দুর্গাপুরে পুকুর খননে জমি লীজ নিয়ে টাকা না দিয়ে উল্টো কৃষককে হুমকী

প্রকাশিত: মে ২২, ২০২২; সময়: ৭:৫৪ pm |

নিজস্ব প্রতিবেদক, দূর্গাপুর : রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার গোপালপুর গ্রামে এক কৃষকের জমি লিজ নিয়ে পুকুর খনন করে এক মৎস্য ব্যবসায়ী খাজনা বাবদ টাকা দিচ্ছে না বলে অভিযোগ উঠছে। শুধু তাই নয় এলাকার প্রভাবশালী আওয়ামী লীগ নেতা মৎস্য ব্যবসায়ী শাহাদত হোসেনের কাছে ভুক্তভোগী কৃষক ছিদ্দিকুর রহমান পাওনা টাকা চাইলে তাকে মারধরের হুমিক প্রদান সহ স্তার নিজ ছোট ভাই শাজাহান আনসার ব্যাটালিয়নে চাকরি করে এবং তার স্ত্রী পুলিশ সদস্যের চাকরি করে তারা প্রশাসনের লোক বলে তাকে বিভিন্ন মামলায় ফাঁসিয়ে দেওয়ার হুমকি দেয়া হয়।

এদিকে, নিজের জমি পুকুরের লিজ দিয়ে টাকা তুলতে না পারায় চরম বিপাকে পড়েছেন কৃষক ছিদ্দিকুর রহমান। এ নিয়ে ভুক্তভোগী ওই কৃষক স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সহ বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ করেছেন।

ভুক্তভোগী কৃষক ছিদ্দিকুর রহমান বলেন, উপজেলার গোপালপুর গ্রামের গোপালপুর মৌজাস্থিত ১একর ১৪শতাংশ জমি লীজ গ্রহনের মাধ্যমে গত ২০১৯সালে একই এলাকার আব্দুস সাত্তার এর তিনপুত্র প্রভাবশালী আওয়ামী লীগ নেতা শাহাদত, নিজ সহোদর ভাই আনসার ব্যাটালিয়নে কর্মরত সাজাহান ও যুবলীগ নেতা সাজ্জাদ হোসেন তিন ভাই মিলে পুকুর খনন করেন। তিনি প্রথমে পুকুর খননে জমিতে দিতে অস্বীকৃতি জানান।

পরে বিঘা প্রতি ২৮থেকে ৩৮হাজার টাকা দাম দিতে চাইলে তিনি শাহাদতকে তাঁর ১ একর ১৪শতাংশ জমি পুকুর খননের জন্য লিজ দেন। ব্যবসায়ী শাহাদত গত ২০২০ সালের ১৪ এপ্রিল ৯৬হাজার টাকার মধ্যে ৮০ হাজার টাকা পরিশোধ করেন। এরপর থেকে তিনি কোন টাকা পয়সা দেননি। টাকার জন্য তাঁর কাছে কাছে গেলে তিনি সময় ক্ষেপন করতে থাকেন।

গত সপ্তাহে স্থানীয় গোপালপুর বাজারে পাওনা টাকা চাইলে মৎস্য ব্যবসায়ী প্রভাবশালী আওয়ামী লীগ নেতা শাহাদত টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানায়। এ সময় কৃষক ছিদ্দিকুর রহমানকে মেরে ফেলারও ভয়ভীতি দেখায়।

ছিদ্দিকুর সাংবাদিকদের কাছে আরও বলেন, পুকুর খননের পর এক ৯৬ হাজার টাকার মধ্যে ৮০ হাজার টাকা পরিশোধ করেন। তারপর তিনি আর কোন টাকা পয়সা দেননি। এখনও তাঁর কাছে ২ লাখ ৭৯ হাজার টাকা জের আছে। এ নিয়ে নওপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানকে অভিযোগ দেওয়া আছে।

হুমকি ধামকি দেবার অভিযোগ অস্বীকার করে মৎস্য ব্যবসায়ী শাহাদত বলেন, ছিদ্দিকুর আমার লিজ নেওয়া পুকুরে মাছ ধরতে বাধা প্রয়োগ করেন। তাকে প্রথমে ৮০ হাজার টাকা দেওয়া হয়েছে। জমি নিয়ে ঝামেলা আছে। এ কারণে পরবর্তীতে তাকে আর কোন টাকা পয়সা দেওয়া হয়নি।

নওপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শফিকুল আলম শফি বলেন, এ নিয়ে কৃষক ছিদ্দিকুর অভিযোগ করেছেন। কিন্তু টাকা দিতে শাহাদত গড়িমসি করছেন। রোববার দুপুরে এ বিষয়ে শাহাদতের সঙ্গে সরাসরি কথা হয়েছে এবং ভুক্তভোগী ওই কৃষককে টাকা দিয়ে দিতে বলা হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও খবর

  • স্বপ্নের পদ্মা সেতু ঘিরে যত ষড়যন্ত্র
  • বাসায় ফিরলেন খালেদা জিয়া
  • কলকাতার ৮ পয়েন্টে দেখানো হবে পদ্মা সেতুর লাইভ উদ্বোধন
  • কর্মীকে পেটালেন রাবি ছাত্রলীগ নেতা
  • গোদাগাড়ীতে প্রবাসীর স্ত্রীর আত্নহত্যা
  • নাটোরে ভুল অপারেশনে গৃহবধুর মৃত্যুর অভিযোগ
  • পদ্মা সেতুর ওপর যা যা করা যাবে না
  • আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘরে এসি, আকাশ ডিটিএইচ
  • লালপুরে সন্ত্রাসী হামলায় আহতের পরিবার প্রাণভয়ে নিখোঁজ
  • গভীর রাতে রাবির আবাসিক ছাত্রকে বের করে দিল ছাত্রলীগ
  • বন্যার পানিতে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু
  • বোরকা পরে শ্বশুরবাড়ির তিনজনকে কুপিয়েছে মুরগি বিক্রেতা
  • রাজশাহীর বাজারে বেড়েছে সবজি ও মাছের দাম
  • আইপিইএফে যোগ দেওয়ার কথা ভাবছে বাংলাদেশ
  • ট্রাক কেড়ে নিল মা-ছেলের প্রাণ
  • উপে