লিঙ্গ পরিবর্তন করে শিক্ষার্থীকে বিয়ে করলেন শিক্ষিকা

প্রকাশিত: নভেম্বর ৮, ২০২২; সময়: ৩:১৩ pm |
লিঙ্গ পরিবর্তন করে শিক্ষার্থীকে বিয়ে করলেন শিক্ষিকা

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : প্রেমের টানে মানুষ কিনা করতে পারে, তার আরেকটি কীর্তি গড়লেন এক শিক্ষিকা। শিক্ষার্থীর প্রতি প্রেমের টানে লিঙ্গই পরিবর্তন করে ফেলেছেন ঐ শিক্ষিকা। এরপর শিক্ষার্থীকে নিজের জীবন সঙ্গী করেছেন তিনি।

ভারতের রাজস্থানের ভারতপুর অদ্ভুত এ ঘটনা ঘটেছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানায়, রোববার লিঙ্গ পরিবর্তনের মাধ্যমে নিজের ছাত্রীকে বিয়ে করেছেন লিঙ্গ পরিবর্তনকারী শিক্ষিকা।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, নারী থেকে পুরুষে রূপান্তরিত শিক্ষিকার নাম মিরা। তিনি ভারতপুর এলাকায় শারীরিক শিক্ষার শিক্ষিকা ছিলেন। স্কুলে প্রশিক্ষণকালীন কল্পনা ফউজদার নামের ছাত্রীর প্রেমে পড়েন মিরা।

মিরার নতুন নাম হচ্ছে আরাভ কুনটাল। তিনি বলেন, ভালোবাসায় সবকিছু বৈধ। তাই আমি আমার লিঙ্গ পরিবর্তন করেছি।

স্কুলে শারীরিক শিক্ষার পাঠদানের সময় কল্পনার সঙ্গে মিরার সাক্ষাৎ হয়। পরে কল্পনা রাজ্য পর্যায়ে কাবাডি খেলেন। সেই সুবাধে গত জানুয়ারিতে দুবাইয়ে আন্তর্জাতিক কাবাডি টুর্নামেন্ট খেলতে যান কল্পনা। ঐ সময় তার সঙ্গী ছিলেন আরাভ।

আরাভ বলেন, স্কুলের মাঠে কল্পনার সঙ্গে কথা বলার সময় আমি তার প্রেমে পড়ে যাই। তাই আমি সব সময় ছেলে হতে চাইতাম। আমি মেয়ে হিসেবে জন্ম নিলেও আমি নিজেকে ছেলে মনে করতাম।

আমি আমার লিঙ্গ পরিবর্তনের জন্য অস্ত্রোপচারের চিন্তা করতাম। আমি ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে প্রথমবার লিঙ্গ পরিবর্তনের অস্ত্রোপচার করাই।

কল্পনা বলেন, আমি দীর্ঘদিন থেকে আরাভের প্রেমে পড়ি। যদি তিনি অস্ত্রোপচার নাও করতেন তবুও তাকে আমি বিয়ে করতাম।

কল্পনা বলেন, শুরু থেকেই আমি তাকে ভালোবাসতাম। তাই আমি তার অস্ত্রোপচারে সময় গিয়েছিলাম।

এনডিটিভি জানায়, যদিও আরাভ ও কল্পনার বিয়ে অপ্রচলিত এবং বির‌ল। তবে উভয়ের পরিবার তাদের বিয়েকে সমর্থন করেছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
topউপরে