ফেসবুকের সেরা ৫ বিকল্প

প্রকাশিত: আগস্ট ৭, ২০২২; সময়: ১২:০১ pm |
ফেসবুকের সেরা ৫ বিকল্প

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : সামাজিক যোগাযোগ প্ল্যাটফর্মগুলোর মধ্যে জনপ্রিয়তার শীর্ষে রয়েছে ফেসবুক। বিভিন্ন ফিচার, সহজলভ্যতার ও গেটআপের কারণে এখনো পর্যন্ত এই অ্যাপের যোগ্য বিকল্প খুঁজে পাননি ব্যবহারকারীরা।

শুধুমাত্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম হিসাবে নয়, শিক্ষা, চাকরি, ব্যবসা, সংগঠন ইত্যাদি একাধিক ক্ষেত্রে অবদান রয়েছে ফেসবুকের।

তবে কি সত্যি এই অ্যাপের কোনো বিকল্প নেই? আসলে একাধিক বৈশিষ্ট্য এক ছাতার তলায় নিয়ে এসেছে ফেসবুক। যার ফলস্বরূপ বিশ্বজুড়ে বয়স, শ্রেণী, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে মানুষ এই অ্যাপটি গ্রহণ করেছেন। কিন্তু ওই যে কথায় আছে, কোনো কিছুই চিরস্থায়ী নয়।

যোগ্য বিকল্প না থাকলেও বর্তমানে ফেসবুককে বড় চ্যালেঞ্জ জানাতে শুরু করেছে একাধিক অ্যাপ। ফেসবুকের বিকল্প হিসাবে অনেকেই বেছে নিচ্ছেন এই প্ল্যাটফর্মগুলো। ধীরে ধীরে ফেসবুকের উপর নির্ভরশীলতা ক্রমশ কমতে শুরু করেছে ব্যবহারকারীদের।

দেখে নিন ফেসবুকের সেরা পাঁচ বিকল্প-

ফেসবুক নিউজের ক্ষেত্রে বিকল্প টুইটার

নিউজ প্ল্যাটফর্ম তথা মাইক্রোব্লগিং সাইট হিসাবে কাজ করে টুইটার। বিশ্বব্যাপী ৩০০ মিলিয়নেরও বেশি মাসিক অ্যাক্টিভ ইউজার রয়েছে টুইটারে। পৃথিবীর কোন প্রান্তে কী ঘটছে সব খবরাখবর ফেসবুকের আগে পাওয়া যায় টুইটারে। এছাড়া বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিরা টুইটারেই সবচেয়ে বেশি অ্যাক্টিভ থাকেন।

ফেসবুক মেসেজিংয়ের ক্ষেত্রে বিকল্প টেলিগ্রাম

প্রায় ৫০০ মিলিয়নেরও বেশি অ্যাক্টিভ ইউজার রয়েছে টেলিগ্রামে। অনেকেই মনে করেন, টেলিগ্রামের জনপ্রিয়তা বৃদ্ধির অন্যতম প্রধান কারণ হল এটির গোপনীয়তা নীতি। তাছাড়া ফেসবুকের মতো এখানেও টেক্সট মেসেজ, ভয়েস কল, গ্রূপ কল, স্টিকার, মিডিয়া ফাইল ট্রান্সফার, বিভিন্ন চ্যানেলের অ্যাক্সেস এবং প্রোফাইল ক্রিয়েট করা যায়।

ফেসবুক জবের ক্ষেত্রে বিকল্প লিঙ্কডিন

অনেকেই আছেন যারা কর্মসন্ধানের জন্য ফেসবুক ব্যবহার করেন। তাদের ক্ষেত্রে দারুণ বিকল্প মাইক্রোসফট নির্মিত প্ল্যাটফর্ম লিঙ্কডিন। বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থা, তাদের সংস্কৃতি সহ একাধিক পেশাদার বিষয় সম্পর্কে অবগত থাকার জন্য আদর্শ প্ল্যাটফর্ম লিঙ্কডিন। ফেসবুকের তুলনায় এই অ্যাপে সংশ্লিষ্ট শূন্যপদ বিষয়ে স্বচ্ছ ধারণা পাওয়া যায়।

ফেসবুক গ্রুপের ক্ষেত্রে বিকল্প রেডিট

যারা ফেসবুকের গ্রুপ ফিচারের বিকল্প খুঁজছেন তাদের কাছে রেডিট অন্যতম বিকল্প হতে পারে। এই প্ল্যাটফর্মে অজস্র কমিউনিটি রয়েছে। ভিডিও গেম থেকে শুরু করে রান্নার রেসিপি, ভ্রমণ, খেলা ইত্যাদি। এখানে একটি ডিসকাশান ফোরাম থেকে যেখানে যোগ দেওয়া বা পোস্ট করা দুটোই সহজ।

ফেসবুক সোশ্যাল নেটওয়ার্কের ক্ষেত্রে বিকল্প ভিরো

ফেসবুক সোশ্যাল নেটওয়ার্কের ক্ষেত্রে দুর্দান্ত বিকল্প ভিরো । এই অ্যাপটি বেশ সুন্দরভাবে ডিজাইন করা এবং ব্যবহার করাও খুব সহজ। এটিতে রয়েছে কালানুক্রমিক টাইমলাইন যা আপনার ফিডের সমস্ত পোস্ট কখন প্রকাশিত হয়েছিল তার ক্রমানুসারে দেখায়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে