মানুষ মরছে, মশা মারতে পারছে না সিটি করপোরেশন: হাইকোর্ট

প্রকাশিত: নভেম্বর ২০, ২০২২; সময়: ১:২৬ pm |
মানুষ মরছে, মশা মারতে পারছে না সিটি করপোরেশন: হাইকোর্ট

পদ্মাটাইমস ডেস্ক :  রাজধানীর শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে মশা মারতে সিভিল এভিয়েশন, উত্তর সিটি করপোরেশনসহ সব পক্ষকে বসে কার্যকর ব্যবস্থা নেয়ার আবারও নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

রোববার (২০ নভেম্বর) বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের দ্বৈত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

এ সময় ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনকে উদ্দেশ্য করে হাইকোর্ট বলেন, ‘মানুষ মারা যাচ্ছে কিন্তু মশা মারতে পারছে না তারা।’

প্রসঙ্গত চলতি বছরের দ্বিতীয় মাসে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে মশার উপদ্রব নিয়ন্ত্রণে অবিলম্বে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছিলেন হাইকোর্ট। এ বিষয়ে বেসরকারি বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যানকে ১০ দিনের মধ্যে আদালতে প্রতিবেদন দিতেও বলেছিলেন।

এক আবেদনের শুনানি নিয়ে ওই সময় বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি ফাতেমা নজীবের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ একটি আদেশও দিয়েছিলেন। আবার রোববার (২০ নভেম্বর) মশা মারতে কার্যকর ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

‘শাহজালাল বিমানবন্দরে ‘যাত্রীসেবায় জ্বলছে ধূপ’ শিরোনামে গত ২২ ডিসেম্বর একটি জাতীয় পত্রিকায় প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। তিন বছর আগে করা এক রিটের ধারাবাহিকতায় প্রতিবেদনটি যুক্ত করে সম্পূরক আবেদনটি করেন আইনজীবী মো. তানভীর আহমেদ। আদালতে আবেদনের পক্ষে তিনি নিজেই শুনানি করেন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল তুষার কান্তি রায়।

ওই সময় আইনজীবী তানভীর আহমেদ বলেছিলেন, শাহজালাল বিমানবন্দরে যাত্রী, দর্শনার্থীসহ অন্যদের ওপর মশার উৎপাত নিয়ন্ত্রণে অবিলম্বে ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দিয়ে হাইকোর্ট বেসরকারি বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যানকে এ বিষয়ে ১০ দিনের মধ্যে আদালতে প্রতিবেদন দিতে বলেছেন।

এর আগে ২০১৯ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি ‘শাহজালাল বিমানবন্দর: মশার পরান বধিবে কে?’ শিরোনামে ও ‘ছেঁকে ধরে ঝাঁকে ঝাঁকে মশা’ শিরোনামে একই বছরের ২৫ ফেব্রুয়ারি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। এ নিয়ে প্রতিকার চেয়ে সংশ্লিষ্ট সচিবসহ চার ব্যক্তির বরাবর আইনি নোটিশ পাঠালেও জবাব না পেয়ে ওই বছরের ৩ মার্চ এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা চেয়ে রিট করেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মো. তানভীর আহমেদ। এর প্রাথমিক শুনানি নিয়ে ২০১৯ সালের ১২ মার্চ হাইকোর্ট রুল দেন। রুলে শাহজালাল বিমানবন্দরে যাত্রী, দর্শনার্থীসহ অন্যদের মশার উপদ্রব থেকে রক্ষায় কর্তৃপক্ষের নিষ্ক্রিয়তা ও উদাসীনতা কেন আইনগত কর্তৃত্ববহির্ভূত ঘোষণা করা হবে না, জানতে চাওয়া হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
topউপরে