রাজশাহীতে আনন্দ-উৎসাহে করোনা টিকা নিলো শিশুরা

প্রকাশিত: আগস্ট ২৫, ২০২২; সময়: ৯:৪৫ pm |
রাজশাহীতে আনন্দ-উৎসাহে করোনা টিকা নিলো শিশুরা

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহী মহানগরীরত প্রথম দিনেই আনন্দে উৎসাহে করোনা টিকা নিলো শিশুরা। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে এই টিকা কার্যক্রম শুর হয়ে চলে বেলা ৩ টা পর্যন্ত। এদিনদিনে ৫ থেকে ১১ বছর বয়সী শিশুদের করোনা টিকা দেওয়া হয়। সকাল থেকে একযোগে মহনগরীর ৫৪টি স্কুলে এই কার্যক্রম চলে।

রাজশাহীতে শুরু হওয়ায় ১২ দিনের এই বিশেষ ক্যাম্পেইনের প্রথম দিনে অন্তত ১০ হাজার ক্ষুদে শিক্ষার্থী টিকা নিয়েছে। যেসব শিশু সুরক্ষা অ্যাপে নিবন্ধন করেছে কেবলমাত্র তারাই ফাইজারের বিশেষ এই টিকা গ্রহণ করতে পারছে।

করোনা টিকা দানকে কেন্দ্র করে রাজশাহী সিটি করপোরেশন এলাকার স্কুল প্রাঙ্গণে উৎসবমুখর পরিবেশ তৈরী হয়েছে। কিছুটা ভয় নিয়ে শিক্ষার্থীরা আসলেও টিকা নিতে পেরে তারা এখন দারুণ উচ্ছ্বসিত। অন্যদিকে দেরিতে হলেও সন্তানদের টিকা নিশ্চিত হওয়ায় স্বস্তি প্রকাশ করছেন অভিভাবকরা। সুষ্ঠুভাবে সবার শিশুই যেন টিকা নিতে পারে সেই প্রত্যাশা করছেন অভিভাবকরা।

রাজশাহী সিটি করোরেশন জানিয়েছে, টিকা দেওয়ার পর যদি কোনো শিক্ষার্থীর শরীরে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দেয়, তাকে সব ধরনের চিকিৎসা দিতে কাজ করছে বিশেষ মেডিক্যাল টিম। তবে বিকেল পর্যন্ত কারো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দেয় নি।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায় রাজশাহী ক্যাম্পেইনে মোট ৫০০ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৫৮ হাজার ২৪২ জনকে টিকা দেওয়া হবে। এরমধ্যে ছাত্র ৩০ হাজার ৪৮৫ জন ও ছাত্র রয়েছে ২৭ হাজার ৭৫৭ জন। এর মধ্যে রাজশাহী সিটি করপোরেশনের ৯ হাজার ১৩৫ জন শিশুকে টিকা প্রদানের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।

রাজশাহী সিটি করপোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. এফএএম আঞ্জুমান আরা বেগম জানান, এই কর্মসূচির প্রথম দিন বৃহস্পতিবার ৫-১১ বছর বয়সী ৯ হাজার ১৩৫ জন শিশুকে টিকা প্রদানের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। ১ম ডোজের ৮ সপ্তাহ বা ৫৬ দিনের ব্যবধানে ২য় ডোজ প্রয়োগ করা হবে।

এদিকে, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন উদ্যোগে নগরীর শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৫-১১ বছর বয়সী শিশুদের ১ম দিনে ৭ হাজার ৬৬০জনকে করোনার টিকা প্রদান করা হয়েছে। সরকারি কর্মসূচির অংশ হিসেবে রাজশাহী মহানগরীতে টিকাদানের এ কর্মসূচি চলবে ১৪ দিনব্যাপী। সকাল ৯টা শুরু হয়ে টিকাদান কর্মসূচি চলে দিনব্যাপী।

বৃহস্পতিবার ১ম দিন মহানগরীতে ওয়ার্ড পর্যায়ে ৫৪টি স্কুলে ৭ হাজার ৬৬০জন শিশুকে করোনার কমিরনাটি টিকা প্রদান করা হয়। দেশের সকল সিটি কর্পোরেশনের ন্যায় রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন এলাকায় ৫-১১ বছর বয়সী শিশুদের এই টিকা প্রদান করা হচ্ছে।

রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের স্বাস্থ্য বিভাগ হতে প্রাপ্ত তথ্য অনুসারে ১নং ওয়ার্ডে ১৪০ জন, ২নং ওয়ার্ডে ২১০ জন, ৩নং ওয়ার্ড ১৫০ জন, ৪নং ওয়ার্ড ১৮০জন, ৫নং ওয়ার্ড ৩১০ জন, ৬নং ওয়ার্ড ২৪৯ জন, ৭নং ওয়ার্ড ১২০ জন, ৮নং ওয়ার্ড ২৮৩ জন, ৯নং ওয়ার্ড ৪০০ জন, ১০নং ওয়ার্ড ৯০ জন, ১১নং ওয়ার্ড ২৫০ জন, ১২নং ওয়ার্ড ২৭০ জন, ১৩নং ওয়ার্ড ১৪০ জন, ১৪নং ওয়ার্ড ৪২০, ১৫নং ওয়ার্ড ৭০জন, ১৬নং ওয়ার্ড ৬০০ জন, ১৭নং ওয়ার্ড ৫২০ জন, ১৮নং ওয়ার্ড ৯০জন, ১৯নং ওয়ার্ড ৩২০জন, ২০নং ওয়ার্ড ৫০জন, ২১নং ওয়ার্ড ৫৭৮ জন, ২২নং ওয়ার্ড ২৮৭ জন, ২৩নং ওয়ার্ড ১৩০ জন, ২৪নং ওয়ার্ড ২০০ জন, ২৫নং ওয়ার্ড ৩০০ জন, ২৬নং ওয়ার্ড ৩৯৩ জন, ২৭নং ওয়ার্ড ১৪০ জন, ২৮নং ওয়ার্ড ২৭০ জন, ২৯নং ওয়ার্ড ৩০০ জন ও ৩০নং ওয়ার্ড ২০০জনকে টিকা প্রদান করা হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
topউপরে