নজরে মোবাইল লেনদেন আর কোচিং সেন্টার

প্রকাশিত: নভেম্বর ৫, ২০২২; সময়: ১১:৩৫ am |
নজরে মোবাইল লেনদেন আর কোচিং সেন্টার

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : আগামীকাল রোববার এইচএসসি পরীক্ষা শুরু। দু’বছর পর এবার আইসিটি বাদে সব বিষয়ে পরীক্ষা গ্রহণ করা হচ্ছে। তবে, ১০০ নম্বরের পরীক্ষায় উত্তর দিতে হবে ৫০ নম্বরের। বাকি ৫০ নম্বর ম্যাপিং পদ্ধতিতে দেয়া হবে।

এ বছর পরীক্ষার সময় মোবাইল ফোনে লেনদেন ও কোচিং সেন্টারের ওপর বিশেষ নজর দেয়া হবে। যদি কোনো মোবাইল ফোন নম্বরে একাধিকবার একই অঙ্কের টাকার সন্দেহজনক লেনদেন হয় তাহলে সংশ্লিষ্ট এজেন্টকে নিকটস্থ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে অবহিত করতে হবে।

পাশাপাশি নজরদারি থাকবে কোচিং সেন্টারের উপর। পরীক্ষা চলাকালীন সকল কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

এ বছর যশোর শিক্ষাবোর্ড থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় অংশ নিতে সর্বমোট ১ লাখ ৭০৯ জন ফরমপূরণ করেছে। এ হিসেবে গত বছরের তুলনায় কমেছে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা । বোর্ড থেকে পাওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত বছরের তুলনায় এবার ২৭ হাজার ৪৫৪ জন পরীক্ষার্থী কম। গত বছর যশোর বোর্ড থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয় ১ লাখ ২৮ হাজার ১৬৭ পরীক্ষার্থী।

বোর্ডের পরীক্ষা বিভাগ থেকে পাওয়া তথ্যানুযায়ী, এ বছর খুলনা জেলা থেকে ১৯ হাজার ৯৭৩ পরীক্ষার্থী অংশ নিচ্ছে। তাদের মধ্যে ছেলে ১০ হাজার ৫৯২ ও মেয়ে ৯ হাজার ৩৮১ জন। বাগেরহাটের ৭ হাজার ৪৮ জনের মধ্যে ছেলে ৩ হাজার ৩১৬ ও মেয়ে ৩ হাজার ৭৩২ জন। সাতক্ষীরার ১১ হাজার ৯১৫ জনের মধ্যে ছেলে ৬ হাজার ৪৮৮ ও মেয়ে ৫ হাজার ৪২৭ জন।

এছাড়া কুষ্টিয়ার ১১ হাজার ৪৬৫ জনের মধ্যে ছেলে ৫ হাজার ৩১৪ ও মেয়ে ৬ হাজার ১৫১ জন। চুয়াডাঙ্গার ৫ হাজার ৮৯৫ জনের মধ্যে ছেলে ২ হাজার ৮৯১ ও মেয়ে ৩ হাজার। মেহেরপুরের ৩ হাজার ৪৩০ জনের মধ্যে ছেলে ১ হাজার ৬৫৩ ও মেয়ে ১ হাজার ৭৭৭ জন। যশোরের ১৮ হাজার ৫৭২ জনের মধ্যে ছেলে ৯ হাজার ৭৪৮ ও মেয়ে ৮ হাজার ৮২৪ জন।

নড়াইলের ৪ হাজার ৮০৮ জনের মধ্যে ছেলে ২ হাজার ৩২৩ ও মেয়ে ২ হাজার ৪৮৫ জন। ঝিনাইদহের ১২ হাজার ৯৪ জনের মধ্যে ছেলে ৬ হাজার ৩৭৩ ও মেয়ে ৫ হাজার ৭২১ জন। মাগুরার ৫ হাজার ৫০৯ জনের মধ্যে ছেলে ২ হাজার ৭১০ ও মেয়ে ২ হাজার ২৯৯ জন।

এ বছর ২২৮টি কেন্দ্রে পরীক্ষা গ্রহণ করা হবে। পরীক্ষা হবে দু’ ঘণ্টার। আইসিটি বিষয়ের পরীক্ষা গ্রহণ করা হবে না। বাদ বাকি সব বিষয়ে পরীক্ষা গ্রহণ করবে আন্তঃবোর্ড। গত বছর মাত্র তিনটি বিষয়ে পরীক্ষা হয়। করোনা মহামারির কারণে শিক্ষামন্ত্রণালয় এই সিদ্ধান্ত নিয়েছিল।

৫০ নম্বরের পরীক্ষা গ্রহণের সিদ্ধান্ত আন্তঃবোর্ডের। বাকি ৫০ নম্বর দেয়া হবে ম্যাপিং পদ্ধতিতে।
বোর্ডের আওতাধীন সকল কলেজ তাদের পরীক্ষার্থীদের জন্য অনলাইন থেকে ইতিমধ্যে প্রবেশপত্র ও রেজিস্ট্রেশন কার্ড সংগ্রহ করেছে।

পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক প্রফেসর মাধব চন্দ্র রুদ্র জানিয়েছেন, ইতিমধ্যে সকল কার্যক্রম সম্পন্ন হয়েছে। পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁস ও নকল এড়াতে সতর্ক দৃষ্টি রাখা হবে।

পরীক্ষার্থী কমে যাওয়ার কারণ হিসেবে তিনি বলেন, গত বছর তিনটি বিষয়ে পরীক্ষা গ্রহণ করা হয়। এ কারণে অধিকাংশ পরীক্ষার্থী পাস করে। ফলে, এ বছর পরীক্ষার্থী একটু কমেছে। পাশাপাশি করোনা একটি কারণ বলে জানান পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
topউপরে