বশেমুরবিপ্রবি শিক্ষার্থী মিস্টার দেব, একজন খোলা মাঠের ব্যায়াম প্রশিক্ষক

প্রকাশিত: নভেম্বর ১৭, ২০২২; সময়: ১:৪৫ pm |
বশেমুরবিপ্রবি শিক্ষার্থী মিস্টার দেব, একজন খোলা মাঠের ব্যায়াম প্রশিক্ষক

নিজস্ব প্রতিবেদক, বশেমুরবিপ্রবি : বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের নেপালি শিক্ষার্থী দেব দিলওয়ালা। ডাক নাম মিস্টার দেব। ব্যায়াম করতে ভালোবাসেন। নিজে প্রতিদিন ব্যায়াম করেন। গোপালগঞ্জ শহরের একটি জিমনেসিয়ামে ভর্তিও হয়েছিলেন। কিন্তু মন টেকেনি। বিশ্ববিদ্যালয়ে ব্যায়াম অনুশীলন করবেন, তারই বা উপায় কোথায়? ক্যাম্পাসে তো জিমনেসিয়ামই নেই!

প্রথমে ক্যাম্পাসের একটি নীরব জনশূন্য জায়গা দেখে শুরু করছিলেন একাই ব্যায়াম করা। তার দেখাদেখি কিছু বন্ধু যোগ দেন তার সাথে ব্যায়াম করতে। ধীরে ধীরে তার প্রশিক্ষণ পরিচিত হতে থাকে। এখন বিশ্ববিদ্যালয়ের লেকপাড়ের পাশে নবনির্মিত টিচার্স কোয়ার্টারের সেপটিক ট্যাংক টাকেই জিমনেসিয়াম বানিয়ে নিয়মিত চলছে বাঙালী-নেপালী শিক্ষার্থীদের মিলে মিশে ব্যায়াম অনুশীলন। বাঙালী- নেপালি সব মিলে প্রায় ২০ জন শিক্ষার্থীকে প্রশিক্ষণ দেন মিস্টার দেব।

এমন খোলা মাঠে প্রশিক্ষণ করাতে কেমন লাগে জানতে চাইলে মিস্টার দেব বলেন ” এখানে জিমনেসিয়াম নেই, অনেক কিছুরই স্বল্পতা রয়েছে। তাই বলে ব্যায়াম তো আর থেমে থাকতে পারে না। তাই বানিয়ে নিয়েছি অস্থায়ী ব্যায়ামাগার। প্রতিদিন চালিয়ে নিচ্ছি ২০ জনের ব্যায়াম অনুশীলন।”

খোলা মাঠের এই অস্থায়ী জিমনেসিয়ামে ব্যায়াম করা এক শিক্ষার্থী রাকেশ যাদবের কাছে ব্যায়ামের অভিজ্ঞতা জানতে চাইলে তিনি বলেন “আমাদের ক্লাস পরীক্ষা এখন অফ রয়েছে, বেশির ভাগ শিক্ষার্থীই ডিপ্রেশনে। ব্যায়াম ডিপ্রেশন কমানোর ভালো একটা মাধ্যম। তাই প্রতিদিন নিয়ম করে ব্যায়াম করছি৷ বন্ধু দেব অনেক ভালো ট্রেইনিং করাচ্ছে আমাদের।”

প্রসঙ্গত মিস্টার দেব প্রশিক্ষণ দিতে কোন অর্থ নেন না।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
topউপরে