শত্রুতায় গেল হাজার গাছের প্রাণ!

প্রকাশিত: জানুয়ারি ৮, ২০২৩; সময়: ৬:১৮ pm |
শত্রুতায় গেল হাজার গাছের প্রাণ!

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঈশ্বরদী: পাবনার ঈশ্বরদীতে ১ হাজার ২০০ কলাগাছ কেটে নষ্ট করে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। গতকাল শনিবার দিবাগত রাতে উপজেলার পাকশী ইউনিয়ের রূপচর কনিকা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তির দাবি, শত্রুতাবশত কলাগাছ কেটে ক্ষতি করতে পারে। এ ঘটনায় তাঁদের প্রায় পাঁচ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

রোববার সরেজমিনে জানা গেছে, ঈশ্বরদী শহর থেকে প্রায় দশ কিলোমিটার দূরে রূপচর কনিকা গ্রাম। ওই গ্রামের প্রান্তিক কৃষক আমিরুল বিশ্বাসের কলা বাগান। তিনি প্রায় ২ একর জমিতে বাণিজ্যিকভাবে কলার চাষ করেছিলেন। এই জমির প্রায় ১ হাজার ২০০ কলাগাছ কেটে নষ্ট করেছে দুর্বৃত্তরা।

মামলার এজাহার ও স্থায়ীয় লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, পদ্মার চরের জমিতে দীর্ঘদিন ধরে কলার আবাদ করে আসছিলো আমিরুল। এ নিয়ে ওই গ্রামের খায়রুল ইসলাম ও নবাব আলীর সঙ্গে জমিজমার আবাদ নিয়ে তাঁদের মধ্যে ছুরি-কাটারির সম্পর্ক তৈরি হয়। তাঁদের ধারণা, শত্রুতাবশত প্রতিপক্ষের লোকজন কলা গাছ কেটে ক্ষতি করতে পারেন।

ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক আমিরুল বিশ্বাস বলেন, ‘আজ সকালে কলাবাগানে গিয়ে দেখি, বাগানের ২ হাজার কলাগাছের প্রায় সবই ধারালো অস্ত্র দিয়ে কেটে ফেলা হয়েছে। কলাগাছে থোড় আসা শুরু করেছিল। এখন আমার মাথায় হাত।’

চররূপপুর গ্রামের স্থানীয় বাসিন্দা দুলাল বিশ্বাস জানান, মানুষ মানুষের সঙ্গে শত্রুতা করে। কিন্তু গাছের সঙ্গে এ কেমন শত্রুতা? বাগানের গাছ তো কারও সঙ্গে শত্রুতা করেনি। গাছের কোনো অপরাধ নেই। তাহলে কেন এমন করা হলো?

ঈশ্বরদী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অরবিন্দ সরকার বলেন, ‘লিখিত অভিযোগ হাতে পেয়েছি। তদন্ত করে জড়িত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

এ ব্যাপারে খায়রুল ইসলাম ও নবাব আলীর সঙ্গে বারবার যোগাযোগ করা হলেও তাঁরা ফোন ধরেননি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
topউপরে