চুলের জন্য কোন তেল উপকারী?

প্রকাশিত: জুন ২৩, ২০২২; সময়: ২:১৪ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : চুলে তেল ব্যবহারের উপকারিতা সম্পর্কে জানা আছে নিশ্চয়ই? আপনি যদি চুলে তেল ব্যবহার না করেন, তবে চুলের রং, দৈর্ঘ্য, উজ্জ্বলতা সবই নষ্ট হবে। চুল ভালো রাখতে চাইলে তেল ব্যবহার করার বিকল্প নেই।

এদিকে বাজারে নানা ধরনের তেল পাওয়া যায়। কোনটি ব্যবহার করলে বেশি উপকার পাবেন, তা জানা থাকাও জরুরি। জেনে নিন চুলের যত্নে কোন তেলগুলো বেশি উপকারী-

নারিকেল তেল

চুলে প্রোটিনের জোগান দেয় নারিকেল তেল। এই তেলে থাকে লরিক অ্যাসিডের ও ফ্যাটি অ্যাসিড যা চুলকে নানা ধরনের ক্ষতিকর পদার্থ থেকে বাঁচায়। শুষ্ক ও রুক্ষ্ম চুলের কন্ডিশনার হিসাবে ব্যবহার করতে পারেন নারিকেল তেল।

এই তেলে আছে তাপ সুরক্ষা বৈশিষ্ট্য। যা চুলকে ইউভি রশ্মির ক্ষতিকর প্রভাব থেকে বাঁচায়। অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল এবং অ্যান্টিফাঙ্গাল বৈশিষ্ট্যের কারণে নারিকেল তেল চুলের জন্য বেশি উপকারী।

অর্গান অয়েল

অর্গান অয়েল বেশিরভাগ চুলের প্রসাধনী প্রোডাক্টে ব্যবহার করা হয়। এই তেলে আছে টোকোফেরল, পলিফেনল এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। সেইসঙ্গে আছে ভিটামিন এ, সি, ই এবং লিনোলেনিক অ্যাসিড, যা চুলে পুষ্টি জোগানোর পাশাপাশি কন্ডিশনার হিসাবে কাজ করে।

চুলের গোড়ায় প্রদাহ, খুশকি ও চুলকানি দূর করতেও এই তেল ব্যবহার করা হয়। এটি চুলের পুষ্টির ঘাটতি পূরণ করে।
নিয়মিত অর্গান অয়েল ব্যবহার করলে চুলের আগা ফাটা ও চুল ভেঙে যাওয়ার সমস্যা কমে।

টি ট্রি অয়েল

এটি প্রাকৃতিক তেল। এই তেলে আছে অ্যান্টিইনফ্লেমেটরি, অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল এবং অ্যান্টিফাঙ্গাল বৈশিষ্ট্যে। খুশকি, সেবোহেরিক ডার্মাটাইটিস এবং ফলিকুলার সংক্রমণের চিকিৎসার কাজে ব্যবহার করা হয় টি ট্রি অয়েল। চুলে উঁকুন বাসা বাঁধলে টি ট্রি অয়েল ব্যবহার করতে পারেন।

ক্যাস্টর অয়েল

চুল পড়ার সমস্যা কমাতে জাদুর মতো কাজ করে ক্যাস্টর অয়েল। এই তেলে আছে মনোস্যাচুরেটেড অ্যাসিড। ফলে ক্যাস্টর অয়েল ব্যবহার করলে চুলের আর্দ্রতা ধরে রাখা সহজ হয়। সেইসঙ্গে প্রতিরোধ করা যায় চুলের শুষ্কতাও।

এই তেলে রিসিনোলেইক এসিড থাকে। যে কারণে এটি ব্যবহারে চুলের গোড়ায় দিলে রক্ত সঞ্চালন বাড়ে। চুলে অক্সিজেন এবং পুষ্টি জোগানো সহজ করে ক্যাস্টর অয়েল। যে কারণে চুল দ্রুত বাড়ে।

তেল ব্যবহারের নিয়ম

উপকারিতা পেতে চাইলে সপ্তাহে অন্তত দুইদিন চুলে তেল ব্যবহার করুন। রাতে তেল ব্যবহার করে সারারাত রেখে দিন। সকালে উঠে ধুয়ে ফেলুন। এছাড়া গোসলের ঘণ্টাখানেক আগে ব্যবহার করলেও উপকার পাবেন। তেল প্রথমে গরম করে নেবেন। এরপর হালকা ঠান্ডা করে আঙুলের সাহায্যে মাথায় ব্যবহার করবেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপে