দৈনিক সংক্রমণে শীর্ষে উত্তর কোরিয়া, সর্বোচ্চ মৃত্যু যুক্তরাজ্যে

প্রকাশিত: মে ১৭, ২০২২; সময়: ১০:৩৩ am |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : শ্বাসতন্ত্রের প্রাণঘাতী রোগ করোনার দৈনিক সংক্রমণে সোমবার বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মধ্যে শীর্ষে ছিল উত্তর কোরিয়া, আর কোভিডজনিত অসুস্থতায় ভুগে এদিন সর্বোচ্চ সংখ্যক মৃত্যু হয়েছে যুক্তরাজ্যে।

বিশ্বে করোনা মহামারি শুরুর পর থেকে এ রোগে আক্রান্ত, মৃত্যু ও সুস্থতার হালনাগাদ সংখ্যা প্রকাশকারী ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটার্সের তথ্য অনুযায়ী, সোমবার উত্তর কোরিয়ায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩ লাখ ৯২ হাজার ৯৩০ জন এবং এ রোগে সেখানে মৃত্যু হয়েছে ৮ জনের।

অন্যদিকে এ দিন যুক্তরাজ্যে কোভিডজনিত অসুস্থতায় ভুগে মারা গেছেন ১৭৬ জন এবং করোনা পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ৫ হাজার ১ জন।

এছাড়া সোমবার বিশ্বজুড়ে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৭ লাখ ২৯ হাজার ৪৩৭ জন এবং কোভিডজনিত অসুস্থতায় ভুগে মারা গেছেন ১ হাজার ১১২ জন। এ সংখ্যা আগের দিন রোববারের তুলনায় দ্বিগুণেরও বেশি।

রোববার বিশ্বে করোনায় নতুন রোগীর সংখ্যা ছিল ৩ লাখ ১৫ হাজার ৩৩০ জন এবং এ রোগে মৃত্যু হয়েছিল ৫৪৮ জনের।

তবে আক্রান্ত-মৃতের সংখ্যা বৃদ্ধির পাশাপাশি সোমবার বেড়েছে করোনা থেকে সুস্থ হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যাও। এ দিন বিশ্বজুড়ে করোনা থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন ৬ লাখ ৪৩৭ জন। আগের দিন রোববার এই সংখ্যা ছিল ৪ লাখ ১৯ হাজার ১৮৫ জন।

উত্তর কোরিয়া ও যুক্তরাজ্য ব্যতীত অন্যান্য যেসব দেশে সোমবার সংক্রমণ-মৃত্যুর উচ্চহার লক্ষ্য করা গেছে সেসব হলো— যুক্তরাষ্ট্র (নতুন আক্রান্ত ৬৪ হাজার ৪০০ জন, মৃত ১০৭ জন), তাইওয়ান (নতুন আক্রান্ত ৬১ হাজার ৭৫৩ জন, মৃত ২৯ জন), অস্ট্রেলিয়া (নতুন আক্রান্ত ৪২ হাজার ৪৫ জন, মৃত ১৩ জন), জাপান (নতুন আক্রান্ত ৩৪ হাজার ৮৪৫, মৃত ২২ জন), ফ্রান্স (মৃত ১২৬, নতুন আক্রান্ত ৫ হাজার ৯৩৬) ও ইতালি (মৃত ১০২, নতুন আক্রান্ত ১৩ হাজার ৬৬৮)।

বিশ্বে বর্তমানে সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা ২ কোটি ৩৭ লাখ ১৭ হাজার ১৮০ জন। এই রোগীদের মধ্যে করোনার মৃদু উপসর্গ বহন করছেন ২ কোটি ৩৬ লাখ ৭৮ হাজার ২৬ জন এবং গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় আছেন ৩৯ হাজার ১৫৪ জন।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে বিশ্বের প্রথম করোনায় আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। করোনায় প্রথম মৃত্যুর ঘটনাটিও ঘটেছিল চীনে।

তারপর অত্যন্ত দ্রুতগতিতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে পড়তে শুরু করে প্রাণঘাতী এই ভাইরাসটি। পরিস্থিতি সামাল দিতে ২০২০ সালের ২০ জানুয়ারি বিশ্বজুড়ে জরুরি অবস্থা জারি করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

কিন্তু তাতেও অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় অবশেষে ওই বছরের ১১ মার্চ করোনাকে মহামারি হিসেবে ঘোষণা করে ডব্লিউএইচও।

ওয়ার্ল্ডেমিটার্সের তথ্য বলছে, মহামারি শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন মোট ৫২ কোটি ২৮ লাখ ৪০ হাজার ১৪০ জন এবং এ রোগে মৃত্যু হয়েছে মোট ৬২ লাখ ৯০ হাজার ৩১৬ জনের।

এছাড়া, এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর সুস্থ হয়ে উঠেছেন মোট ৪৯ কোটি ২৮ লাখ ৩২ হাজার ৬৪৪ জন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও খবর

  • পুতিনকে জয়ী হতে দেওয়া হবে না
  • নাচে-গানে অনুষ্ঠিত ফোক ফেস্টিভ্যাল ‘বোই বুম্বা’
  • পুতিন নারী হলে ইউক্রেনে আক্রমণ করতেন না : জনসন
  • সাম্প্রদায়িকতার জেরে হিন্দু দর্জিকে হত্যা, রাজস্থানে রেড এলার্ট
  • সুইডেন-ফিনল্যান্ডকে ন্যাটো জোটে নিতে তুরস্কের সমর্থন
  • বিশ্বে মোট শনাক্ত ছাড়াল ৫৫ কোটি, মৃত্যু আরও ১৩২৬
  • কলম্বিয়ার কারাগারে দাঙ্গার মধ্যে আগুন, নিহত ৪৯
  • ব্যাংকে গোলাগুলি, নিহত ২
  • শতবর্ষী ব্যক্তিকে ৫ বছরের জেল
  • পেট্রল বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা শ্রীলঙ্কার
  • যুক্তরাষ্ট্রে ট্রাকের সঙ্গে সংঘর্ষের পর ট্রেন লাইনচ্যুত, হতাহত ৫৩
  • জর্ডানে বিষাক্ত গ্যাসে ১৩ জন নিহত
  • রাশিয়া ‘বিশ্বের সবচেয়ে বড় সন্ত্রাসী সংগঠন’: জেলেনস্কি
  • মুম্বাইয়ে মধ্যরাতে ধসে পড়ল চার তলা ভবন
  • ইউক্রেনে শপিংমলে ভয়াবহ হামলা, নিহত ১৬
  • উপে