মুক্তি পেল কেকের গাওয়া শেষ গান

প্রকাশিত: জুন ৭, ২০২২; সময়: ২:০১ pm |
খবর > বিনোদন

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : কলকাতা কনসার্টে গাইতে গিয়ে গত ৩১ মে সুরালোকে পাড়ি দিয়েছেন সুরের যাদুকর কৃষ্ণকুমার কুন্নাথ ওরফে কেকে। তার এই আকস্মিক প্রয়ান এখনও যেন মেনে নিতে পারছে না তার ভক্তরা। সব বয়সের মানুষের কাছে কেকে ছিলেন সমান জনপ্রিয়।

ভক্তদের মন খারাপের মধ্যেই পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায়ের ‘শেরদিল’ ছবির মাধ্যমে আবারও কেকের গাওয়া গান শোনার সুযোগ পেলেন শ্রোতারা। মুক্তি পেল কেকের রেকর্ড করা শেষ গান। গত রোববার সৃজিত সোশ্যাল মিডিয়ায় জানিয়েছিলেন, সোমবার মুক্তি পাবে কেকের রেকর্ড করা শেষ গানটি।

গুলজারের লেখা ও শান্তনু মৈত্রর সুরে গানটি গেয়েছেন কেকে। এ বছর এপ্রিল মাসে গানটি গান কেকে। ‘ধূপ পানি বহেনে দে’ গানটি মুক্তি পাওয়া মাত্রই, হাজার হাজার মানুষ ইতিমধ্যেই শুনে ফেলেছেন। গানের সুর বা লিরিক্সের থেকে কেকে-র কথা স্মরণ করেই গানটি শুনছেন তার গুণমুগ্ধ শ্রোতারা, প্রিয় গায়কের কথা মনে করে ভাসছেন প্রবল আবেগে।

১৯৯৬ সালে ‘মাচিস’ ছবিতে গান গাওয়ার মধ্য দিয়ে বলিউডে পা রেখেছিলেন কেকে। তারপর থেকে আর কখনও ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে। একের পর এক ছবিতে প্লে-ব্যাক করেন কেকে।

নব্বই দশক থেকে শুরু করে বাংলা, হিন্দি, তামিল, কন্নড়, মালয়ালাম, মারাঠি, অসমীয়া ভাষায় বহু জনপ্রিয় গানে কণ্ঠ দিয়েছেন কেকে। হাম দিল দে চুকে হ্যায় সনম, দেবদাস, ওম শান্তি ওম, জন্নত, বজরঙ্গী ভাইজান, ভুল ভুলাইয়া, রইসসহ অসংখ্য ছবিতে গান গেয়েছেন তিনি।

শেরদিল ছবিতে কেকে-র গান গাওয়া নিয়ে পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায় বলেন, ‘এই গানটি নিয়ে একটি অদ্ভূত ভাললাগা, সেই সঙ্গে বিষাদও মিশে আছে। আমি বহু বছর ধরে তাকে চিনি।

তার মধ্যে ছিল শুধুই গান এবং আনন্দ। এই গানটি একটা ট্রিবিউট। যাওয়ার আগে যা আমাদের উপহার দিয়ে গেল কেকে। এই গানটা ছিল একটা মেসেজ’।

তিনি বলেন, ‘শেরদিল ছবিটি ‘কেকে’-র উদ্দেশেই উৎসর্গ করা হয়েছে। এই গানটির মাধ্যমে নতুন প্রজন্মকে একটা মেসেজ দেওয়া হয়েছে। তাই সকলের শোনা উচিত গানটি’।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপে