দুর্গাপুরে স্বামীর নির্যাতন সইতে না পেরে ৯৯৯ স্ত্রীর ফোন

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৮, ২০২২; সময়: ৮:৪৯ pm |
দুর্গাপুরে স্বামীর নির্যাতন সইতে না পেরে ৯৯৯ স্ত্রীর ফোন

নিজস্ব প্রতিবেদক, দুর্গাপুর : স্বামীর নির্যাতন সইতে না পেরে হটলাইন ৯৯৯ ফোন দিয়ে পুলিশের কাছে সহযোগিতা চাওয়ার পর নির্যাতিতা গৃহবধূকে স্বামীর বাড়ি থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার নওপাড়া ইউনিয়নের নওপাড়া গ্রামের স্কুল পাড়ায়।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার (৮ডিসেম্বর) সকালে প্রতিদিনের মতো বাড়ির গৃহস্থালির কাজ করছিলেন গৃহবধূ জান্নাতুল মাওয়া। এ সময় তাঁর মোবাইলে ফোন দিয়ে স্বামী আশরাফুল ইসলাম (টিপু)। ফোন রিসিভ করতেই অক্থ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে এবং তাঁকে ও তাদের ৩ বছরের প্রতিবন্ধি শিশুকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। পরে বাড়িতে কোনো লোকজন না থাকায় ওই গৃহবধূ দ্রুত সরকারি জরুরী সেবা ৯৯৯ ফোন করে তাঁর স্বামীর বিরুদ্ধে অভিযোগ করে ওই গৃহবধু। খবর পেয়েই দুর্গাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নাজমুল হকের নেতৃত্বে দুর্গাপুর থানার উপ পরিদর্শক এস আই দাউদ উজ্জামান ও সঙ্গীও ফোর্স নিয়ে ওই গৃহবধূকে উদ্ধার করে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করে। তবে অভিযুক্ত স্বামী আশরাফুল ইসলাম (টিপু) পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায়।

সূত্র জানায়, প্রেম করে বিয়ে করেছিলেন জান্নাতুল ও টিপু। জান্নাতুল উপজেলার ডাংগা পাড়া গ্রামের আয়নাল প্রামাণিকে মেয়ে। অন্যদিকে টিপু নওপাড়া গ্রামের সাকের উদ্দিনের ছেলে। তাঁদের দু’জনেরই আগে বিয়ে হয়েছিলো। একজন স্বামী অন্যজন স্ত্রী ছেড়ে একে অপরকে বিয়ে করেন। তাঁদের বিয়ের বয়স পাঁচ বছর। এই সময়ে তাঁদের কোলজুড়ে এক ছেলে সন্তানের জন্ম হলেও ছেলেটি ছিলেন জন্মগত ভাবের শারীরিক প্রতিবন্ধী।

গৃহবধূ জান্নাতুল মাওয়া বলেন, আমার স্বামী আমাকে প্রায় দিনই কারনে অকারণে মারধর করে। কিন্তু আজকে হঠাৎ করে আমাকে আমার স্বামী মোবাইল ফোনে কল করে আমাকে ও আমার ছেলেকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। পরে আমি নিরুপায় হয়ে ৯৯৯ ফোন দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে আমাকে ও আমার ছেলেকে উদ্ধার করে আমার বাবা-মায়ের কাছে পৌছে দেন।

দুর্গাপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এস আই) দাউদ উজ্জামান বলেন, সরকারি জরুরী সেবা ৯৯৯ ফোন দিয়ে গৃহবধূ তার স্বামীর বিরুদ্ধে অভিযোগ করলে ওসি স্যারের নির্দেশে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে সন্তান সহ ওই গৃহবধুকে উদ্ধার করে বাবা-মায়ের কাছে পৌছে দেয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে পরবর্তিতে লিখিত অভিযোগ করলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
topউপরে