বাগমারায় হবে আরও ১০টি কমিউনিটি ক্লিনিক

প্রকাশিত: আগস্ট ১০, ২০২২; সময়: ১১:৩৪ pm |
বাগমারায় হবে আরও ১০টি কমিউনিটি ক্লিনিক

নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাবেক স্বাস্থ্য বিষয়ক উপদেষ্টা ও কমিউনিটি ক্লিনিক ট্রাস্টি বোর্ডের সভাপতি অধ্যাপক ডা. সৈয়দ মোদাচ্ছের আলী বলেছেন, আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর দেশের প্রতিটি মানুষের দৌড়গোড়ায় স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দিতে কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপন করেছিলো। আজ দেশের মানুষ তার সুফল পাচ্ছেন। সরকার ঘরের পাশেই মানুষের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করেছে।

তিনি বলেন, আগামীতে কমিউনিটি ক্লিনিকে প্রসূতি মায়েদের জন্য ডেলিভারী বিভাগ চালু করা হবে। একই সঙ্গে তিনি রাজশাহীর বাগমারা উপজেলায় নতুন করে আরও ১০ টি কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপনের ঘোষণা দেন।

তিনি বলেন, কমিউনিটি ক্লিনিকের মাধ্যমে প্রত্যন্ত এলাকার সর্বস্তরের লোকজন বিশেষ করে গর্ভবতি মায়েদের সন্তান প্রসব সহজতর করা হবে। বুধবার দুপুরে রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার হাটগাঙ্গোপাড়া এলাকায় কমিনিউটি ক্লিনিক পরিদর্শন শেষে স্থানীয় বিদ্যালয় মাঠে কমিউনিটি ক্লিনিকের সুবিধাভোগীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ডা. সৈয়দ মোদাচ্ছের আলী বলেন, বিএনপি সরকার ক্ষমতায় আসার পর সকল ক্লিনিক বন্ধ করে দিয়েছিলো। এতে প্রত্যন্ত এলাকার লোকজন স্বাস্থ্যসেবা থেকে বঞ্চিত হয়। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলে পুনরায় সকল কমিউনিটি ক্লিনিক চালু করা হয়। এরফলে বেকার লোকজনের কর্মসংস্থান হওয়ার পাশাপাশি প্রত্যন্ত এলাকার জনসাধারণের চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত হয়েছে।

এই ধারাবাহিকতা বজার রাখার কোন বিকল্প নেই। কমিউনিটি ক্লিনিকের মাধ্যমে বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা প্রদানের পাশাপাশি ওষুধ প্রদান করা হয়ে থাকে। সবাইকে বাড়ির পাশের কমিউনিটি ক্লিনিকে গিয়ে সেবা নেয়ার কথাও বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাবেক স্বাস্থ্য বিষয়ক উপদেষ্টা ও কমিউনিটি ক্লিনিক ট্রাস্টি বোর্ডে সভাপতি অধ্যাপক ডা. সৈয়দ মোদাচ্ছের আলী।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ছিলেন রাজশাহী-৪ (বাগমারা) আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক। তিনি বলেন, দেশে নিয়ে ষড়যন্ত্র করে লাভ নেই। দেশের চলমান উন্নয়নের গতি থামনো যাবে না। দেশের প্রতিটি স্থানে উন্নয়নের ছোঁয়া লেগেছে। মানুষ জেনে গেছে কারা দেশের উন্নয়নে কাজ করে।

দেশের পাশাপাশি বাগমারা উপজেলায় খাদ্যের কোন সমস্যা নেই। বাগমারা এখন শতভাগ বিদ্যুতায়িত এলাকা। জামায়াত-বিএনপির শাসনামলে বাগমারা ছিল রক্তাক্ত জনপদ। সেই অবস্থা থেকে আজ বাগমারা উন্নয়নের শিখরে অবস্থান করছে। শিক্ষা, স্বাস্থ্য, যোগাযোগ অবকাঠামোগত উন্নয়নসহ প্রতিটি ক্ষেত্রে ব্যাপক উন্নয়ন ঘটেছে।

বাগমারা উপজেলার আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ গোলাম সারওয়ার আবুলের পরিচালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, কমিউনিটি ক্লিনিক স্বাস্থ্য সহায়তা ট্রাস্টের জাতীয় সমন্বয়ক শাহানা পারভীন, রাজশাহী জজ কোর্টের সাবেক পিপি এ্যাড. ইব্রাহীম হোসেন, কমিউনিটি ক্লিনিকের সিএইচসিপি আফসার আলী।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহীর সিভিল সার্জন ডা. আবু সাইদ ফারুক, উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. গোলাম রাব্বানী, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রবিউল ইসলাম, ভাইস চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদ প্রমুখ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
topউপরে