সোহেল রানাকে ভুল চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে, অভিযোগ ছেলের

প্রকাশিত: নভেম্বর ৮, ২০২২; সময়: ১:১৪ pm |
খবর > বিনোদন
সোহেল রানাকে ভুল চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে, অভিযোগ ছেলের

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : গত মাসের ৩০ তারিখ চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুর নেওয়া হয় ঢালিউডের বরেণ্য অভিনেতা মাসুদ পারভেজ সোহেল রানাকে। সেসময় তার ছেলে মাশরুর পারভেজ জানিয়েছিলেন, দেশের একটি বেসরকারি হাসপাতালে তার বাবার চোখের সার্জারি করায় সমস্যা আরও বেশি হয়েছে। এবার তিনি ওই হাসপাতলের বিরুদ্ধে সোহেল রানাকে ভুল চিকিৎসা দেওয়ার অভিযোগ আনলেন।

গতকাল সোমবার দিবাগত রাতে মাশরুর সামাজিক যোগয়াযোগমাধ্যমে এক ভিডিও বার্তায় এ অভিযোগ আনেন। তিনি বলেন, ‘আজ সোমবার দুপুরের দিকে বাবা অজ্ঞান হয়ে গিয়েছিলেন।’

এসময় তিনি হাসপাতালের নাম উল্লেখ করে অভিযোগ এনে বলেন, ‘বাবার চোখে ছানির সমস্যার চিকিৎসা করানো হয়েছিল দেশের এভারকেয়ার হাসপাতালে। চিকিৎসক ছিলেন ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অবসরপ্রাপ্ত) সায়েদুর রহমান। বিষয়টা তারা ধামাচাপা দিতে চেয়েছিল। আমার কাছে সব রিপোর্ট রয়েছে। সেটা দেখলেই বোঝা যায় যে তারা ভুল করেছে।’

একপর্যায়ে সোহেল রানার ছেলে আইনের আশ্রয় নেওয়ার কথা উল্লেখ করে বলেন, ‘আমি এভারকেয়ার গ্রুপের বিরুদ্ধে লড়ব। তাদের বিরুদ্ধে লড়া মানে দেশের অনেক পাওয়ারফুল মানুষের বিরুদ্ধে লড়া। আমি জানি না কে আমাদের অভিযোগ নিতে চাইবেন, কিন্তু আমি সেরা আইনজীবীর কাছে যাব। এটা জেতার বিষয় না, আমি চাই মানুষ বিষয়টা জানুক। আমি টাকা ফেরতও চাই না। আমি আমার সর্বোচ্চটা দিয়ে চেষ্টা করব যেন তারা শাস্তি পায়।’

সোহেল রানার চোখে যে অস্ত্রপচারটি করা হয়েছে সেটির নাম ক্যাটারাক্ট সার্জারি। এর আগেও মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে তার ডান চোখে এই সার্জারি করানো হয়েছিল। রুটিন মাফিক পরের সার্জারিটির জন্য দেশের হাসপাতাল বেছে নেওয়া হয়েছিল।

গত ২৫ অক্টোবর রাজধানীর একটি হাসপাতালে সোহেল রানার চোখে অস্ত্রপচার করানো হয়। কিন্তু এতে সমস্যার সমাধানের বদলে জটিলতা তৈরি হয়। এ অবস্থায় তাকে সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। পরে ৩০ অক্টোবর তাকে চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুর নেওয়া হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে