তাড়াশে মাদকাসক্ত জামাইয়ের বিরুদ্ধে থানায় এজাহার দায়ের

প্রকাশিত: নভেম্বর ৩০, ২০২২; সময়: ৪:৫১ pm |
তাড়াশে মাদকাসক্ত জামাইয়ের বিরুদ্ধে থানায় এজাহার দায়ের

নিজস্ব প্রতিবেদক, তাড়াশ : সিরাজগঞ্জের তাড়াশে মাদকাসক্ত জামাই সিপন সরদার (৩৫) এর বিরুদ্ধে মেয়েকে মারপিট ও টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনায় থানায় এজাহার দিয়েছেন শ্বশুর মঞ্জিল খান।

সিপন সরদার উপজেলার সগুনা ইউনিয়নের কুন্দইল গ্রামের আইয়ুব সরদারের ছেলে। এ অভিযোগে আইয়ুব সরদারকে ২য় আসামী করা হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

এজাহার ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, ৮ বছর পূর্বে মঞ্জিল খানের মেয়ে মুন্নি খাতুনের একই গ্রামের আইয়ুব সরদারের ছেলে সিপন সরদারের সাথে সামাজিকভাবে বিবাহ হয়।

বিয়ে পর থেকেই সিপন নেশা করে এসে মুন্নিকে বিভিন্নভাবে নির্যাতন করে আসছেন। এমতাবস্থায়  ১৮ নভেম্বর রাত ১০ টার দিকে সিপন নেশা করে এসে মুন্নিকে মারপিট করে বাবার বাড়িতে তাড়িয়ে দেন ।

আইয়ুব সরদারের হুকুমে সিপন গত ২৩ নভেম্বর সকাল ৯ টার দিকে কুন্দইল ইউনিয়ন পরিষদের সামনে মঞ্জিল খানের  ছেলে আঙ্গুর খানকে অতর্কিতভাবে হামলা করে এলোপাতারী মারপিট করেন। পরে এলাকার লোকজন সিপনের হাত থেকে আঙ্গুরকে রক্ষা করে সিরাজগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

ওই দিন সন্ধ্যা ৭ টার দিকে সিপন মুন্নিদের বাড়িতে গিয়ে শ্বশুর মঞ্জিলের কাছ থেকে নেশা করার জন্য টাকা চান। টাকা দিতে অস্বীকার করলে সিপন বাক্সের তালা ভেঙ্গে নগদ দুই লক্ষ টাকা নিয়ে যান এবং মঞ্জিলকে বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতি ও প্রাণনাশের হুমকি দেন।

এরপরে  ২৭ নভেম্বর সন্ধ্যা ৬ টার দিকে ফোন দিয়ে শ্বশুর মঞ্জিলকে বলেন তার ছেলেকে তার বাড়িতে দিয়ে যেতে। আর ছেলেকে না দিলে তোদের পরিবারের সকলকে যেখানেই পাবো মেরে ফেলবো।

এ বিষয়ে মঞ্জিল খান বলেন, সোমবার দুপুরে থানায় এজাহার দিয়েছি। তিনি আরও বলেন, মাদকাসক্ত জামাইয়ের ভয়ে আমরা পরিবারের সবাই বাড়িতে যেতে পারছি না বর্তমানে পালিয়ে বেড়াচ্ছি। সেই সাথে জানমাল নিয়ে অনিরাপদে আছি।

তাড়াশ থানার এসআই রনজু মিয়া মঙ্গলবার বিকেলে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ ব্যাপারে এসআই রনজু মিয়া বলেন, সঠিকভাবেই তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
topউপরে