ঘোষণা ছাড়াই তিতাস মিটার চার্জ বাড়াল ৪০ টাকা

প্রকাশিত: জুলাই ২৬, ২০২২; সময়: ১:১১ pm |
খবর > জাতীয়
ঘোষণা ছাড়াই তিতাস মিটার চার্জ বাড়াল ৪০ টাকা

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : পূর্ব ঘোষণা ছাড়া এবং নিয়ন্ত্রক সংস্থার অনুমতি না নিয়েই আবাসিকের প্রি-পেইড মিটারের চার্জ ৪০ টাকা বাড়িয়েছে দেশের সবচেয়ে বড় গ্যাস বিতরণকারী সংস্থা তিতাস।

জুন মাস পর্যন্ত মিটার ভাড়া ছিল ৬০ টাকা (মে মাসের বিল), জুলাই মাস থেকে ১০০ টাকা (জুন মাসের বিল) নিচ্ছে তিতাস। এতে মাসে এক কোটি ৩০ লাখ ২০ হাজার টাকা বাড়তি আদায় হবে সংস্থাটির। মিটার ভাড়া বাড়ালেও সংস্থাটি গ্রাহকদের কোনো নোটিশ দেওয়া হয়নি। এমনকি জ্বালানি খাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থা

বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনকেও (বিইআরসি) অবহিত করা হয়নি।

সূত্র জানায়, গত জুন মাসে গ্যাসের দাম বাড়ানো হয়। তখন প্রি-পেইড মিটারে প্রতি ইউনিটের খরচ ১২ টাকা ৬০ পয়সা থেকে ৪৩ শতাংশ বাড়িয়ে ১৮ টাকা করা হয়। তখন মিটারের চার্জ বাড়ানোর ঘোষণা দেয়নি বিইআরসি। তবে চলতি মাসে গ্রাহকদের কাছে পাঠানো জুন মাসের

বিলে মিটার চার্জ ৪০ টাকা বাড়িয়ে ১০০ টাকা করা হয়। সূত্র জানায়, তিতাসের বোর্ড সভায় মিটার ভাড়া বাড়িয়ে ৩০০ টাকা করার প্রস্তাব তোলা হলে তা ১০০ টাকা করার সিদ্ধান্ত হয়।

জ্বালানি খাতের ট্যারিফ নির্ধারণের ক্ষমতা বিইআরসির। মিটার চার্জও মাসিক বিলের একটি অংশ। কিন্তু মিটার চার্জ বাড়ানোর বিষয়ে বিইআরসির কোনো অনুমোদন তিতাস নেয়নি বলে কমিশনের এক সদস্য সমকালকে জানিয়েছেন।

মিটার চার্জ বৃদ্ধির তিতাসের সিদ্ধান্তকে আইনবহির্ভূত উল্লেখ করে এ বিষয়ে আদালতে যাওয়ার কথা জানিয়েছেন কনজ্যুমার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের জ্বালানি উপদেষ্টা অধ্যাপক শামসুল আলম। তিনি বলেন, আইন অনুসারে বিতরণ সংস্থা নিজে এ ধরনের সিদ্ধান্ত নিতে পারে না। এ জন্য বিইআরসির অনুমোদন নিতে হবে। কিন্তু তিতাস তা করেনি। ফলে এ সিদ্ধান্ত অবৈধ ও আইনবহির্ভূত। আদালতেই এর ফয়সালা হবে।

মন্তব্যের জন্য ফোন দেওয়া হলেও সাড়া মেলেনি তিতাসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হারুনুর রশিদ মোল্লাহর। তিতাসের মোট গ্রাহক ২৮ লাখ ৭৪ হাজার ৮৪৮ জন। আবাসিক গ্রাহক রয়েছেন ২৮ লাখ ৫৬ হাজার ২৪৭ জন। এর মধ্যে প্রি-পেইড মিটার রয়েছে তিন লাখ ২৮ হাজার গ্রাহকের।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে