ডিম ও দুধ একসঙ্গে খাওয়া কি ঠিক?

প্রকাশিত: মে ২২, ২০২২; সময়: ২:৫২ pm |
ডিম ও দুধ একসঙ্গে খাওয়া কি ঠিক?

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : অনেকেই নাশতায় সিদ্ধ ডিম কিংবা অমলেট, সঙ্গে একগ্লাস দুধ খান। অনেকে আবার শরীরের ফিটনেস বাড়াতে দুধের সঙ্গে কাঁচা ডিম মিশিয়ে খেয়ে ফেলেন। কিন্তু ডিম আর দুধ একসঙ্গে খাওয়া ঠিক কিনা তা নিয়ে যুগ যুগ ধরে বিতর্ক চলছে।

অনেকের মতে, ডিম আর দুধ একসঙ্গে খেলে হজমে সমস্যা হতে পারে। আবার অনেকে বলেন, হজম করতে পারলে দুধ আর ডিম একসঙ্গে নিশ্চিন্তে খাওয়া যায়। দুধ, ডিম উভয়ই স্বাস্থ্যকর এবং উচ্চ প্রোটিন সমৃদ্ধ। পুষ্টিবিদদের মতে, একসঙ্গে দুধ ও ডিম খাওয়ার ফলে নানা ধরণের স্বাস্থ্য সমস্যা হতে পারে।

ভারতীয় গণমাধ্যম বোল্ড স্কাইয়ের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে দুধ আর ডিম একসঙ্গে খেলে কী কী সমস্যা হয়। যেমন-

ডিম, দুধ উভয়ই হেলদি ফ্যাট, প্রোটিন, অ্যামিনো অ্যাসিড এবং ক্যালসিয়ামে পরিপূর্ণ, যা শরীর এবং মস্তিষ্কের বিকাশ ও ভাল কার্যকারিতার জন্য প্রয়োজন। আয়ুর্বেদ মতে, একসঙ্গে দুই রকমের প্রোটিন খেলে হজমে সমস্যা হতে পারে। এছাড়া, পেট ফুলে থাকা, অস্বস্তি, পেটে ব্যথা, এমনকি ডায়রিয়াও হতে পারে।

কেউ কেউ বলেন, দুধ ও ডিম একসঙ্গে খেলে পেশি শক্তিশালী হয়। আবার অনেকের মতে, এই মিশ্রণটি বদহজমের অন্যতম কারণ এবং অনেক সময় ত্বকে সংক্রমণও হতে পারে।

তবে বেকিং এবং রান্নার ক্ষেত্রে ডিম-দুধের মিশ্রণের কোনও পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া হয় না; বরং এই দুইয়ের সংমিশ্রণে খাবারের স্বাদ ও টেক্সচার উন্নত হয়। তবে, কাঁচা ডিম মিশিয়ে খেলে বিভিন্ন স্বাস্থ্য সমস্যা হতে পারে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, দুধের সঙ্গে কাঁচা ডিম মিশিয়ে খেলে হজমের সমস্যা শুরু হতে পারে এবং সালমোনেলার ​​মতো রোগও হতে পারে। দুধ এবং কাঁচা ডিম একত্রিত করলে ফুড পয়জনিং এবং বায়োটিনের ঘাটতি হতে পারে।

এই কারণেই দুধের সঙ্গে কাঁচা ডিম মিশিয়ে খাওয়া অত্যন্ত খারাপ। যারা পেশি গঠনের চেষ্টা করছেন, তারা প্রায়ই পেশি এবং শরীরের দ্রুত বিকাশের জন্য কাঁচা ডিম ও দুধ খান।

তবে দিনের পর দিন এটি খেলে কোলেস্টেরলের ঝুঁকি বাড়তে পারে। তাই রান্না করা ডিম এবং দুধ খাওয়াই ভালো। তবে এই দুই ধরনের প্রোটিন খাওয়ার মধ্যে এক ঘণ্টা গ্যাপ রাখা উচিত।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপরে