টানা চুতুর্থবার দেশসেরা রাজশাহী কলেজে আনন্দ মিছিল

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ৭, ২০২২; সময়: ৮:৫৮ pm |
টানা চুতুর্থবার দেশসেরা রাজশাহী কলেজে আনন্দ মিছিল

নিজস্ব প্রতিবেদক : জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের র‌্যাঙ্কিংয়ে টানা চৌতুর্থবারের মতো দেশসেরা হওয়ায় ঐতিহ্যবাহী রাজশাহী কলেজে চলছে আনন্দের বন্যা। গত মঙ্গলবার জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এ ঘোষণার পর থেকে আনন্দের কমতি নেই এই কলেজে।

এরই অংশ হিসেবে বুধবার (৭ সেপ্টেম্বর) মিছিল করে উল্লাস করেছে রাজশাহী কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। টানা চৌতুর্থবারের মতো দেশসেরা হওয়ায় বুধবার সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে রাজশাহী কলেজে আনন্দ মিছিল করা হয়। মিছিলটি রাজশাহী কলেজের রবীন্দ্র-নজরুল চত্ত্বর থেকে শুরু হয়ে নগরীর সাহেববাজার প্রদক্ষিণ করে ক্যাম্পাসের মূল ফটকে এসে শেষ হয়। পরে শিক্ষার্থীদের মাঝে মিষ্টি বিতরণ করা হয়। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কলেজ পারফর্মেন্স র‌্যাঙ্কিংয়ে জাতীয় পর্যায়ে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে সেরা ৭৬টি কলেজের মধ্যে দেশসেরা হয় রাজশাহী কলেজ।

রাজশাহী কলেজের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের ৪র্থ বর্ষের শিক্ষার্থী জাকিয়া ইয়াসমিন জুঁই বলেন, কলেজের পরিবেশ, পাঠদান পদ্ধতি, শিক্ষকদের আন্তরিকতা ও শিক্ষার্থীদের স্বপ্ন দেখানোর যে প্রেষণা সেটা হয়তো অন্য কলেজগুলোর চেয়ে ভিন্ন। এ কারণেই আমাদের কলেজ স্বাতন্ত্র একটি জায়গা পেয়েছে। টানা চৌতুর্থবার দেশসেরা হওয়ার নিজেকে গর্বিত মনে হচ্ছে।

প্রতিষ্ঠানটির বাংলা বিভাগের প্রভাষক মোস্তাফিজুর রহমান শাওন বলেন, রাজশাহী কলেজের শিক্ষকরা সবসময় চেষ্টা করেন শিক্ষার্থীদের আন্তরিকভাবে পাঠদান করতে। এতে শিক্ষার্থীরা তাদের সমস্যাগুলো সহজেই শিক্ষকদের সঙ্গে শেয়ার করতে পারে। এছাড়া কলেজ প্রশাসনও অ্যাকাডেমিক ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করে। পড়াশোনার বাইরে বুদ্ধিভিত্তিক বিভিন্ন ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের অংশ গ্রহণেও তৎপরতা প্রচুর। সর্বোপরি একজন শিক্ষার্থীকে সৎ, যোগ্য, দক্ষ ও দেশপ্রেমিক নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে সর্বোচ্চটা দিয়ে চেষ্টা করা হয়। এ কারণেই জাতীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ হওয়ার এই গৌরব।

টানা চারবার দেশসেরা হওয়ার মূল রহস্য নিয়ে কথা হয় রাজশাহী কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর মোহা: আব্দুল খালেকের সাথে। তিনি বলেন, রাজশাহী কলেজের স্বতন্ত্র পাঠদান পদ্ধতিই প্রতিযোগিতায় প্রথম হওয়ায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে। বিশেষ করে কলেজের ‘স্টুডেন্ট সেন্টার লার্নিং মেথড’ পদ্ধতি অধিকতর সমাদৃত হয়েছে। কলেজের নিজস্ব অর্থায়নে শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণমূলক পাঠদানের জন্য তৈরি করা হয়েছে বিশেষ এ ক্লাসরুম। এ পদ্ধতিতে শিক্ষার্থীরা তাদের মধ্যে আলোচনা ও জ্ঞানচর্চার সুযোগ পায় বলে জানান কলেজ অধ্যক্ষ।

প্রসঙ্গত, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত কলেজ র‌্যাংকিং-২০১৮ সালের নির্বাচিত সেরা ৭৬টি কলেজের ফল ঘোষণা করা হয়েছে। এ ফলের জাতীয় পর্যায়ে আটটি সেরা কলেজের মধ্যে রাজশাহী কলেজ (৭০.৫৪ পয়েন্ট পেয়ে) শীর্ষে অবস্থান করছে।

গত মঙ্গলবার (০৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবনের সিনেটে হলে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. মশিউর রহমান এ ফলাফল ঘোষণা করেন।

তালিকায় জাতীয় পর্যায়ে আটটি এবং ঢাকা অঞ্চলে ১০টি, চট্টগ্রাম অঞ্চলে ১০টি, রাজশাহী অঞ্চলে ১০টি, খুলনা অঞ্চলে ১০টি, বরিশাল অঞ্চলে ৪টি, সিলেট অঞ্চলে ৬টি, রংপুর অঞ্চলে ১০টি ও ময়মনসিংহ অঞ্চলের ৮টিসহ ৭৬টি কলেজকে চূড়ান্তভাবে সেরা নির্বাচিত করা হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও খবর

  • গর্ভপাত করতে পারবেন অবিবাহিত নারীরাও
  • এক ঘন্টা বাড়তে পারে অফিস সময়
  • রাজশাহী কলেজসহ ছাত্রলীগের পাঁচ ইউনিটে নতুন কমিটি
  • আত্রাইয়ে বাঁশ ঝাড় থেকে নিখোঁজ বৃদ্ধার লাশ উদ্ধার
  • জয়পুরহাটে রিকশা চালক ফারুক হত্যা মামলায় ২ জনের যাবজ্জীবন
  • লাঠির সঙ্গে পতাকা নিয়ে এলে খবর আছে: বিএনপিকে কাদের
  • কোনো দলকে সমর্থন নয়, বাংলাদেশে সুষ্ঠু নির্বাচন চায় যুক্তরাষ্ট্র
  • মেক্সিকোতে বন্দুকধারীর গুলিতে ৬ পুলিশ নিহত
  • সাইবার হামলায় অস্ট্রেলিয়ার প্রায় কোটি গ্রাহকের তথ্য চুরি
  • সরকারি গোপনীয়তা লংঘনের দায়ে সু চির ৩ বছরের কারাদণ্ড
  • বাংলাদেশে যে আইন আছে তা পৃথিবীর অন্য দেশে নেই: বেনজীর
  • ফেসবুককে রোহিঙ্গাদের ক্ষতিপূরণ দিতে হবে : অ্যামনেস্টি
  • দেশের ১২ অঞ্চলের নদীবন্দরে সতর্কতা সংকেত
  • মেক্সিকোর সঙ্গে সাংস্কৃতিক বিনিময় কার্যক্রম জোরদার হবে : সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী
  • বাগাতিপাড়ায় ট্রেনে যুবকের মৃত্যু
  • উপরে