বেলকুচিতে ১৪৪ ধারা উপেক্ষা করে যুবলীগ কর্মীকে হামলা

প্রকাশিত: জুন ১১, ২০২২; সময়: ১০:৩০ am |

নিজস্ব প্রতিবেদক, সিরাজগঞ্জ : সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে ১৪৪ ধারা ভঙ্গ করে সন্ত্রাসীদের দ্বারা হামলার শিকার হয়েছেন এক যুবলীগ কর্মী। গুরুতর আহত নাবিল মন্ডল (৩০) উপজেলার চালা গ্রামের দৌলত মন্ডলের ছেলে।

শুক্রবার রাত ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। আশংকাজনক অবস্থায় তাকে রাতেই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শুক্রবার রাতে যুবলীগ কর্মী নাবিন মন্ডল তার কনফেকশনারী দোকানে ছিলেন। হঠাৎ বেলকুচি থানা আওয়ামী লীগের সাবেক কার্যকারী সদস্য ও মন্ডল গ্রুপের জি এম এবং স্থানীয় সংসদ সদস্যের প্রধান উপদেষ্টা ইন্জিনিয়ার আমিরুল ইসলাম ও সিরাজগঞ্জ জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সহ-সভাপতি শাহাদৎ হোসেন মুন্নার নেতৃত্বে গাড়ামাসী গ্রামের তোজ্জামেলের ছেলে ইব্রাহিম খলিল সৌরভ, হয়রত আলী, মাসুদ সহ একদল সন্ত্রাসী ধারালো দা, ছুরি, লাঠি-শোঠা নিয়ে অর্তকিত ভাবে দোকানের ভিতরে তার উপর হামলা চালায়। তখন তাকে বেদম মারধর করে দোকান থেকে ১ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা লুট করে।

এ সময় তার আর্ত চিৎকারে আশেপাশের লোকজন ছুটে আসলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা গুরুত্বর আহত অবস্থায় নাবিল মন্ডলকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। এ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছেন। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থানায় মামলা দায়ের প্রস্তুতি চলছে।

আহত যুবলীগ কর্মী নাবিল মন্ডল জানান, সন্ধ্যা থেকে আমি দোকানে বসে দোকানদারী করছি। রাত ৮ টার দিকে থানা আওয়ামী লীগের সাবেক কার্যকারী সদস্য আমিরুল ইসলাম ও শাহাদৎ হোসেন মুন্না সহ ২০/২৫ জন সন্ত্রাসী এসে আমার দোকানের ভিতর ঢুকে আমাকে হত্যা করার উদ্দ্যেশে ধারালো ছুরি দিয়ে হামলা চালায় এবং আমার দোকানের ক্যাশের ভিতর থেকে ১ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। আমি দ্রুত হামলাকারীদের গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানাছি।

এ বিষয়ে বেলকুচি থানার ওসি গোলাম মোস্তফা জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পরিদর্শন করেছে। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপে