বিয়ের দাওয়াত পাননি মমতাজ, ক্ষমা চাইলেন আসিফ আকবর

প্রকাশিত: অক্টোবর ৫, ২০২২; সময়: ২:১৪ pm |
খবর > বিনোদন
বিয়ের দাওয়াত পাননি মমতাজ, ক্ষমা চাইলেন আসিফ আকবর

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : মমতাজ ও আসিফের বন্ধুত্বে কি ফাটল ধরেছে? এই প্রশ্ন এখন মিডিয়া পাড়ার অনেকেরই মনে। মঙ্গলবার রাত থেকেই প্রশ্নটা ঘুরপাক খাচ্ছে। যার শুরুটা করেছেন মমতাজ নিজেই।

গত সোমবার রাতে রাজধানীর অফিসার্স ক্লাবে মহা ধুমধামে বড় ছেলে রণ’র বিয়ে দেন আসিফ। বিয়ের অনুষ্ঠানে দুই পরিবারের সদস্য ছাড়াও শোবিজের অনেকেই হাজির ছিলেন।

সেই তালিকায় রুনা লায়লা, কনকচাঁপা, কুমার বিশ্বজিৎ, কবির বকুল, শওকত আলী ইমন, কণা, সালমাসহ অনেকেই ছিলেন। তবে এই বিয়েতে দাওয়াত পাননি পপ সম্রাজ্ঞী মমতাজ। ঘটনার শুরু এখান থেকেই।

এ নিয়ে আক্ষেপ করে ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাসও দেন মমতাজ। তিনি লিখেন, হায়রে রাজনীতি! আজকে যদি এম,পি না হইতাম, তাহলে একটা বিয়ের দাওয়াত খেতে পারতাম। যদিও তিনি সরাসরি আসিফের নাম উল্লেখ করেননি। তবে বুঝতে বাকি নেই গায়িকা কোন বিয়ের কথা বলেছেন।

মমতাজের এই খোঁচার জবাব দেন আসিফও। পাশাপাশি ছেলের বিয়েতে আমন্ত্রণ না জানাতে পেরে মমতাজের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন আসিফ আকবর।

মমতাজের পোস্টে আসিফ একটি মন্তব্যের মাধ্যমে বিষয়টি পরিষ্কার করেছেন। গায়ক লিখেছেন, ‘প্রিয় মম ( মমতাজ এমপি)। তুমি আমি সেরা পারিবারিক বন্ধু। এখানে কোনোদিনই রাজনীতি প্রবেশের সুযোগ নেই। মাত্র চার দিন সময় পেয়েছি ছেলের বিয়ের জন্য। সবকিছুই হুট করে হয়ে গেছে। তোমাকে কন্টাক্ট করার মত সরাসরি যোগাযোগের ব্যবস্থা আমার কাছে নাই।’

মমতাজকে তিনি মন থেকে ফিল করেছেন উল্লেখ করে আসিফ লিখেছেন, ‘আমি তোমার সবসময়ের বন্ধু। একদিন সময় দাও বাচ্চাদেরসহ আমরা বাসায় তোমার সারাজীবন দাওয়াত। কষ্ট নিও না বন্ধু, ভুল হলে ক্ষমা চাই। নিশ্চয়ই দ্রুত আমাদের দেখা হবে। ভালোবাসা অবিরাম বন্ধু। আমার ব্যক্তিগত সম্পর্কে রাজনীতির কোনো চান্সই নেই এবং তুমি সেটা জানো।’

উল্লেখ্য, গত ২৪ সেপ্টেম্বর কুমিল্লার ছেলে গায়ক আসিফের বড় ছেলে রণর সঙ্গে গোপালগঞ্জের মেয়ে ইসমত শেহরীন ঈশিতার বাগদান সম্পন্ন হয়। এরপর গত ২ অক্টোবর সন্ধ্যায় রাজধানীর অফিসার্স ক্লাবে তাদের গায়ে হলুদ সম্পন্ন হয়। একই জায়গায় সোমবার হয় বিয়ের অনুষ্ঠান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
topউপরে