ফোর্বসের তালিকায় বাংলাদেশের ৭ তরুণ

প্রকাশিত: জুন ১২, ২০২২; সময়: ১১:৫৯ am |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : প্রতি বছর বিশ্বখ্যাত মার্কিন সাময়িকী ফোর্বস সম্ভাবনাময় তরুণ সংগঠক, উদ্যোক্তা ও উদ্ভাবকের তালিকা প্রকাশ করে। গত ২ জুন ফোর্বস তাদের ওয়েবসাইটে ‘ফোর্বস ৩০ আন্ডার ৩০ এশিয়া ২০২২’-এর তালিকা প্রকাশ করে। তালিকায় মোট ৩০০ তরুণ সংগঠক, উদ্যোক্তা ও উদ্ভাবক নিজেদের কাজ দিয়ে জায়গা করে নিয়েছেন। তাতে শিল্প, প্রক্রিয়াজাতকরণ ও জ্বালানি, প্রযুক্তি উদ্যোগ এবং সামাজিক প্রভাব শ্রেণিতে স্থান পেয়েছেন ৭ বাংলাদেশি তরুণ।

এ বছর এশিয়ার ২২টি দেশ ও অঞ্চল থেকে চার হাজার মনোনয়ন জমা পড়ে। এর মধ্যে ৩০০ জনকে চূড়ান্ত তালিকার জন্য নির্বাচন করা হয়। তালিকায় সবচেয়ে বেশি মনোনয়ন জমা পায় ভারত। ভারতের মনোনয়ন পাওয়া তরুণের সংখ্যা ৬১। এর পরের অবস্থান সিঙ্গাপুরের। দেশটির ৩৪ তরুণ, জাপানের ৩৩, অস্ট্রেলিয়ার ৩২, ইন্দোনেশিয়ার ৩০ এবং চীনের ২৮ তরুণ ফোর্বসের এশীয় তরুণদের তালিকায় স্থান করে নেন।

২০১৬ থেকে ‘২১ সাল পর্যন্ত মোট ১৮ বাংলাদেশি তরুণ এ তালিকায় নাম লেখান। সৃজনশীলতা ও প্রজ্ঞা দিয়ে চলতি বছর ভিন্নমাত্রার সৃজনশীলতায় এ তালিকায় ঠাঁই করে নিয়েছেন বাংলাদেশের ৭ তরুণ। ‘ফোর্বস ৩০ আন্ডার ৩০ এশিয়া ২০২২’ শিরোনামের এ তালিকায় স্থান পাওয়া বাংলাদেশি তরুণরা হলেন- সামাজিক প্রভাব বা সোশ্যাল ইমপেক্ট শ্রেণিতে বিশুদ্ধ খাবার পানি সরবরাহ নিয়ে কাজ করা সামাজিক সংগঠন ফুটস্টেপস বাংলাদেশের সহপ্রতিষ্ঠাতা শাহ রাফায়াত চৌধুরী ও মোহাম্মদ তাকি ইয়াসির, অ্যাপভিত্তিক নিরাপদ পরিবহনসেবা প্রতিষ্ঠান শাটলের সহপ্রতিষ্ঠাতা জাওয়াদ জাহাঙ্গীর ও রিয়াসাত চৌধুরী, প্রযুক্তি উদ্যোগ শ্রেণিতে অ্যালিস ল্যাবসের শুভ রহমান এবং শিল্প, প্রক্রিয়াজাতকরণ ও জ্বালানি শ্রেণিতে পরিবহন ট্রেকিং ও পর্যবেক্ষণ প্রতিষ্ঠান বন্ডস্টেইন টেকনোলজিসের জাফির শাফি চৌধুরী ও মীর শাহরুখ ইসলাম।

ফুটস্টেপসের রাফায়াত ও ইয়াসির
নদীমাতৃক দেশ হলেও দেশে নিরাপদ পানির উৎসের যথেষ্ট অভাব। প্রান্তিক জনগোষ্ঠী নিরাপদ পানি এবং স্যানিটেশন সুবিধা থেকে অনেকখানি বঞ্চিত। ‘ফুটস্টেপস বাংলাদেশ’ এমন একটি উদ্যোগ, যারা মূলত প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জন্য নিরাপদ পানি ও স্যানিটেশনের কাজ করে। এ প্রতিষ্ঠানের সহ-প্রতিষ্ঠাতা শাহ রাফায়াত চৌধুরী ও মোহাম্মদ তাকি ইয়াসির। ২০১৩ সালে প্রতিষ্ঠিত প্রতিষ্ঠানটি তাদের লক্ষ্যে পৌঁছাতে কাজ করে যাচ্ছে। দেশের গ্রামাঞ্চলে স্কুল শিক্ষার্থীদের নিরাপদ পানীয় জল সরবরাহ করতে ফুটস্টেপস গত বছর শন মেন্ডেস ফাউন্ডেশনের সঙ্গে একতাবদ্ধ হয়। ফোর্বস ৩০ আন্ডার ৩০ এশিয়া ২০২২-এর চূড়ান্ত তালিকায় নিজেদের নাম দেখে কেমন লাগছে- এ প্রশ্নের উত্তরে শাহ রাফায়াত চৌধুরী বলেন, ‘আমরা খুবই আনন্দিত। আসলে এ অর্জন আমাদের সামনের দিনে আরও ভালো কাজ করার অনুপ্রেরণা জোগাবে। আমরা আমাদের স্বেচ্ছাসেবীসহ সব শুভাকাঙ্ক্ষীর জন্য এ স্বীকৃতি উৎসর্গ করলাম। যেই কাজ করছি সেই কাজে আগামীতে আরও মনোযোগী হবো।’

অ্যালিস ল্যাবসের শুভ রহমান
কভিড পরিস্থিতির পর অর্থনৈতিক অবস্থার একটি বিরাট অংশ ই-কমার্সের দখলে চলে যায়। এই ই-কমার্সের পালাবদলে ফোর্বসের দৃষ্টিতে যিনি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন তিনি অ্যালিস ল্যাবসের প্রতিষ্ঠাতা শুভ রহমান। ফোর্বসের ‘এন্টারপ্রাইজ টেকনোলজি’ শাখায় মনোনীত হয়েছেন তিনি। এটি মূলত কাজ করে অনলাইন প্ল্যাটফর্মভিত্তিক বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কাস্টমার সার্ভিস নিয়ে, যেটি পুরোপুরি কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তানির্ভর। যেখানে কাস্টমার সার্ভিস পেতে ভোক্তাদের দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করতে হয়, সেখানে অ্যালিস ল্যাবস কাজ করে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার সাহায্যে তৎক্ষণাৎ সেবা প্রদান নিয়ে। বর্তমানে কোকাকোলা ও ইউনিলিভারের মতো নামি প্রায় ৫০টি প্রতিষ্ঠান তাদের কাছ থেকে গ্রাহকসেবা-সহযোগিতা নিচ্ছে।

রিয়াসাত ও জাওয়াদের শাটল ফর উইমেন
গণপরিবহনের কথা মাথায় আসতেই চোখে ভেসে ওঠে গাদাগাদি আর ক্লান্তিকর যাত্রার চিত্র। যেখানে ভোগান্তির শেষ নেই। তবুও অর্থ আর সময়ের কথা ভেবে আমরা বাধ্য হয়ে গণপরিবহনে চড়ি। আর এই গণপরিবহনে নারীর নিরাপত্তা নিয়েও আছে নানা প্রশ্নজট! সেই জট থেকে নারীর মুক্তির জন্যই জাওয়াদ জাহাঙ্গীর ও রিয়াসাত চৌধুরী গড়ে তোলেন ‘শাটল ফর উইমেন’। ভিন্নধর্মী এ উদ্যোগের কারণেই ফোর্বসের ৩০ আন্ডার ৩০-এর তালিকায় ‘সোশ্যাল ইমপ্যাক্ট’ শাখায় নিজেদের জায়গা করে নেন এ দুই তরুণ। নারীদের নিরাপদ যাত্রার সুবিধা দিতেই প্রথমে তারা ঢাকায় সীমিত পরিসরে, পরবর্তী সময়ে বৃহৎ পরিসরে গড়ে তোলেন। বর্তমানে ২০ হাজারেরও বেশি নারী ‘শাটল ফর উইমেন’-এ নিবন্ধন করিয়েছেন। ২০১৮ সাল থেকে প্রতিষ্ঠানটি ১০ লাখেরও বেশি রাইড সম্পন্ন করেছে। শাটল গত বছর এক্সিলারেটিং এশিয়ার নেতৃত্বে ৭ লাখ ৫০ হাজার ডলার সংগ্রহ করেছে। কিছুদিন আগে এক্সিলারেটিং এশিয়া থেকে ফলোঅন ফাইন্ডিংও পেয়েছে। সামগ্রিকভাবে ১ মিলিয়ন ডলারের তহবিল সংগ্রহ করেছে শাটল।

শাফি ও শাহরুখের বন্ডস্টেইন
দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি ও সড়ক দুর্ঘটনায় প্রতিনিয়ত হাবুডুবু খাচ্ছি আমরা। এর ভেতর প্রতিনিয়ত বাড়ছে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান। সেই সঙ্গে মড়ার উপর খাঁড়ার ঘা হয়ে বাড়ছে সমস্যা। এসব সমস্যার সমাধানে গড়ে উঠেছে বন্ডস্টেইন টেকনোলজিসের। এর সহ-প্রতিষ্ঠাতা জাফির শাফি চৌধুরী ও মীর শাহরুখ ইসলাম। শিল্প, প্রক্রিয়াজাতকরণ ও জ্বালানি শ্রেণিতে তারা ফোর্বসের তালিকায় জায়গা করে নিয়েছেন। দেশীয় এবং আন্তর্জাতিক বাজারের জন্য বিভিন্ন আইটি ও হার্ডওয়্যার প্রস্তুত করে এ প্রতিষ্ঠান। মূলত বিভিন্ন কোম্পানির খরচ এবং ট্রাফিক দুর্ঘটনা কমাতে কাজ করে আসছে তারা। ওয়ালটন এবং ইউনিলিভারের মতো কোম্পানির পরিবহন দুর্ঘটনা কমাতেও কাজ করে যাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি।

স্বপ্নবাজ এ তরুণদের পথ ধরে এগিয়ে যাবে আমাদের আগামীর তারুণ্য। তাদের হাত ধরেই আসবে আমাদের সোনালি দিন!

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও খবর

  • রাতেও উপচেপড়া ভিড় পদ্মা সেতুতে
  • পদ্মা সেতুতে মোটর বাইক দুর্ঘটনায় দুইজন আহত
  • নাটোরে এমপিকে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন
  • শাহজাদপুরে স্বামীর লিঙ্গ কর্তন করলেন স্ত্রী
  • রাজশাহীতে বিতর্কিত আ.লীগ নেতার অপসারণ দাবিতে ঝাড়ু মিছিল
  • করোনায় আরও ২ জনের মৃত্যু, শনাক্তের হার বেড়ে ১৫.৬৬
  • কাঁচামাল ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা
  • দেশের বাজারে ভোজ্যতেলের দাম কমানোর আভাস
  • ‘পাকিস্তানও অভিনন্দন জানিয়েছে কিন্তু বিএনপি জানাতে পারেনি’
  • পদ্মা সেতুতে নেমে ছবি তুললেই গুনতে হবে জরিমানা
  • বজ্রসহ বৃষ্টির পূর্বাভাস
  • সরকারি চাকরিতে ডোপ টেস্ট বাধ্যতামূলক করে আইন হচ্ছে
  • বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তিতে ডোপ টেস্ট বাধ্যতামূলক করা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
  • পদ্মাসেতুর ওপর টিকটক করে ভাইরাল
  • রাজশাহীতে ৯৯৯-এ কল দিয়ে স্বামীকে পুলিশে দিলেন স্ত্রী
  • উপে