ইউক্রেনকে আরও ভারী অস্ত্র ও সরঞ্জাম দেবে জার্মানি

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২২; সময়: ১০:৪৮ am |
ইউক্রেনকে আরও ভারী অস্ত্র ও সরঞ্জাম দেবে জার্মানি

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : ইউক্রেনকে নতুন মডেলের সাঁজোয়া যান, গোলাবারুদ ও ক্ষেপণাস্ত্র বহনকারী যান সরবরাহ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জার্মানি। খারকিভের কয়েক হাজার বর্গকিলোমিটার এলাকা রুশ বাহিনীর কাছ থেকে পুনরুদ্ধারসহ অঞ্চলটিতে অভিযানরত রুশ সেনাদের কোণঠাসা করছে ইউক্রেন। এ সাফল্যের মধ্যেই এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে জার্মানি।

এদিকে ইউক্রেনকে দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র সরবরাহ করলে যুক্তরাষ্ট্রকে পরিণাম ভোগ করতে হবে বলে হুঁশিয়ার করেছে রাশিয়া। অন্যদিকে রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, পশ্চিমা বিশ্বের সরবরাহকৃত এসব ভারী অস্ত্র রাশিয়ার দাপটকে ক্ষুণ্ন করতে পারবে না।

আরও ভারী অস্ত্র ও সামরিক সরঞ্জাম দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জার্মানিসহ রাশিয়াবিরোধী একজোট পশ্চিমা বিশ্ব। জেলনস্কি সরকারের জোরালো দাবির মুখে ইউক্রেনকে নতুন করে দুটি মার্স ২ এর মতো অত্যাধুনিক ও সয়ংক্রিয় রকেট লঞ্চার কিংবা ক্ষেপণাস্ত্র যান, ৫০টির বেশি ডিঙ্গো মডেলের সাঁজোয়া যান দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয় জার্মানি।

বৃহস্পতিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) জার্মানির রাজধানী বার্লিনে দেশটির সেনাবাহিনীর একটি বৈঠকে অত্যাধুনিক এসব ভারী অস্ত্র ইউক্রেনে সরবরাহ করার বিষয়টি নিশ্চিত করেন জার্মান প্রতিরক্ষামন্ত্রী ক্রিস্টিনা লাম্বরেখশট।

যুদ্ধরত ইউক্রেনকে দেয়া প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী, যুদ্ধক্ষেত্রে সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য, শক্তিশালী ও বিধ্বংসী লেওপার্ড টু ট্যাংক ইউক্রেনকে দেয়ার দাবি ওঠে জার্মান সংসদে। এর আগে সোভিয়েত আমলের ট্যাংক ও গ্র্যানেড বোমা, বন্দুকের গুলি ও গোলাবারুদ ইউক্রেনকে সরবরাহ করেছে জার্মানি।

তবে জার্মানিসহ পশ্চিমা বিশ্বের এই সব ভারী অস্ত্র ইউক্রেনে শান্তি প্রতিষ্ঠার বদলে অশান্তি বাড়াবে বলে মত রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের। এক বিবৃতিতে মন্ত্রণালয় থেকে বলা হয়, পশ্চিমাদের এসব অস্ত্র রুশ সেনাদের দৃঢ় মনোবলকে ভাঙাতে পারবে না।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
topউপরে