গুরুদাসপুরে বিরল প্রজাতির পাখি উদ্ধার

প্রকাশিত: নভেম্বর ১০, ২০২২; সময়: ৭:২১ pm |
গুরুদাসপুরে বিরল প্রজাতির পাখি উদ্ধার

এসএম ইসাহক আলী রাজু, গুরুদাসপুর : নাটোরের গুরুদাসপুরে বিরল প্রজাতির বড় একটি পাখি ও দুইটি বালিহাস পাখিকে উদ্ধার করে মুক্ত আকাশে অবমুক্ত করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১০ই নভেম্বর) বিকালে পৌর সদরে হাজেরা ক্লিনিকের ছাদে ওই পাখি গুলোকে মুক্ত আকাশে অবমুক্ত করেন ডা. মোঃ আমিরুল ইসলাম সাগর। এছাড়াও পাখি উদ্ধারে সহযোগিতা করায় এক ভ্যানচালককে দুই হাজার টাকা পুরুষ্কৃত করেছেন তিনি।

জানা যায়, গুরুদাসপুর পৌর সদরে চাঁচকৈড় হাজেরা ক্লিনিকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা.মোঃ আমিরুল ইসলাম সাগর ডাক্তারি পেশার সুবাদে বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের সাথে সম্পর্ক তার। বৃহস্পতিবার বিকালে গুরুদাসপুর উপজেলার খুবজীপুর ইউনিয়নের এক ভ্যান চালক শামীম আহমেদ ডাক্তার সাগরকে ফোন করে বলে তার বাড়ির সামনের রাস্তা দিয়ে এক ব্যক্তি বিরল প্রজাতির একটি বড় পাখি ও দুইটি বালিহাঁস পাখি বিক্রি করার জন্য নিয়ে যাচ্ছে। পরে ডাক্তার সাগর তাকে শিকারীর কাছ থেকে পাখি গুলো উদ্ধার করতে বলে এবং শিকারীকে আটক করতে বলে এছাড়াও পাখিগুলোকে উদ্ধার করে তার কাছে নিয়ে আসতে পারলে তাকে দুই হাজার টাকা পুরুষ্কার দেওয়া হবে বলে ভ্যান চালককে জানান।

পরে ভ্যান চালক পাখি শিকারীকে ধরার পর গতিবিধি লক্ষ্য করে ঘটনাস্থল থেকে পাখি গুলো রেখে দৌড়ে পালিয়ে যায় শিকারী। পাখিগুলোকে উদ্ধার করে ডাক্তার সাগরের কাছে নিয়ে আসে ভ্যান চালক শামীম। ভ্যান চালক শামীমকে দুই হাজার টাকা পুরুষ্কার দিয়ে পাখি গুলো বিল্ডিংএর ছাদে নিয়ে গিয়ে মুক্ত আকাশে অবমুক্ত করেন ডাক্তার আমিরুল ইসলাম সাগর।

ডা.মোঃ আমিরুল ইসলাম সাগর জানান, ছোট বেলা থেকেই আমি পাখি প্রেমি। আর বিশেষ করে এই সময়ে আমাদের গ্রাম গুলোতে অতিথি পাখির আগমণ ঘটে। এই পাখিগুলোকে রক্ষা করা দায়িত্ব আমাদের সকলের। তাছাড়াও পাখি শিকার দন্ডনীয় অপরাধ। নিজের দায়িত্ব বোধ ও পাখির প্রতি ভালবাসা থেকেই মাঝে মাঝে এমন কাজ করে থাকি আমি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে