দা হাতে স্কুলে ঘুরে বেড়াচ্ছেন প্রধান শিক্ষক, ভিডিও ভাইরাল

প্রকাশিত: নভেম্বর ৭, ২০২২; সময়: ১০:২৮ am |
দা হাতে স্কুলে ঘুরে বেড়াচ্ছেন প্রধান শিক্ষক, ভিডিও ভাইরাল

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : স্কুলের প্রধান শিক্ষক। স্কুল ক্যাম্পাসে ঘুরে বেড়াচ্ছেন ধারালো দা হাতে নিয়ে। এমন একটি ভিডিও সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে। ভারতের আসামের কছর জেলার একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটেছে।

ভিডিওটি সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে তোলপাড় সৃষ্টি হয়। খবর হিন্দুস্থান টাইমসের।

ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা যায়, দা হাতে ওই শিক্ষক স্কুলের ক্যাম্পাসের ভেতর ঘোরাফেরা করছেন। এই ভয়ানক ছবি ঘিরে প্রতিবাদের ঝড় ওঠে নেটপাড়ায়।

স্থানীয়রা আসামের রঙ্গীরখাড়ি থানায় ফোন করে পুলিশকে অভিযোগ করেছেন। অভিযোগে বলা হয়েছে, রাধামাধব বুনিয়াদি স্কুলে প্রধান শিক্ষক ধৃতিমেধা দাস হাতে দা নিয়ে এসেছিলেন।

অভিযোগ পেয়ে সেখানে শনিবার সকালে পুলিশ তদন্ত করতে যায়। পুলিশ জানায়, প্রধান শিক্ষক অস্ত্রটি লুকিয়ে রেখেছিলেন। সব কিছুই ঠিক আছে, এমন ভান করছিলেন। তবে আমরা লক্ষ্য করি যে স্কুলে ঢোকার পরই শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের মধ্যে একটি চাপা ভয় রয়েছে। এরপরই পুলিশ তৎপর হয়।

পুলিশ জানায়, এরপর ওই শিক্ষককে স্কুলের ভিতরেই আটক করা হয়। তখনই পুলিশ ওই ধারাল অস্ত্র উদ্ধার করে। সঙ্গে সঙ্গে শিক্ষা দফতরকে খবর দেওয়া হয়।

শিক্ষা দপ্তরের পক্ষ থেকে ডেপুটি ইন্সপেক্টর পরভেজ হাজারি তদন্তের বলেন, প্রধান শিক্ষক ধৃতিমেধা দাস বাকি শিক্ষকদের নিয়মানুবর্তিতার ব্যত্যয় নিয়ে বিরক্ত ছিলেন। সে কারণেই স্কুলে দা এনে বাকি শিক্ষকদের ভয় দেখাতেন বলে জানা যায়।

জানা গেছে, স্কুলে ৭ জন শিক্ষককের প্রয়োজন। রয়েছেন ১৩ জন। আর এই শিক্ষকদের নিয়ন্ত্রণে রাখতে স্কুলের ভেতর দা নিয়ে ঘোরাফেরা করতেন প্রধান শিক্ষক ধৃতিমেধা দাস।

এদিকে স্কুলের কোনো শিক্ষকের পক্ষ থেকে অভিযোগ দায়ের করা হয়নি। এ ঘটনায় প্রধান শিক্ষকের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে ধৃতিমেধা দাসকে।

গত ১১ বছর ধরে শিক্ষকতা করছেন ধৃতিমেধা দাস। আসামের তারাপুরের বাসিন্দা তিনি। এ বিষয়ে গণমাধ্যমে কথা বলতে রাজি হননি ধৃতিমেধা দাস।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
topউপরে