পবা উপজেলায় ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের মঝে জমিসহ গৃহ হস্তান্তর

প্রকাশিত: জুলাই ২১, ২০২২; সময়: ৬:০৬ pm |
পবা উপজেলায় ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের মঝে জমিসহ গৃহ হস্তান্তর

নিজস্ব প্রতিবেদক: মুজিববর্যে “বাংলাদেশের একজন মানুষও গৃহহীন থাকবে না” প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়নে আশ্রয়ণ প্রকল্পের আওতায় রাজশাহীর পবা উপজেলায় ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমিসহ গৃহ হস্তান্তর (৩য় পর্যায়-২য় ধাপ) কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২১ জুলাই) সকাল ৯ টায় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমিসহ গৃহ হস্তান্তর (৩য় পর্যায়-২য় ধাপ) কার্যক্রমের ভার্চুয়ালী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উপস্থিত থেকে উদ্বোধন করেন গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা।

এ সময় স্থানীয়ভাবে পবা উপজেলা নির্বাহী অফিসার লসমী চাকমা’ঁর সভাপতিত্বে সভায় অতিথি ছিলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) অভিজিত সরকার, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোসা. আরজিয়া বেগম ও মো. ওয়াজেদ আলী খাঁন।

উপজেলা পল্লী উন্নয়ন অফিসার মোসা. শামসুন্নাহারের সঞ্চালনায় এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সিনিয়র মৎস্য অফিসার মো. আসাদুজ্জামান, উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো. রফিকুল ইসলাম, সমাজসেবা অফিসার ইমাম হাসান শামীম, পরিবার পরিকল্পনা অফিসার মো. সোহেল রানা, যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা এমএনএম জহুরুল ইসলাম, পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক কর্মকর্তা মোছা. শাহনাজ পারভীন, পরিসংখ্যান অফিসার গোলাম ফারুক।

আরো উপস্থিত ছিলেন হড়গ্রাম ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ, হরিপুর ইউপি চেয়ারম্যান বজলে রেজভী আল হাসান মন্জিল, হরিয়ান ইউপি চেয়ারম্যান মফিদুল ইসলাম বাচ্চু, বড়গাছী ইউপি চেয়ারম্যান শাহাদাৎ হোসেন সাগর, দর্শনপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান শাহাদত হোসেন, পারিলা ইউপি চেয়ারম্যান মুর্শেদ, দামকুড়া ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম, আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুর রাজ্জাকসহ উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের ভূমিহীন ও গৃহহীন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক, আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতিনিধি, সাংবাদিক, এনজিও প্রতিনিধি, উপজেলার বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণসহ আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ।

উল্লেখ্য মুজিববর্যে “বাংলাদেশের একজন মানুষও গৃহহীন থাকবে না” মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়নে আশ্রয়ণ প্রকল্পের মাধ্যমে সমগ্র দেশের সকল ভূমিহীন ও গৃহহীন মানুষকে জমিসহ সেমিপাকা ঘর দেওয়ার কর্মসূচি হাতে নেওয়া হয়েছে। এ কর্মসূচির আওতায় বাংলাদেশের সকল অসহায়, দরিদ্র ও ঠিকানা বিহীন উপকারভোগী পরিবারকে দুটি শ্রেণিতে বিভক্ত করা হয়েছে যার মধ্যে ক শ্রেণিতে রয়েছে যার জমি ও ঘর কিছুই নেই এমন ভূমিহীন ও গৃহহীন, ছিন্নমূল ও অসহায় দরিদ্র পরিবার এবং খ শ্রেণিতে রয়েছে যার সর্বোচ্চ ১০ শতাংশ জমির সংস্থান আছে কিন্তু ঘর নেই এমন পরিবার।

এর ধারাবাহিকতায় সারাদেশে ২৬ হাজার ২২৯টি ঘর হস্তান্তরের মাধ্যমে পঞ্চগড় ও মাগুরা জেলার সব উপজেলাসহ দেশের ৫২টি উপজেলা ভূমিহীন ও গৃহহীনমুক্ত হওয়ার ঘোষণা করা হয়েছে। এর অংশ হিসেবে রাজশাহীর জেলায় ১৭৫টি পরিবারেরকে।

পবা উপজেলার ১৫০টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমিসহ গৃহ হস্তান্তর (৩য় পর্যায়-২য় ধাপ) করা হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও খবর

  • সারা বিশ্বে তেলের দাম ১০০ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে : তথ্যমন্ত্রী
  • গোদাগাড়ীতে বঙ্গবন্ধু-বঙ্গমাতাসহ সকল শহিদের মাগফেরাত কামনায় দোয়া মাহফিল
  • রাজশাহীতে মাছের বাজারে আগুন, বেড়েছে মুরগি ও সবজির দামও
  • রাজশাহীতে বাসের ধাক্কায় বাইকে আগুন, প্রাণে বাঁচলেন চালক
  • ১৭০ দেশ দেউলিয়া হলে তবেই বাংলাদেশ দেউলিয়া হবে : শাহরিয়ার
  • পুঠিয়ায় প্রসূতির ফিস্টুলা নিয়ে সাংবাদিকেদর সাথে অ্যাডভোকেসি সভা
  • বাগমারায় সৈয়দ ডা. মোদাচ্ছের আলীর সাথে উপজেলা প্রশাসনের মতবিনিময়
  • অবৈধ ভাবে সরকারি সুবিধা ভোগকারিদের আইনের আওতায় আনা হবে : পররাষ্ট প্রতিমন্ত্রী
  • আরএমপির উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন কমিশনার
  • চারঘাটে শিশু সুরক্ষায় সমাজকর্মীদের গুরুত্ব শীর্ষক আলোচনা সভা
  • ঘাস থেকে বটবৃক্ষে পরিণত হয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু: মেয়র লিটন
  • রাজশাহীতে বিদেশী অস্ত্রসহ যুবক গ্রেপ্তার
  • বাগমারায় হবে আরও ১০টি কমিউনিটি ক্লিনিক
  • রাজশাহীতে আ.লীগ নেতার বাসায় গুলির ঘটনায় দুইজন রিমান্ডে
  • বাঘায় বিকাশের দোকান থেকে ৩ লক্ষ টাকা ছিনতাই
  • উপরে