রাজশাহীতে মেয়েকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় বাবার উপরে হামলায় গ্রেপ্তার ৩

প্রকাশিত: আগস্ট ১৮, ২০২২; সময়: ৮:৩৫ pm |
রাজশাহীতে মেয়েকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় বাবার উপরে হামলায় গ্রেপ্তার ৩

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহী নগরীতে কলেজছাত্রীকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় বাবার ওপর হামলার ঘটনায় ৩ বখাটেকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব। বুধবার (১৭ আগস্ট) দিবাগত রাত ২টার দিকে নগরীর মতিহার থানাধীন মেহেরচন্ডী পূর্বপাড়া এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

তারা হলেন ইরফান খান মেরাজ (২৩), ফরহাদ (২৭) ও আখের আলী (৩২)। তারা সবাই মেহেরচন্ডী পূর্বপাড়ার বাসিন্দা। রাজশাহী রেলওয়ে থানায় করা মামলায় তাদের গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।

জানা গেছে, নীল মাধব সাহার দ্বাদশ শ্রেণি পড়ুয়া মেয়েকে কলেজে যাতায়াতের সময় উত্ত্যক্ত করে আসছিল এলাকার ইউসুফ আলীর ছেলে এরফান খান মেরাজ, সামদের ছেলে রুহুল আমিন সরকার প্রিন্স, আক্তারের ছেলে রবিনসহ একদল বখাটে।

গত ১২ আগস্ট সকালে এই কাণ্ডের প্রতিবাদ জানান নীলমাধব সাহা। পরদিন সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে বখাটেরা রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় স্টেশনে তার পার্লারে হামলা চালায়। এ সময় তাকে ছুরিকাঘাতসহ হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর যখম করে। হাসপাতালে নেওয়া হলে তার মাথায় ১২টি সেলাই পড়ে।

ভুক্তভোগীর জানান, আইনি প্রতিকার পেতে তিনি নগরীর মতিহার থানায় মামলা করতে যান। কিন্তু মতিহার থানা পুলিশ মামলা না নিয়ে জানায়, এলাকাটি পড়েছে রেলওয়ে থানার অধীনে। তাই রেলওয়ে থানায় যান তিনি।

কিন্তু সেখানেও মামলা নেওয়া হয়নি। বাধ্য হয়ে তিনি চন্দ্রিমা থানার বাসিন্দা বলে সেই থানায় যান মামলা করতে। কিন্তু সেখানেও তার মামলা নেয়নি পুলিশ। প্রতিকার পেতে শেষে বুধবার (১৭ আগস্ট) দুপুরের দিকে রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়ন কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন নীল মাধব সাহা।

র‍্যাব জানিয়েছে, ভুক্তভোগী ছাত্রীর বাবা নীলমাধব সাহার সংবাদ সম্মেলনের পর ঘটনার ছায়া তদন্ত শুরু করে র‍্যাব। এরপর গোপন তথ্যের ভিত্তিতে মেহেরচন্ডী পূর্বপাড়ার সমশের মোড় এলাকা থেকে ৩ অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে