মহাদেবপুরে সবকিছুর দাম বাড়লেও নারী কৃষি শ্রমিকদের মজুরী বাড়েনি

প্রকাশিত: আগস্ট ২৮, ২০২২; সময়: ২:৩০ pm |
মহাদেবপুরে সবকিছুর দাম বাড়লেও নারী কৃষি শ্রমিকদের মজুরী বাড়েনি

নিজস্ব প্রতিবেদক, মহাদেবপুর : নওগাঁর মহাদেবপুরে দ্রব্যমুল্যের উর্দ্ধগতিতে জীবনযাত্রার ব্যয় মেটাতে হিমশিম খাচ্ছে ক্ষুদ্র নৃ গোষ্ঠী সম্প্রদায়। দেশের বাজারে সব কিছুর দাম বাড়লেও বাড়েনি ক্ষুদ্র নৃ গোষ্ঠীর নারী কৃষি শ্রমিকদের মজুরী।

ক্ষুদ্র নৃ গোষ্ঠীর অধিকাংশ পরিবারের নারীরা মাঠে কৃষি শ্রমিক হিসেবে কাজ করে সংসার চালান। মজুরী না বাড়ায় সংসার চালাতে হিমশিম খাচ্ছেন স্বল্প আয়ের এসব নারী শ্রমিকরা।

একটি সূত্র জানায়, এ উপজেলায় প্রায় ৫ হাজার ক্ষুদ্র নৃ গোষ্ঠীর নারী কৃষি শ্রমিক রয়েছেন। এদের অনেকেরই সংসার চলে ক্ষেত খামারে কৃষি কাজ করে। চাল, ডাল, তেলসহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য মুল্যের দামসহ শিক্ষাখাতে ব্যয় অস্বাভাবিক ভাবে বৃদ্ধি পাওয়ায় এসব নারী শ্রমিকরা দিশেহারা হয়ে পরেছেন। দ্রব্যমুল্যের সাথে সংগতি রেখে মজুরী বৃদ্ধির দাবী জানিয়েছেন তারা।

খোঁজ নিয়ে জানাগেছে, একজন পুরুষ শ্রমিকের একদিনের মজুরী যেখানে ৪শ থেকে ৫শ টাকা সেখানে একজন নারী শ্রমিককে দেয়া হয় মাত্র ২শ টাকা।

রোববার (২৮ আগষ্ট) দুপুরে সাড়াশন মাঠে ধানের চারা রোপণ তারী ক্ষুদ্র নৃ গোষ্ঠীর নারী শ্রমিক রঞ্জনা পাহান জানান, রোপা আমন ধান লাগানো, নিড়ানো ও কাটার সময় নারী শ্রমিকের চাহিদা বাড়ে। কিন্তু মজুরী বাড়েনা। ৫ বছর আগেও ২শ টাকা দিন মজুরী ছিল এখনও তাই রয়েছে।

কিন্তু এখন ১ কেজি চালের দাম ৬০ টাকা, এই বাজারে ২শ টাকা দিন মজুরী দিয়ে কিভাবে একটি সংসার চলে? একই সময়ে নাটশাল মাঠে পুরুষ শ্রমিকদের পাশাপাশি আউশ ধান কেটে মাথায় করে নিয়ে আসতে দেখা যায় কয়েকজন ক্ষুদ্র-নৃগোষ্ঠীর নারী শ্রমিককে।

তারা জানান, ধান কাটা, মাথায় করে বহন করাসহ সব কাজ সমানভাবে করলেও মজুরির বেলায় তারা পান অর্ধেক মজুরি। ক্ষুদ্র নৃ গোষ্ঠীর নেতা ও আদিবাসী উন্নয়ন কেন্দ্রের নির্বাহী পরিচালক দিপঙ্কর লাকড়া বলেন, পুরুষের সমান কাজ করেও নারী কৃষি শ্রমিকের মজুরি বৈষম্য ঠিক নয়। তিনি একজন নারী কৃষি শ্রমিকের মজুরী নুন্যতম ৪শ টাকা নির্ধারণের দাবী জানান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও খবর

  • রাজনীতিকে বিদায় বলছেন ড. কামাল!
  • রাজশাহী জেলা পরিষদে কে কোন প্রতীক পেলেন
  • ইলেকট্রনিক ইমুনাইজেশন কার্যক্রমে শতভাগ সফলতা রাসিকের
  • জেলা পরিষদের বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান ২৭ প্রার্থী
  • টেকনাফ সীমান্তেও মিয়ানমারের উত্তেজনা, কৌশলী অবস্থানে বিজিবি
  • রাবি ক্যাম্পাসে সংসার পেতেছে দুর্লভ বামুন শালিক
  • জেলা পরিষদে বিদ্রোহীদের নিয়ে নমনীয় আ.লীগ
  • মোহনপুর হাসপাতালে যে কারণে নার্সকে হাতুড়িপেটা করে যুবক!
  • জাতিসংঘ কীভাবে এত বড় ভুল করে: জয়
  • বহুমাত্রিক সম্পর্কের রোল মডেল ভারত-বাংলাদেশ
  • মাঠ ছাড়বে না আওয়ামী লীগ
  • শিল্পকলা পদক পেলেন রাবি শিক্ষক মলয় ভৌমিক
  • নাটোরে ছাত্রলীগ নেতার মৃত্যুর খবর নিয়ে গুজব
  • রাজশাহীতে মজুদ আলুর কেজিতে লোকসান ৫ টাকা
  • সরকারি চাকরির আবেদনে ৩৯ মাস ছাড়
  • উপরে