নির্বাচনে রুখতে অশ্লীল ভিডিও প্রচার, ৬ বছরের সাজা

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২২; সময়: ১০:০৭ am |
নির্বাচনে রুখতে অশ্লীল ভিডিও প্রচার, ৬ বছরের সাজা

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : অশ্লীল ভিডিও প্রচারের দায়ে এক ব্যক্তিকে ছয় বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন রাজশাহীর সাইবার ট্রাইব্যুনাল আদালত। একই সঙ্গে ৩ লাখ টাকার অর্থদণ্ড অনাদায়ে আরও ৯ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড আদেশ দেওয়া হয়েছে। ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী চেয়ারম্যান প্রার্থীকে রুখতে ওই ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছিল।

বুধবার দুপুরে রাজশাহী সাইবার ট্রাইব্যুনাল আদালতের বিচারক জিয়াউর রহমান এ রায় ঘোষণা করেন। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের তিনটি পৃথক ধারায় এ রায় ঘোষণা করা হয়। সাজাপ্রাপ্ত আসামি জোবাইদূর রহমান গামা (৫২)। তিনি বগুড়ার গাবতলী উপজেলার বাগবাড়ী গ্রামের মৃত মোকলেছুর রহমান তালুকদারের ছেলে।

জানা যায়, ২০২০ সালের জানুয়ারিতে ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে জিয়াউর রহমান তালুকদার টুটুল ও আসামি জোবাইদূর রহমান গামা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। এসময় টুটুল নির্বাচনে থাকলে জয়ে ব্যাঘাত সৃষ্টি হবে এমন আশঙ্কায় নানারকম অপপ্রচার চালাতে থাকেন গামা। একপর্যায়ে ইউটিউব থেকে অশ্লীল ভিডিও ডাউনলোড করে মুখমণ্ডল ঝাপসা করে দিয়ে ভুয়া ফেসবুক আইডি থেকে প্রচার করতে থাকেন।

ভিডিওতে টুটুল তালুকদার লিখে জনসাধারণের মাঝে ব্যাপকভাবে প্রচার করতে থাকেন তিনি। নিরুপায় হয়ে ওই বছরের ১৯ জানুয়ারি প্রতারণাসহ সম্মানহানির অভিযোগ এনে থানায় লিখিত অভিযোগ দেন টুটুল। এরই প্রেক্ষিতে পরদিন ২০ জানুয়ারি আসামি গামাকে গ্রেফতার করে গাবতলী থানা পুলিশ।

গ্রেপ্তারের সময় একটি মোবাইল ফোন, দুইটি সিম কার্ড ও একটি পেনড্রাইভ জব্দ করা হয়। ওই পেনড্রাইভে এডিট করে প্রচারকৃত ভিডিওটি পাওয়া যায়।

রাজশাহী সাইবার ট্রাইব্যুনাল আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ইসমত আরা বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মামলা দায়েরের পর পুলিশ আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করে। বিচার শুরু হলে আদালত সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে এ মামলার রায় ঘোষণা করেন।

তিনি আরও বলেন, সাজা একটার পরে একটা কার্যকর হবে। রায় ঘোষণার সময় আসামি আদালতে সশরীরে উপস্থিত ছিলেন। আসামির হাজতবাস মূল সাজা থেকে বাদ যাবে বলেও রায়ে উল্লেখ করা হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
topউপরে