মাধ্যমিকের শিক্ষক-কর্মকর্তার পদোন্নতি

প্রকাশিত: জুন ৯, ২০২২; সময়: ১১:২৫ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ২৩৩ জন শিক্ষক ও কর্মকর্তাকে পদোন্নতি দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। বৃহস্পতিবার (০৯ জুন) সন্ধ্যায় শিক্ষা মন্ত্রণালয় পদোন্নতি সংক্রান্ত এক প্রজ্ঞাপন জারি করে। এ পদোন্নতির ফলে তারা এখন জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা ও প্রধান শিক্ষক পদে দায়িত্ব পালন করবেন।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব আবু বকর ছিদ্দীক স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, এ প্রজ্ঞাপন জারির আগে কোনো শিক্ষক বা কর্মকর্তা অবসরত্তোর ছুটি ও মৃত্যুবরণ করলে এ আদেশ তাদের জন্য কার্যকর হবে না।

এদিকে পদোন্নতির খবরে স্বস্তি প্রকাশ করেছেন মাধ্যমিকের শিক্ষক ও কর্মকর্তরা। তারা বলেন, দীর্ঘদিন সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়গুলো যে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক দিয়ে চলছিল আজকের প্রজ্ঞাপনে বিদ্যালয়গুলো ভারমুক্ত হলো।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা এর আগে জানিয়েছিলেন, পদোন্নতিযোগ্য ৪২৩ শিক্ষকের তথ্য মাউশি থেকে মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়। তবে অনেকের চাকরিজীবনে সমস্যা ও বার্ষিক গোপনীয় অনুবেদনে (এসিআর) সমস্যা থাকায় ডিপিসি সভায় অনেকেই পদোন্নতিযোগ্য হতে পারেননি।

মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের (মাউশি) তথ্য অনুযায়ী, দেশে সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় এখন ৬৬২টি। এর মধ্যে পুরনো সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় ৩৪৮টি। বাকি ৩১৪টি বিদ্যালয় ২০১০ সালের পর জাতীয়করণ হয়। অধিকাংশ বিদ্যালয়ে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক দিয়ে চলছে। সম্প্রতি এ অচলাবস্থা দূর করতে বিশেষ উদ্যোগ নেয় সরকার।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপে