ক্রিমিয়ায় বিস্ফোরণে কেঁপে উঠলো রুশ সামরিক ঘাঁটি

প্রকাশিত: আগস্ট ১৬, ২০২২; সময়: ৫:৪৫ pm |
ক্রিমিয়ায় বিস্ফোরণে কেঁপে উঠলো রুশ সামরিক ঘাঁটি

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : রাশিয়ার দখলকৃত ক্রিমিয়া অঞ্চলের একটি সামরিক ঘাঁটি একাধিক বিস্ফোরণের শিকার হয়েছে। এতে অন্তত দুই ব্যক্তির আহত হওয়ার খবর পাওয়া যাচ্ছে। রুশ কর্মকর্তারা বলছেন, উত্তর ক্রিমিয়ার ডজানকাই এলাকার একটি অস্ত্র গুদামে অগ্নিকাণ্ডের পর এসব বিস্ফোরণ ঘটেছে। এছাড়া একটি বৈদ্যুতিক সাবস্টেশনেও আগুন জ্বলতে দেখা গেছে। খবর বিবিসি।

প্রতিবেদনে বলা হয়, এসব বিস্ফোরণের কারণ এখনও অস্পষ্ট। তবে গত সপ্তাহে দৃশ্যত ইউক্রেনীয় হামলায় ক্রিমিয়া উপকূলে রাশিয়ার যুদ্ধবিমান ধ্বংস হয়।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ক্রিমিয়ার ডজানকাই এলাকার মাইসকে গ্রামের একটি অস্থায়ী অস্ত্র গুদামে মস্কোর স্থানীয় সময় সকাল ছয়টার দিকে অগ্নিকাণ্ড শুরু হয়। এর কারণ এখনও খতিয়ে দেখা চলছে। মন্ত্রণালয়টি আরও জানিয়েছে, এই ঘটনায় কোনও মারাত্মক হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। তবে রাশিয়ার নিযুক্ত কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, দুই ব্যক্তি আহত হয়েছেন।

ইউক্রেনীয় প্রেসিডেন্টের উপদেষ্টা মিখাইলো পোডোলিয়াক ঘটনাটিকে ‘অ্যাকশনে অসামরিকীকরণ’ হিসেবে বর্ণনা করেছেন। এথেকে ইঙ্গিত পাওয়া যায় বিস্ফোরণগুলো দুঘটনাক্রমে ঘটেনি। ক্রিমিয়া অঞ্চলের তাতার নেতা রেফাত চৌবারোভ বিস্ফোরণগুলোকে একটি ‘আঘাত’ হিসেবে বর্ণনা করেছেন। তিনি জানান এই আঘাতের শব্দ ‘অনেক দূরের স্টেপ্পে জুড়ে’ শোনা যায়।

২০১৪ সালে ইউক্রেনের কাছ থেকে ক্রিমিয়া দখল করে নেয় রাশিয়া। এই বছরের ফেব্রুয়ারিতে রুশ বাহিনী যখন ইউক্রেনে আগ্রাসন শুরু করে তখন দক্ষিণ ইউক্রেনের বিস্তৃত অঞ্চলের নিয়ন্ত্রণ নিতে ক্রিমিয়ায় নিজেদের ঘাঁটি ব্যবহার করে রাশিয়া।

গত মঙ্গলবার ক্রিমিয়ার সাকি এলাকায় রাশিয়ার একটি বিমান ঘাঁটি আক্রান্ত হয়। স্যাটেলাইট ছবিতে দেখা গেছে, ওই ঘাঁটির মারাত্মক ক্ষয়ক্ষতিসহ অন্তত আটটি যুদ্ধবিমান ধ্বংস হয়েছে। রাশিয়ার তরফে ওই ঘটনাকেও দুর্ঘটনা বলে বর্ণনা করলেও স্পষ্ট হয়েছে ঘাঁটিটি ইউক্রেনীয় হামলায় আক্রান্ত হয়েছে। যুক্তরাজ্যের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ওই বিস্ফোরণ রুশ নৌবাহিনীর কৃষ্ণ সাগর বহরের উড্ডয়ন সক্ষমতাকে ‘উল্লেখযোগ্যভাবে কমিয়ে দিয়েছে’।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
topউপরে