রাজশাহী মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের কোষাধ্যক্ষকে বহিষ্কার

প্রকাশিত: জুন ৭, ২০২২; সময়: ৯:২২ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহী জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের কোষাধ্যক্ষ জহুরুল ইসলাম জনিকে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে নগরীর নওদাপাড়া বাস টার্মিনাল কার্যালয়ে সংগঠনের এক জরুরি মতবিনিময় সভায় তাকে সর্বসম্মতিক্রমে বহিষ্কারের এই সিদ্ধান্ত হয়।

রাজশাহী জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলী সভায় সভাপতিত্ব করেন। সভা সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক মাহাতাব হোসেন চৌধুরী। সভা শেষে তিনি কোষাধ্যক্ষ জহুরুল ইসলাম জনিকে সংগঠন থেকে বহিষ্কারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মাহাতাব হোসেন চৌধুরী জানান, জহুরুল ইসলাম জনি মাঝে মাঝেই সংগঠনের মোট অংকের টাকা নিয়ে লাপাত্তা হয়ে যান। একবার তিনি সংগঠনের টাকা দিয়ে নিজের ফ্ল্যাট নির্মাণ করেছেন। আরেকবার সংগঠনের টাকা দিয়ে নিজের কিস্তি পরিশোধ করেছেন। তিনি টাকা নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার কারণে শ্রমিকদের প্রাপ্য টাকা দিতে সমস্যায় পড়তে হয়েছে।

মাহাতাব হোসেন চৌধুরী অভিযোগ করেন, জহুরুল ইসলাম জনি দৈনন্দিন আদায়ের ১ লাখ ৮০ হাজার টাকা ও নতুন সদস্য ফরম বিক্রির ৫ লাখ ৪০ হাজার টাকা আত্মসাৎ করেছেন। এসব কারণে শ্রমিকদের নিয়ে জরুরি সভা আহ্বান করা হয়েছিল। সভায় সর্বসম্মতিক্রমে জনিকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত হয়েছে। সংগঠনের আগামী কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় কোষাধ্যক্ষ পদের উপ-নির্বাচনের দিনক্ষণ ঠিক করার ব্যাপারে আলোচনা হবে।

এর আগের দিন সোমবার সংবাদ সম্মেলন করে জহুরুল ইসলাম জনি ইউনিয়নের নেতাদের নামে অর্থ লোপাটের অভিযোগ তুলেন।

বহিস্কারের বিষয়ে বলেন, ‘ইউনিয়নের নেতারা শ্রমিকদের টাকা মেরে খাচ্ছে। আমিই এর প্রতিবাদ করেছি। তাই আমার ব্যাপারে এ সিদ্ধান্ত। আমি যদি অন্যায় করে থাকি তাহলে তার শাস্তি পাব। ভাল কাজ করলে পুরষ্কার পাব।’

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপে