এক আসরে দুই প্রেমিকাকে বিয়ে করলেন যুবক

প্রকাশিত: জুন ২১, ২০২২; সময়: ৫:১৩ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : সন্দীপ ওরাও। পেশায় দিনমজুর। কাজ করেন ইটভাটায়। এই তরুণ একসঙ্গে দুই তরুণীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক চালিয়ে আসছিলেন। একজনের সঙ্গে তিন বছর ধরে লিভ ইনও করেছেন। পরে ঘটনা জানাজানি হওয়ায় কারও আপত্তি না থাকায় দুই প্রেমিকাকেই এক আসরে বিয়ে করলেন সন্দীপ ওরাও।

আর এই ঘটনা ঘটেছে ভারতের ঝাড়খণ্ড প্রদেশের লোহারদাগায়। পশ্চিমবঙ্গের বাংলা দৈনিক আনন্দবাজার বলছে, দু’জনের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক সন্দীপ ওরাওয়ের।

তবে একজনের সঙ্গে তিন বছর ধরে লিভ ইন করেছেন তিনি। দুই বান্ধবীকে একই সঙ্গে বিয়ে করেছেন সন্দীপ। এই বিয়েতে তার দুই কনেরই সম্মতি ছিল।

কুসুম লাকড়া এবং স্বাতী কুমারী নামে দুই তরুণী সন্দীপ ওরাওকে ভালোবাসতেন। লোহারদাগার ভান্দ্রা ব্লকের বান্দা গ্রামে একই দিনে একই মণ্ডপে প্রেমিকের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন তারা।

সন্দীপ এবং কুসুম তিন বছর ধরে লিভ-ইন সম্পর্কে ছিলেন। তাদের একটি সন্তানও রয়েছে। তাদের প্রেমের গল্প এক বছর আগে নতুন করে মোড় নেয়, যখন সন্দীপ পশ্চিমবঙ্গের একটি ইটভাটায় কাজ করতে যান। সেই সময় সন্দীপের দেখা হয় স্বাতী কুমারীর সঙ্গে। স্বাতীও সেই ইটভাটায় কাজ করতেন।

সন্দীপ গ্রামের বাড়িতে ফেরার পরও দু’জনের দেখা-সাক্ষাৎ অব্যাহত ছিল। শেষে তাদের পরিবারের সদস্য ও গ্রামবাসীরা সম্পর্কের কথা জানতে পেরে প্রবল বিরোধিতা শুরু করেন।

দীর্ঘ ঝগড়া, বিবাদ ও অশান্তির পর গ্রামের বাসিন্দারা পঞ্চায়েত ডাকেন। পঞ্চায়েত সিদ্ধান্ত নেয়, সন্দীপ উভয় তরুণীকে বিয়ে করবে। তবে আশ্চর্যের বিষয় হল, দুই তরুণী কিংবা তাদের পরিবার— কেউই এই বিয়ে নিয়ে কোনও আপত্তি জানাননি।

সন্দীপ বলেন,‘আমি জানি, এই বিয়ে নিয়ে আমাকে আইনি জটিলতায় পড়তে হবে। তবে আমি তাদের দু’জনকেই ভালোবাসি। তাদের কাউকে ছাড়া থাকাই আমার পক্ষে সম্ভব নয়।’

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপে