ভাগ্যের খারাপ পরিণতি থেকে রক্ষার দোয়া

প্রকাশিত: জানুয়ারি ৮, ২০২৩; সময়: ১:২১ pm |
খবর > ধর্ম
ভাগ্যের খারাপ পরিণতি থেকে রক্ষার দোয়া

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : আল্লাহ তায়ালা মানুষকে পরীক্ষার জন্য বিপদাপদ দিয়ে থাকেন। পবিত্র কোরআনে আল্লাহ তায়ালা বলেন, ‘আর তোমরা আল্লাহ ও তাঁর রাসুলের আনুগত্য করো এবং নিজেদের মধ্যে ঝগড়া করবে না, করলে তোমরা সাহস হারাবে এবং তোমাদের শক্তি বিলুপ্ত হবে। আর ধৈর্য ধারণ করো। নিশ্চয়ই আল্লাহ ধৈর্যশীলদের সঙ্গে আছেন।’ (সুরা আনফাল, আয়াত : ৪৬)

অন্য আয়াতে আল্লাহ তায়ালা বলেন, ‘আর আমরা তোমাদের অবশ্যই পরীক্ষা করব কিছু ভয়, ক্ষুধা এবং ধন-সম্পদ, জীবন ও ফসলের ক্ষয়ক্ষতি দ্বারা। আর আপনি সুসংবাদ দিন ধৈর্যশীলদের।’ (সুরা বাকারা, আয়াত : ১৫৫)

বিপদাপদ আল্লাহর পক্ষ থেকে পরীক্ষা। তবে অনেক সময় পাপীদের পাপের পরিণাম হিসেবেও বিপদাপদ আসে। তবে পার্থক্য হচ্ছে- নেককার ব্যক্তি বিপদে পতিত হয়েও একরকম প্রশান্তির অনুভূতি লালন করতে পারেন।

পক্ষান্তরে পাপী ব্যক্তি বিপদে পড়লে পরকালের কঠিন যন্ত্রণার কিছু অংশ দুনিয়াতেই ভোগ করতে থাকে। মানুষের কর্তব্য সব ধরনের বিপদাপদ থেকে আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করা। রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বিভিন্ন দোয়ার মাধ্যমে বিপদ থেকে মুক্তি চাইতে বলেছেন। এমন একটি দোয়া হল-

اللهمَّ إنِّي أعُوذُ بِكَ مِنْ جَهْدِ الْبَلَاءِ، وَدَرَكِ الشَّقَاءِ، وَسُوءِ الْقَضَاءِ، وَشَمَاتَةِ الْأَعْدَاءِ

উচ্চারণ : আল্লাহুম্মা ইন্নি আউজুবিকা মিন জাহদিল বালা-ই, ওয়া দারাকিশ শাকা-ই, ওয়া সু-ইল কদা-ই, ওয়া শামাতাতিল আ‘দা-ই।

অর্থ : হে আল্লাহ, আমি আপনার কাছে আশ্রয় চাই কঠিন বিপদ, দুর্ভাগ্যে পতিত হওয়া, ভাগ্যের অশুভ পরিণতি এবং শত্রুর আনন্দিত হওয়া থেকে।

হজরত আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসুল (সা.) এ দোয়ার মাধ্যমে সমস্ত বিষয় থেকে মহান আল্লাহর কাছে আশ্রয় চাইতেন। -(বুখারি, হাদিস : ৬৩৪৭; মুসলিম, হাদিস : ২৭০৭)

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
topউপরে