রাজশাহীর শিক্ষা বোর্ডের দুই কর্মকর্তার অপসারণের দাবিতে মানববন্ধন

প্রকাশিত: নভেম্বর ৯, ২০২২; সময়: ১:৩৩ pm |
রাজশাহীর  শিক্ষা বোর্ডের  দুই কর্মকর্তার অপসারণের দাবিতে মানববন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহী মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিপ্তরের পরিচালক ড. কামাল হোসেন ও সহকারী পরিচালক আবু রেজার অপসারণ দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার(৯নভেম্বর) বেলা ১১ টার দিকে রাজশাহী আঞ্চলিক শিক্ষা অধিপ্তরের কার্যালয়ের সামনে দুই কর্মকর্তার দুর্ব্যবহার, ক্ষমতার অপব্যবহারসহ নানা অভিযোগ তুলে বাংলাদেশ কলেজ শিক্ষক সমিতি (বাকশিস) রাজশাহী জেলা ও মহানগর শাখা এ মানববন্ধন করেন।

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা (মাউশি) রাজশাহী অঞ্চলের পরিচালক অধ্যাপক ড. কামাল হোসেন ও সহকারী পরিচালক ড. আবু রেজা আজাদের অপসারণের দাবির এই কর্মসূচিতে  বক্তারা রাজশাহী অঞ্চলের কলেজ শিক্ষক ও কর্মচারীদের এমপিও, পদোন্নতি এবং উচ্চতর স্কেল পেতে ব্যাপক অনিয়ম এবং হয়রানির অভিযোগ আনেন ড. কামাল হোসেন ও ড. আবু রেজা আজাদের বিরুদ্ধে। শিক্ষকরা অবিলম্বে এই দুই কর্মকর্তার অপসারণ দাবি ও বিভাগীয় শাস্তির দাবি করেছেন।

বাংলাদেশ শিক্ষক কর্মচারী সমিতি ফেডারেশনের আয়োজনে এই কর্মসূচিতে রাজশাহী অঞ্চলের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীরা অংশ নেন। মানববন্ধন চলাকালীন সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ কলেজ শিক্ষক সমিতির রাজশাহী জেলা সভাপতি অধ্যক্ষ শফিকুর রহমান বাদশা।

এসময় বক্তারা বলেন, এর আগে ওই দুই কর্মকর্তার অপসারণ দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করা হয় শিক্ষকদের পক্ষ থেকে। এবং আমরা মাননীয় শিক্ষা মন্ত্রী, উপ-মন্ত্রী, সচিব এবং ডিজি মহোদয় কে রাজশাহী জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে স্মারক লিপি প্রেরণ করি।

পরবর্তীতে আমরা ডিজি মহোদয়ের সাথে সরাসরি স্বাক্ষাৎ করে তাকে বিষয়টি অবহিত করলে তিনি তাৎক্ষণিক একটি উচ্চ পর্যায়ের তদন্ত কমিটি গঠন করেন। উক্ত তদন্ত কমিটিকে আমরা পর্যাপ্ত পরিমাণ তথ্য-উপাত্ত দিয়ে আঞ্চলিক পরিচালক ও সহকারী পরিচালকের দুর্নীতি প্রমাণ করতে সক্ষম হই। আমরা ইতি মধ্যে জানতে পেরেছি যে, উক্ত তদন্তের রিপোর্ট শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে জমা হয়েছে। কিন্তু তাদের বিরুদ্ধে এখনও কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি। বর্তমানে তাদের দুর্নীতি ও ক্ষমতার অপব্যবহার ক্রমে বেড়েই চলেছে।

এ অবস্থায় বাকশিস তাদের অপসারণ ও বিভাগীয় শাস্তির দাবিতে আজ বুধবার রাজশাহী অঞ্চলিক শিক্ষা ভবনের সামনে বিভাগীয় সমাবেশ করা হয়। এতে রাজশাহী, বগুড়া, নাটোর, পাবনা, সিরাজগঞ্জ, নওগাঁ ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ শিক্ষক সমিতির নেতাকর্মীরা অংশ নেন।

সভা পরিচালনা করেন বাকশিশের সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ রাজকুমার সরকার। সভায় ড. কামাল হোসেন ও ড. আবু রেজাকে দ্রুত অপসারণ ও বিভাগীয় শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহণ না করা হলে আরও বৃহত্তর আন্দোলনের কর্মসূচী গ্রহণের ঘোষণা দেওয়া হয় শিক্ষক সমিতির পক্ষ থেকে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে