বেগম রোকেয়া দিবসে সুজানগরের ৫ জয়িতাকে সম্মাননা

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৯, ২০২২; সময়: ৬:৩৫ pm |
বেগম রোকেয়া দিবসে সুজানগরের ৫ জয়িতাকে সম্মাননা

নিজস্ব প্রতিবেদক, সুজানগর : “সবার মাঝে ঐক্য গড়ি, নারী ও শিশু নির্যাতন বন্ধ করি” এই প্রতিপাদ্য বিষয়কে সামনে রেখে নারী জাগরণের পথিকৃৎ বেগম রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেনের স্মরণে শুক্রবার(৯ ডিসেম্বর) পালিত হয়েছে আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ও বেগম রোকেয়া দিবস-২০২২।

এ উপলক্ষ্যে জয়িতা অন্বেষনে বাংলাদেশ কার্যক্রমের আওতায় বিভিন্ন ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জন করা সুজানগরের নারীদের পাঁচটি ক্যাটাগরিতে জয়িতা হিসেবে সংবর্ধনা দেওয়া হয়। উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের উদ্যোগে এ সম্মাননা প্রদান করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার তরিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান জিয়াউর রহমান কল্লোল, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মর্জিনা খাতুন ও সুজানগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল হাননান। স্বাগত বক্তব্য রাখেন, উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা আফজাল হোসেন।

অনুষ্ঠানে সুজানগর প্রেসক্লাবের সভাপতি ও মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ শাহজাহান আলী, সুজানগর শহীদ দুলাল পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মনসুর আলী, সুজানগর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক আব্দুল জব্বার, যায়যায়দিন পত্রিকার প্রতিনিধি মনিরুজ্জামান, উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সাধারণ সম্পাদক এম এ আলিম রিপন সহ স্থানীয় বিভিন্ন পর্যায়ের ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে উপজেলা নির্বাহী অফিসার তরিকুল ইসলাম বলেন, তৃণমূল থেকে সমাজের নারীদের তুলে আনছে সরকার। কারণ,তাঁরা সমাজের নারীদের অনুপ্রেরণা ও আদর্শ। তাদের পথ ধরে অন্যরা এগিয়ে যাবেন। নারীরা আজ কোথায় নেই? সব ক্ষেত্রেই তাঁরা সাফল্য দেখাচ্ছেন।

নারীর উন্নয়ন ছাড়া দেশের সামগ্রিক উন্নয়ন সম্ভব নয় উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন, নারীর বর্তমান যে অগ্রযাত্রা, কোন অপশক্তিই সেটি রুখতে পারবেনা। সমাজের যারা স্বীকৃতি পাননি,তাঁরাও জয়িতা।

সমাজের সব নারীই যে যার অবস্থান থেকে অবদান রেখে যাচ্ছেন। নারীদের এগিয়ে নেওয়ার ক্ষেত্রে পুরুষদেরও সমান ভূমিকা রাখতে হবে। নারী-পুরুষের মধ্যে বিভেদ নয়, সমতার ভিত্তিতে এগিয়ে যেতে হবে বলেও জানান তিনি।

শেষে এ বছর সুজানগর উপজেলায় অর্থনৈতিকভাবে সাফল্য অর্জনকারী হিসেবে তাঁতিবন্দ গ্রামের আসমা খাতুন, শিক্ষা ও চাকুরীর ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জনকারী হিসেবে পৌরসভার চরসুজানগর গ্রামের ফেরদৌসী সুলতানা লিজা, সফল জননী নারী হিসেবে পৌরসভার ভবানীপুর এলাকার কনকলতা কুন্ডু, নির্যাতনের বিভীষিকা মুছে ফেলে নতুন উদ্যমে শুরু করা নারী হিসেবে কাদোয়া গ্রামের রোজিনা খাতুন ও সমাজ উন্নয়নে অসামান্য অবদান রাখায় ফকিৎপুর গ্রামের শাপলা খাতুন সহ ৫ জয়িতার হাতে সম্মাননা ক্রেস্ট তুলে দেন অতিথিবৃন্দ।

এর আগে অনুষ্ঠানে জয়িতারা তাদের সংগ্রাম ও সাফল্যের গল্প শোনান।

 

 

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
topউপরে