নাটোর জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পদে সেই ইজিবাইক চালকসহ দু’জনের প্রার্থীতা বাতিল

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২২; সময়: ৭:৩৬ pm |
নাটোর জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পদে সেই ইজিবাইক চালকসহ দু’জনের প্রার্থীতা বাতিল

নিজস্ব প্রতিবেদক, নাটোর : নাটোরে জেলা পরিষদ নির্বাচনের চেয়ারম্যান পদে ৩ জন প্রার্থীর মধ্যে দুই জনের প্রার্থীতা বাছাইকালে বাতিল হয়ে গেছে। এই দুই জন হলেন জাতীয় পাটি (জিএম কাদের গ্রুপ) ড. নূরন্নবী মৃধা এবং অপরজন স্বতন্ত্র প্রার্থী ইজিবাইক চালক রায়হান শাহ। এই দুই প্রার্থীর প্রস্তাবক ও সমর্থকরা তাদের সমর্থন ও প্রস্তাব প্রত্যাহার করে নেওয়ায় ওই দুই প্রার্থীর প্রার্থীরা বাতিল হয়ে যায়।

তারা রির্টানিং অফিসারের কাছে লিখিতভাবে অভিযোগ করেছেন,তাদের ভুল বুঝিয়ে তাদের কাছে থেকে প্রস্তাবক ও সমর্থনকারী হিসেবে স্বাক্ষর করে নেয়া হয়েছে। ওই দুই প্রার্থী বলেছিলেন তারা সাধারন সদস্য পদে নির্বাচন করবেন। সেই কথায় তারা প্রার্থীদের পক্ষে স্বাক্ষর করে ছিলেন। পরে জানতে পেরে তারা লিখিতভাবে এবং বাছাইয়ে শ্বশরীরে উপস্থিত থেকে সমর্থন প্রত্যাহার করে নিয়েছেন।

এব্যাপারে মনোনয়ন পত্র বাতিল হওয়া দুই প্রার্থীর সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হয়। কিন্তু তাদের মধ্যে স্বতন্ত্র প্রার্থী ইজিবাইক চালক রায়হান শাহর মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। অপর প্রাথী জাতীয় পাটি (জিএম কাদের গ্রুপ) ড. নূরন্নবী মৃধা মোবাইল ফোন রিসিভ করলেও এবিষয়ে কিছু না বলে বলেন পরে তিনি সাংবাদিক সম্মেলন করে সবকিছু বলবেন বলেই লাইন কেটে দেন।

এদিকে এই দুইজনের প্রার্থীতা বাতিল হওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করে জেলা পরিষদ নির্বাচনের রির্টানিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ বলেন,দুই প্রার্থীর প্রস্তাবক ও সর্মকরা এফিডেবিট ও লিখিত আকারে জানানোর পর বাছাইয়ে শ্বশরীরে হাজির হন এবং তাদের ভুল বুঝিয়ে স্বাক্ষর নেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেন। ওই দুই প্রার্থী সদস্য পদে নির্বার্চন করবেন বলে তাদের কাছে প্রস্তাবক ও সমর্থক হিসেবে স্বাক্ষর নিয়েছিলেন বলে জানান। বিষয়টি জানতে পারার পর তারা লিখিত আকারে জানিয়েছেন। তবে যাদের প্রার্থীতা বাতিল হয়েছে তারা অবশ্যই আপিল করতে পারবেন।

এদিকে জাতীয় পাটি (জিএম কাদের গ্রুপ) এর ড. নূরন্নবী মৃধা এবং অপর স্বতন্ত্র প্রার্থী ইজিবাইক চালক রায়হান শাহর প্রার্থীতা বাতিল হওয়ায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিজয়ী হতে চলেছেন আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী বর্তমান প্রশাসক বর্ষিয়ান আওয়ামীলীগ নেতা সাজেদুর রহমান খান। অপরদিকে বাছাইকালে সাধারন সদস্য পদে চার প্রার্থীর প্রার্থীতা বাতিল হয়েছে।

জেলা নির্বাচন অফিসার আনোয়ারুল হক প্রার্থীতা বাতিল হওয়ায় এখন চেয়ারম্যান পদে একজন ও জন সাধারন সদস্য ৩৫ এবং ১৩ জন সংরক্ষিত মহিলা সদস্য মনোনয়ন পত্র বৈধ হয়েছে। জেলায় মোট ভোট ৮০৬ জন। ১৭ অক্টোবর ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে