‘বিএনপির আমলে আ.লীগের নিখোঁজ নেতাকর্মীদের তালিকা হচ্ছে’

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ১৯, ২০২২; সময়: ৯:৪৮ pm |
‘বিএনপির আমলে আ.লীগের নিখোঁজ নেতাকর্মীদের তালিকা হচ্ছে’

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : বিএনপির শাসনামলে (২০০১-০৬) আওয়ামী লীগের নিখোঁজ নেতাকর্মীদের তালিকা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান।

তিনি বলেছেন, বিএনপির আমলে নিখোঁজ ব্যক্তিদের তালিকা করা গণদাবিতে পরিণত হয়েছে।

সোমবার সচিবালয়ে আসন্ন বড়দিন উদ্‌যাপন এবং থার্টি ফার্স্ট নাইটে আইনশৃঙ্খলা রক্ষা ও আনুষঙ্গিক বিষয়ে সভা শেষে এক প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

গত দেড় দশকে আওয়ামী লীগের শাসনকালে নিজেদের অনেক নেতাকর্মী নিখোঁজ ও গুম হয়েছে বলে অভিযোগ করে আসছে বিএনপি। সোমবার রাজধানীর একটি হোটেলে ‘রাষ্ট্রকাঠামো মেরামতের রূপরেখা’ ঘোষণার সময় বিএনপি আবারও বলেছে, এসব গুম, হত্যা ও নির্যাতনের প্রতিটি ঘটনার বিচার করবে তারা।

বিএনপির এমন হুঁশিয়ারি বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে তিনি বলেন, ‘গুম ও নিখোঁজের বিষয়ে আমরাও পদক্ষেপ নিচ্ছি।’

বিএনপির আমলে হাজার হাজার মানুষ নিখোঁজ হয়েছে দাবি করে তিনি বলেন, বিচারহীনভাবে যাঁদের হত্যা করা হয়েছে, তাঁদের তালিকা করা হচ্ছে। ২০০১ থেকে ২০০৬ সালে আওয়ামী লীগের অনেক নেতাকর্মী হত্যা করা হয়েছিল। মুক্তিযোদ্ধাদের হত্যা করা হয়েছিল। গুম করা হয়েছিল।

আসাদুজ্জামান খান বলেন, ‘সবকিছুর তদন্ত হোক। সবকিছুর একটা ব্যবস্থা হোক। এটা আমরাও চাই।’

খ্রিষ্টীয় নববর্ষ উদ্‌যাপন উপলক্ষে থার্টি ফার্স্ট নাইটের নিরাপত্তা বিষয়ে আসাদুজ্জামান খান বলেন, আতশবাজি কিংবা পটকা ফোটানো যাবে না। রাস্তায় বা প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে কোনো অনুষ্ঠান করা যাবে না। অবশ্য পুলিশের অনুমতি নিয়ে অনুষ্ঠান করা যাবে; তবে কোনো প্রতিবন্ধকতা তৈরি করে নয়। বারগুলো (পানশালা) ৩১ ডিসেম্বর সন্ধ্যা ছয়টা থেকে পরদিন সন্ধ্যা ছয়টা পর্যন্ত বন্ধ থাকবে।

থার্টি ফার্স্টের আগে ২৫ ডিসেম্বর খ্রিষ্টধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসব বড়দিন উপলক্ষে ব্যাপক নিরাপত্তাব্যবস্থা হাতে নেওয়া হয়েছে বলেও জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। বলেন, সারা দেশে ৫ হাজার ৬৪২টি গির্জায় বড়দিন উপলক্ষে নিরাপত্তাব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। বড়দিনে আতশবাজি ও পটকা ফোটানো যাবে না বলে জানান তিনি।

আসাদুজ্জামান খান আরও বলেন, বড়দিন উপলক্ষে গির্জাগুলোর প্রবেশপথে আর্চওয়ে, সিসি ক্যামেরা থাকবে। কূটনীতিকপাড়ায় বিশেষ নিরাপত্তাব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
topউপরে