেধাজ্ঞা বজায় রাখার জন্য বাগমারা থানা পুলিশকে আদেশ দিয়েছে মহামান্য আদালত।

আদালত নিষেধাজ্ঞা প্রদান করলেও থানা পুলিশের নীরবতায় তোরা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান প্রভাবশালী কামরুজ্জামান সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে ভবন নির্মাণ করে চলেছেন। ওই স্থানে ভবন নির্মাণকে কেন্দ্র করে তোরা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান তোজাম্মেল হক সহ বেশ কয়েক জনের বিরুদ্ধে ১০ লাখ টাকা চাঁদাবাজির একটি মিথ্যা মামলা দায়ের করেছে। ওই মামলায় পুলিশ তোজাম্মেল হককে গ্রেপ্তার করে আদালতে প্রেরণ করে। এদিকে বিবাদমান সম্পত্তির মালিক হয়েও কেন মিথ্যা মামলায় গ্রেফতার হতে হলো এমন প্রশ্ন তোজাম্মেল হকের পরিবারের সদস্যদের।

তোজাম্মেল হকের ভাই সামসুল হক বলেন, ওই সম্পত্তি অনেক আগেই আমরা ক্রয় করি। প্রায় ৪০ বছর ধরে ভোগদখল করে আসছি। হঠাৎ করে কামরুজ্জামান রাতারাতি ওই জমিতে সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে ভবন নির্মানের কাজ শুরু করে। আমাদের সম্পত্তিতে যেন জোর পূর্বক ভবন নির্মাণ করতে না পারে সে কারনে মহামান্য আদালতের দারস্থ হয়েছি। মাদারীগঞ্জ বাজারে ভবন নির্মাণ নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। যে কোন সময় রক্ষক্ষয়ী সংঘর্ষে রুপ নিতে পারে।

আদালতের নিষেধাজ্ঞা থাকার পরেও কেন ওই স্থানে ভবন নির্মান করছেন এমন প্রশ্নের জবাবে তোরা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান বলেন, আমি কোন নিষেধাজ্ঞার আদেশ পাইনি। পেলে কাজ বন্ধ রাখা হবে।

এ ব্যাপারে বাগমারা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আমিনুল ইসলাম বলেন, মহামান্য আদালতের পক্ষ থেকে নিষেধাজ্ঞার কোন আদেশ পাইনি। পেলে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
topউপরে