গরুর পেটে পাওয়া গেল ৬৫ কেজি প্লাস্টিক

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৫, ২০২২; সময়: ১০:২৪ am |
গরুর পেটে পাওয়া গেল ৬৫ কেজি প্লাস্টিক

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : বিশ্বে প্লাস্টিক বর্জ্য বেড়েই চলেছে। মানুষ যত্রতত্র ফেলছে প্লাস্টিক। ফলে এর প্রভাব পড়ছে বিভিন্ন প্রাণির ওপর। অনেক প্রাণি এটি খাদ্য হিসেবে গ্রহণ করায় মারা যাচ্ছে অকালেই।

এবার ভারতের একটি গরু প্লাস্টিক খেয়ে মৃত্যুর হাত থেকে বেঁচে ফিরেছে। অস্ত্রোপচার করে গরুটির পেট থেকে ৬৫ কেজি প্লাস্টিক এবং ধাতব বর্জ্য বের করা হয়েছে। সম্প্রতি ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের তামিলনাড়ুর মাদুরাইতে।

কয়েকদিন ধরে খাওয়া দাওয়া করছিল না গরুটি। এমনকি পানিও পান করতে পারছিল না। ফলে মালিক গুরুটি নিয়ে পশু হাসপাতালে যান। চিকিৎসকরা পরীক্ষা করে পেটের ভেতর বিপুল পরিমাণ প্লাস্টিক দেখে অবাক হন। পরে অস্ত্রোপচার করে তা বের করা হয়। যার ফলে প্রাণে বেঁচে যায় গরুটি।

এবিষয়ে গরুর মালিক পরমেশ্বরন জানান, সদ্যই মা হয়েছে গরুটি। গত কয়েকদিন ধরেই পশুটি কোনো রকম খাবার বা পানি খাচ্ছে না। পরে গরুটির স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে দেখা যায়, তার পাকস্থলীতে জমে রয়েছে বিপুল পরিমাণ প্লাস্টিক এবং ধাতব বর্জ্য পদার্থ, যার কারণে কোনো খাদ্য পানীয় গ্রহণ করতে পারতো না প্রাণিটি। প্রাণ যেতে বসেছিল তার। এরপরেই অস্ত্রোপচার করে সেগুলো বের করার সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকরা। পরে অস্ত্রোপচার করে পেট থেকে বের করা হয় মোট ৬৫ কেজি প্লাস্টিক এবং বিভিন্ন ধাতব বর্জ্য।

এদিকে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, পুরো অস্ত্রোপচারটি করতে তিন ঘণ্টা সময় লেগেছে। এরপর আরও ৭২ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণে রাখা হয় গরুটিকে। তারপর থেকে প্রাণিটি আবার ঠিকমতো খাওয়া-দাওয়া করছে বলে জানিয়েছেন তারা।

এ ঘটনায় পশুর মালিকদের অনুরোধ করেছেন পশুগুলোকে নিশ্চিন্তে রাস্তায় ছেড়ে না দিয়ে তাদের ওপর নজর রাখতে। নয়ত, এই ধরনের ঘটনা আরও ঘটতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন চিকিৎসকরা।

এর আগে স্কটল্যান্ডের সমুদ্র সৈকতে একটি মরা তিমি মাছের পেটে বিপুল পরিমাণ প্লাস্টিক পাওয়া গেছে। প্লাস্টিকের দড়ি, কাপ, গ্লাভস, ও জালসহ সবমিলিয়ে পেট থেকে ১০০ কেজি প্লাস্টিক বের করা হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
topউপরে