সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের নিয়ে নবজাগরণ ফাউন্ডেশনের ‘একদিন স্বপ্নের দিন’

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ৩, ২০২২; সময়: ২:৪৬ pm |
সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের নিয়ে নবজাগরণ ফাউন্ডেশনের ‘একদিন স্বপ্নের দিন’

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাবি : ‘শিশুদের স্বপ্নই গড়ে আগামীর ভবিষ্যৎ’ এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে আয়োজিত হলো ‘একদিন স্বপ্নের দিন’ অনুষ্ঠান। শনিবার (৩রা সেপ্টেম্বর) আয়োজিত এ অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক গোলাম সাব্বির সাত্তার।

উদ্বোধনী বক্তব্যে উপাচার্য স্যার বলেন, “শিশুদের আনন্দ ও এমন আয়োজন দেখে ভালো লাগছে; নবজাগরণ ফাউন্ডেশন সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের শিক্ষা প্রদান ছাড়াও শিশুদের সুপ্ত প্রতিভা ও মানসিক বিকাশে এবং সংস্কৃতিমনা কর্মকান্ডে আগ্রহী করে তুলছে যা সত্যিই প্রশংসনীয়।”

ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক তারেক নূর স্যার বলেন, শিক্ষার পাশাপাশি মানোন্নয়ন ও জরুরি। নবজাগরণ ফাউন্ডেশন এ ধরনের আয়োজনের ধারাবাহিকতা বজায় রাখবে বলে আশা রাখি।

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. আসাবুল হক, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক মোঃ অবাইদুর রহমান প্রামাণিক, গণসংযোগ অধিদপ্তর এর প্রশাসক অধ্যাপক প্রদীপ কুমার পান্ডে এবং উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. সুলতান উল ইসলাম। নবজাগরণ ফাউন্ডেশন এর উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. মনিমুল হক, হিসাববিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. রুকসানা বেগমসহ আরো বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষকগণ।

আয়োজনের সার্বিক সহযোগিতায় ছিল রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। উদ্বোধনের পূ্র্বে সুবিধাবঞ্চিত শিশু এবং অংশগ্রহণকারীদের মাঝে টিশার্ট এবং নাস্তা বিতরণ করা হয়। এরপর শিশুদেরকে নিয়ে জিয়া পার্কের উদ্দেশ্যে রওনা দেয়া হয়। জিয়া পার্কের মনোরম পরিবেশে শিশুরা বিভিন্ন খেলাধুলায় মেতে থাকে।

নবজাগরণ ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক সামিমা আফরোজ বলেন, প্রতি বছর নবজাগরণ ফাউন্ডেশন কতৃক এই আয়োজন করা হয়। সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের পড়াশোনার পাশাপাশি তাদের বিনোদনমূলক কর্মকান্ডে অংশগ্রহণের উদ্দেশ্যে এই অনুষ্ঠান করা হয়। মূলত শিক্ষার্থীদের শুধু স্বপ্ন দেখানোই না তাদের সেই স্বপ্ন পূরণে সাহায্য করার উদ্দেশ্যে “একদিন স্বপ্নের দিন” অনুষ্ঠানটি করা হয়।

বিকাল ৩ টায় শহীদ সুখরঞ্জন সমাদ্দার শিক্ষক ছাত্র সাংস্কৃতিক কেন্দ্র আয়োজিত হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। সাংস্কৃতিক এ জমকালো আয়োজনের প্রধান আকর্ষণ ছিলো ছোট্ট শিশুদের সাংস্কৃতিক পরিবেশনা। তাদের স্বতস্ফূর্ত অংশগ্রহণ ছিলো চমৎকার উপভোগ্য। এছাড়াও নবজাগরণ ফাউন্ডেশনের সদস্যদের ও উক্ত আয়োজনে অংশ নিতে দেখা যায়।

উক্ত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়কে ফিচার করে নবজাগরণ ফাউন্ডেশন কর্তৃক প্রকাশিত বিশেষ সাময়িকী “বাঙালি” এর মোড়ক উন্মোচন করা হয়। পরবর্তীতে ৫৫ সদস্য বিশিষ্ট নবজাগরণ ফাউন্ডেশনের নতুন কার্যকরী কমিটি ঘোষণা এবং পুরনো কমিটির বিদায়ী সংবর্ধনা দেওয়ার মাধ্যমে অনুষ্ঠানটির সমাপ্তি ঘটে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে