পাবনায় ঘুষের টাকা দেওয়া নিয়ে তুলকালাম কাণ্ড!

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২২; সময়: ৪:৩৩ pm |
পাবনায় ঘুষের টাকা দেওয়া নিয়ে তুলকালাম কাণ্ড!

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঈশ্বরদী : পাবনা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ দাশুড়িয়া জোনাল অফিসের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (ডিজিএম) সাজ্জাদুর রহমানের ৫০ হাজার টাকা ঘুষ নেয়া সংক্রান্ত একটি গোপন ভিডিও নিয়ে তুলকালাম শুরু হয়েছে।

ঘুষ প্রদানকারী গ্রাহকের অভিযোগ, নিয়ম অনুযায়ী সব টাকা পরিশোধ করার পরও ঘুষ না দেয়ায় সংযোগ চালু করেনি পল্লী বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ। বাধ্য হয়ে টাকা দিতে গেলে সেখানে উপস্থিত এক ব্যক্তি ঘটনার ভিডিও করে ফেলেন। শনিবার তা ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে। পুরো বিষয়টি তাকে ফাঁসানোর ষড়যন্ত্র দাবি করে থানায় অভিযোগ করেছেন ডিজিএম সাজ্জাদুর রহমান।

পাবনা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর জেনারেল ম্যানেজার মো: আকমল হোসেন বলেন, ‘বিষয়টি আলোচনায় এলে দাশুড়িয়া জোনাল অফিসের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার সাজ্জাদুর রহমানকে শোকজ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে বিভাগীয় তদন্তের জন্য আমি ঢাকায় পত্র প্রেরণ করেছি। দুই একদিনের মধ্যে তদন্ত কমিটি পাঠাবে।’

ঘুষ প্রদানকারী আমিনুল ইসলাম রানা বলেন, ‘পাবনা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১-এর অন্তর্ভুক্ত দাশুড়িয়া জোনাল অফিসের আওতায় একটি বিদ্যুৎ সংযোগের জন্য আমি বেশ কিছুদিন আগে আবেদন করি। সরকার নির্ধারিত ফি জমা দিয়ে বিদ্যুৎ সরঞ্জাম সংযোজনের পরও নানা অজুহাতে সংযোগ দিচ্ছিল না কর্তৃপক্ষ। ডিজিএম সাজ্জাদুর রহমানকে “মিষ্টি খাওয়ার জন্য” ১ লাখ টাকা ঘুষ দিলে সংযোগ দেয়া হবে বলে জানায় কর্তৃপক্ষ।

‘পরে ৫০ হাজার টাকা জোগাড় করে গত ১৪ সেপ্টেম্বর বুধবার ডিজিএম সাহেবকে দিতে যাই। তিনি টাকা নিয়ে ড্রয়ারে রাখার সময় সেখানে উপস্থিত এক ব্যক্তি টাকা দেয়ার দৃশ্য ভিডিও করে ফেললে হাতে নেয়া টাকা ছুড়ে ফেলে দেন ডিজিএম সাজ্জাদুর রহমান। ভিডিও ধারণকারী ব্যক্তিকে আমি চিনি না।’

এদিকে শনিবার এ ঘটনার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ও অনলাইনে ছড়িয়ে পড়লে সমালোচনা শুরু হয়। এটিকে সংঘবদ্ধ চক্রের ব্ল্যাকমেইলের চেষ্টা বলে দাবি করেন ওই কর্মকর্তা।

ডিজিএম সাজ্জাদুর রহমান বলেন, ‘বুধবার সকাল আনুমানিক ১০টায় দাশুড়িয়া পুরাতন ট্রাফিক মোড় এলাকার মো. আনিছুর রহমান ওরফে হামেজ উদ্দিনের ছেলে মো. আমিনুল ইসলাম রানা ৩-৪ জন ব্যক্তিকে সঙ্গে নিয়ে অফিসে আসে। সেখানে হঠাৎ করেই ৫০ হাজার টাকার একটি বান্ডিল দিয়ে ছবি তোলার চেষ্টা করে। এ সময় আমি অন্য কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের ডাকলে তারা দ্রুত পালিয়ে যায়।’

সাজ্জাদুর রহমান আরও বলেন, ‘আমিনুল ইসলামের বাবা আনিছুর রহমানের নামে দাশুড়িয়া জোনাল অফিসে ৯ লাখ ৩ হাজার ৯৪৮ টাকা বকেয়া থাকায় মামলা চলমান রয়েছে। তাদের বকেয়া টাকা আট কিস্তিতে পরিশোধের জন্য চিঠি দেয়া হয়েছে। তারা পরিকল্পিতভাবে ফাঁসানোর চক্রান্ত করেছে। আমরা থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছি।’

তবে বাবার বকেয়া বিলের সঙ্গে নতুন সংযোগের কোনো সম্পর্ক নেই বলে দাবি করেন রানা। তিনি বলেন, ঘুষ নেয়ার ভিডিওর জন্য সমালোচনার মুখে পড়ে ডিজিএম ‘আবোল-তাবোল’ বকছেন।

ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা অরবিন্দ সরকার বলেন, ‘এ বিষয়ে পল্লী বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষের লিখিত অভিযোগ আমরা পেয়েছি। সেটা তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও খবর

  • গর্ভপাত করতে পারবেন অবিবাহিত নারীরাও
  • এক ঘন্টা বাড়তে পারে অফিস সময়
  • রাজশাহী কলেজসহ ছাত্রলীগের পাঁচ ইউনিটে নতুন কমিটি
  • আত্রাইয়ে বাঁশ ঝাড় থেকে নিখোঁজ বৃদ্ধার লাশ উদ্ধার
  • জয়পুরহাটে রিকশা চালক ফারুক হত্যা মামলায় ২ জনের যাবজ্জীবন
  • লাঠির সঙ্গে পতাকা নিয়ে এলে খবর আছে: বিএনপিকে কাদের
  • কোনো দলকে সমর্থন নয়, বাংলাদেশে সুষ্ঠু নির্বাচন চায় যুক্তরাষ্ট্র
  • মেক্সিকোতে বন্দুকধারীর গুলিতে ৬ পুলিশ নিহত
  • সাইবার হামলায় অস্ট্রেলিয়ার প্রায় কোটি গ্রাহকের তথ্য চুরি
  • সরকারি গোপনীয়তা লংঘনের দায়ে সু চির ৩ বছরের কারাদণ্ড
  • বাংলাদেশে যে আইন আছে তা পৃথিবীর অন্য দেশে নেই: বেনজীর
  • ফেসবুককে রোহিঙ্গাদের ক্ষতিপূরণ দিতে হবে : অ্যামনেস্টি
  • দেশের ১২ অঞ্চলের নদীবন্দরে সতর্কতা সংকেত
  • মেক্সিকোর সঙ্গে সাংস্কৃতিক বিনিময় কার্যক্রম জোরদার হবে : সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী
  • বাগাতিপাড়ায় ট্রেনে যুবকের মৃত্যু
  • উপরে