পরমাণু যুদ্ধের হুমকি দিয়েছে পাকিস্তান, দাবি ভারতীয় গণমাধ্যমে

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ১৮, ২০২২; সময়: ১০:২৯ am |
পরমাণু যুদ্ধের হুমকি দিয়েছে পাকিস্তান, দাবি ভারতীয় গণমাধ্যমে

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : পাকিস্তান ভারতকে পরমাণু যুদ্ধের হুমকি দিয়েছে বলে ভারতীয় গণমাধ্যমে দাবি করা হয়েছে। ভারতীয় গণমাধ্যমের দাবি, পাকিস্তানের ক্ষমতাসীন পাকিস্তান পিপলস পার্টির নেত্রী ও মন্ত্রী শাজিয়া মারি ভারতকে পারমাণবিক যুদ্ধের হুমকি দিয়েছেন।

পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম বোল নিউজের উদ্ধৃতি দিয়ে ভারতীয় বার্তাসংস্থা এএনআই এই তথ্য জানিয়েছে।

রোববার (১৮ ডিসেম্বর) সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে ‘আক্রোশের’ জন্য প্রতিবেশী দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিলাওয়াল ভুট্টোর কঠোর নিন্দা করার একদিন পরে ভারতকে পরমাণু যুদ্ধের হুমকি দিয়েছেন পাকিস্তানের ওই মন্ত্রী।

এএনআই জানিয়েছে, পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিলাওয়াল ভুট্টোর সমর্থনে একটি সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন ক্ষমতাসীন পাকিস্তান পিপলস পার্টির নেত্রী ও মন্ত্রী শাজিয়া মারি।

সেখানে তিনি বলেন, ‘ভারতের ভুলে যাওয়া উচিত নয় যে, পাকিস্তানের কাছে পরমাণু বোমা রয়েছে। আমাদের পারমাণবিক ক্ষমতার অর্থ কেবলই নীরব থাকার জন্য নয়। প্রয়োজন দেখা দিলে আমরা পিছপা হবো না।’

এএনআইয়ের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শাজিয়া ভারতকে হুমকি দিয়ে বলেন, মোদি সরকার (পাকিস্তানের সঙ্গে) যুদ্ধ করলে জবাব পাবে। পাকিস্তানকে যে পারমাণবিক রাষ্ট্রের মর্যাদা দেওয়া হয়েছে তা চুপ থাকার জন্য দেওয়া হয়নি। জবাব দিতে জানে পাকিস্তানও।

তিনি আরও বলেন, ‘পাকিস্তানের বিরুদ্ধে বারবার অভিযোগ করতে থাকলে, পাকিস্তান চুপচাপ শুনবে না, এমনটা হবে না।’

মূলত শাজিয়ার এই বক্তব্য এমন এক সামনে এলো যখন পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিলাওয়াল ভুট্টো ভারতের প্রধানমন্ত্রী মোদি এবং রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘকে (আরএসএস) সমালোচনার জন্য ভারত নিন্দা করেছে।

মূলত সন্ত্রাসবাদে পৃষ্ঠপোষকতা নিয়ে সম্প্রতি বাক-বিতণ্ডায় জড়িয়েছে পাকিস্তান ও ভারত। এরই ধারাবাহিকতায় পাকিস্তানে সকল সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে ভারত জড়িত বলে মন্তব্য করেন দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রানা সানাউল্লাহ। গত সপ্তাহে তিনি বলেন, পাকিস্তানের সকল সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে ভারতের পদচিহ্ন দেখা গেছে।

পাকিস্তানের কাছে এ বিষয়ে সুস্পষ্ট প্রমাণ রয়েছে এবং এসব প্রমাণ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে তুলে ধরা হবে বলেও ঘোষণা দেয় দেশটি। জবাবে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবাদকে সমর্থনের পাল্টা অভিযোগ তুলে ওসামা বিন লাদেনকে আশ্রয় দেওয়ার বিষয়টি সামনে আনে ভারত।

এরপর গত বৃহস্পতিবার পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিলাওয়াল ভুট্টো বলেন: ‘ওসামা বিন লাদেন মারা গেছেন, কিন্তু গুজরাটের কসাই বেঁচে আছেন এবং তিনি ভারতের প্রধানমন্ত্রী।’

এর আগে ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর পাকিস্তানকে ‘সন্ত্রাসবাদের কেন্দ্রস্থল’ বলে অভিহিত করেন এবং এরই প্রতিক্রিয়ায় বিলাওয়াল ওই মন্তব্য করেন।

এএনআই বলছে, যুক্তরাষ্ট্রে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের অধিবেশনের ফাঁকে এক সংবাদ সম্মেলনে বিলাওয়াল ভুট্টো অভিযোগ করেন, ভারত সরকার মহাত্মা গান্ধীর পরিবর্তে হিটলার দ্বারা প্রভাবিত।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
topউপরে