বঙ্গবন্ধু টানেলের টোল আদায়ের দায়িত্ব পেল চায়না কমিউনিকেশন্স

প্রকাশিত: মে ১৮, ২০২২; সময়: ৪:৩৭ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : চট্টগ্রামের কর্ণফুলী নদীতে নির্মাণাধীন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান টানেল রক্ষণাবেক্ষণ ও টোল আদায় কার্যক্রম পরিচালনার জন্য সার্ভিস প্রোভাইডার হিসেবে চায়না কমিউনিকেশন্স কন্সট্রাকশন কোম্পানি লিমিটেডকে নিয়োগের প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা কমিটি।

বুধবার (১৮ মে) দুপুরে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠিত অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে এ তিনটি প্রস্তাবের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব জিল্লুর রহমান চৌধুরী সাংবাদিকদের এসব তথ্য বিস্তারিত জানান।

তিনি জানান, অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা-কমিটির অনুমোদনের জন্য তিনটি এবং ক্রয়সংক্রান্ত কমিটির অনুমোদনের জন্য (টেবিলে ২টি সহ) মোট ৯টি প্রস্তাব উপস্থাপন করা হয়েছে।

ক্রয় সংক্রান্ত প্রস্তাবনাগুলোর মধ্যে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের তিনটি, সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের দুটি, পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের একটি, কৃষি মন্ত্রণালয়ের একটি, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের একটি এবং বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের একটি প্রস্তাবনা ছিল।

ক্রয় সংক্রান্ত কমিটির অনুমোদিত আটটি প্রস্তাবে মোট অর্থের পরিমাণ ২ হাজার ৪১০ কোটি ৬১ লাখ ২৫ হাজার ২৩৫ টাকা। মোট অর্থায়নের সম্পূর্ণ অর্থই জিওবি থেকে ব্যয় হবে।

তিনি জানান, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের অধীন সেতু বিভাগ কর্তৃক চট্টগ্রামের কর্ণফুলী নদীতে নির্মাণাধীন ৩.৩২ কিলোমিটার দীর্ঘ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান টানেল রক্ষণাবেক্ষণ ও টোল আদায় কার্যক্রম পরিচালনার জন্য সার্ভিস প্রোাভাইডার হিসেবে চায়না কমিউনিকেশন্স কন্সট্রাকশন কোম্পানি লিমিটেডকে (সিসিসিসি) নিয়োগের প্রস্তাব নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃক ঢাকার দোহার উপজেলাধীন মাঝিরচর থেকে নারিশাবাজার হয়ে মোকসেদপুর পর্যন্ত পদ্মা নদী ড্রেজিং ও বাম তীর সংরক্ষণ প্রকল্পের আওতায় পদ্মা নদীর ডান তীর ৬ কিলোমিটার স্থায়ী প্রতিরক্ষা এবং ২৪ কিলোমিটার নদী ড্রেজিংয়ের পূর্ত কাজ অর্পিত ক্রয় কার্য অনুসরণে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর মাধ্যমে বাস্তবায়নের প্রস্তাব নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

তিনি আরও জানান, পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃক কিশোরগঞ্জ জেলার মিঠামইন উপজেলাধীন নির্মিতব্য মিঠামইন সেনা স্থাপনার ভূমি সমতল উঁচু করা, ওয়েভ প্রটেকশন ও তীর প্রতিরক্ষা প্রকল্পের আওতায় ভূমি সমতল উঁচুকরণ- ১২৩ হেক্টর, নদীর তীর প্রতিরক্ষা ১.৮৫ কিলোমিটার, ওয়েভ প্রটেকশন কাজ ৪.১০ কিলোমিটার, পেরিফেরাল ডাইক নির্মাণ ৪.১০ কিলোমিটার, মিঠামইন উপ-বিভাগীয় দপ্তর একটি, ব্যারাক একটি ও নদীতীরে দুটি আরসিসি ঘাট নির্মাণের পূর্ত কাজ অর্পিত ক্রয় কার্য অনুসরণে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর মাধ্যমে বাস্তবায়নের প্রস্তাব নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও খবর

  • ঝড়ের কবলে পড়ে নৌকাডুবি, প্রাণ গেল যুবকের
  • বিশ্বে মোট শনাক্ত ছাড়াল ৫৫ কোটি, মৃত্যু আরও ১৩২৬
  • ব্যাংকে গোলাগুলি, নিহত ২
  • পোস্তগোলা ব্রিজ দিয়ে যাতায়াতকারীদের জন্য সুখবর
  • ছেলের প্রেমের দায়ে মাকে পুড়িয়ে হত্যা
  • শতবর্ষী ব্যক্তিকে ৫ বছরের জেল
  • ঈদে যাত্রীচাপ সামাল দিতে প্রস্তুত পদ্মা সেতু
  • ইভিএমের পক্ষে দৃঢ় অবস্থান আ.লীগের
  • চাঁপাইনবাবগঞ্জে মাদক মামলায় যুবকের যাবজ্জীবন
  • ফের মাস্ক বাধ্যতামূলক
  • রাজশাহীতে ২য় বঙ্গবন্ধু টি-২০ ক্রিকের চ্যাম্পিয়ন রাইমা রেঞ্জার্স
  • শিবগঞ্জে নারীকে পিটিয়ে হত্যা
  • শিক্ষকের গলায় জুতার মালা পড়ানোর মামলায় গ্রেপ্তার ৩
  • করোনায় আরও ৩ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২,০৮৭
  • চাচীর সাথে পরকীয়া, দুই হাতের কব্জি হারাল যুবক
  • উপে